পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/১৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


     প্রণাম মন্ত্রঃ-- সরস্বৈত্য নমো নিত্যং ভদ্রকালৈ নমো নমঃ।
 ইচ্ছা যদি হয় তথা ক্রিতে বিহার।
 সঙ্গে করি লয়ে যায় যত পরিবার।।
 জননী সহিত তথা পঞ্চ সহোদর।
 মন সুখে রহ সবে বারণানগর।।
 ধন রত্ন সঙ্গে লও যেই মনে লয়।
 কতদিন বঞ্চিয়া আইস নিজালয়।।
 এত যদি ধৃতরাষ্ট্র বলে বারে বার।
 স্বীকার করিল রাজা ধর্ম্মের কুমার।।
 দেখিবারে ইচ্ছামাত্র হইল আমার।
 এখনি যাইতে বল সহ পরিবার।।
 ধৃতরাষ্ট্র আজ্ঞাবহ ধর্ম্মের নন্দন।
 তার আজ্ঞা কখন না করেন লঙ্ঘন।।
 যাইব বারণাবত করি অঙ্গীকার।
 ধৃতরাষ্ট্র চরণে করেন নমষ্কার।।
 বিজ্ঞ মন্ত্রীগণে তবে করিয়া সম্ভাষ।
 যুধিষ্ঠির চলিলেন জননীর পাশ।।
 দেখি দুর্য্যোধন রাজা হরিষ অন্তর।
 পুরোচন মন্ত্রী বলি ডাকিল সত্বর।।
 দুর্য্যোধনের বিশ্বাসী জাতিতে যবন।
 একান্তে আনিয়া তারে কহিল বচন।।
 তোমার সমান নাহি মন্ত্রীর ভিতরে।
 পরম বিশ্বাস তেঁই ডাকি হে তোমারে।।
 তোমার সহিত আমি করি যে বিচার।
 অন্যজন মধ্যে ইহা না হয় প্রচার।।
 নগর বারণাবতে পাণ্ডুপুত্র যায়।
 তারা না যাইতে আগে যাইবে তথায়।।
 খেচর-সংযোগ রথে করি আরোহণ।
 অতি শীঘ্র তুমি তথা করিবে গমন।।
 উত্তম করিয়া স্থল করিয়া আলয়।
 অগ্নিগৃহে বিরচিবে ব্যক্ত নাহি হয়।।
 স্তম্ভ বিরচিয়া তাহে পুরাইবে ঘৃতে।
 স্বর্ণ নিয়োজিয়া গৃহ করিবে তাহাতে।।
 এমন রচিবা কেহ লক্ষিতে না পারে।
 নানা চিত্র বিরচিবা লোক-মনোহরে।।
 জতুগৃহ বেড়িয়া করিবে অস্ত্রঘর।
 মন্ত্র বিরচিয়া অস্ত্র রাখিবা ভিতর।।
 জতুগৃহে কদাচিত নহিবেক ত্রাণ।
 অস্ত্রগৃহে অস্ত্রবাজি হারাইবে প্রাণ।।
 তার চতুর্দ্দিকে গড় খুদিবা গভীর।
 লাফে যেন পার নাহি হয় ভীমবীর।।
 সময় বুঝিয়া অগ্নি দিলে সে আলয়ে।
 একত্রে থাকিবে তবে সমস্ত সময়ে।।
 ত্বরিতে চলিয়া যাও না কর বিলম্ব।
 শীঘ্রগতি কর গিয়া গৃহের আরম্ভ।।
 দুর্য্যোধন আজ্ঞা পেয়ে মন্ত্রী পুরোচন।
 বাহন যুড়িল রথে পবন-গমন।।
 ক্ষণেকে পাইল গিয়া বারণানগর।
 গৃহ বিরচিতে নিয়োজিল নিজচর।।
 যেমন করিয়া কহিলেন দুর্য্যোধন।
 ততোধিক গৃহ বিরচিল পুরোচন।।
 ভ্রাতৃ সহ যুধিষ্ঠির সহিত জননী।
 সব বৃদ্ধগণে যায় মাগিতে মেলানি।।
 বাহ্লীক গাঙ্গেয় দ্রোণ কৃপ সোমদত্ত।
 গান্ধারী সহিত গৃহে নারীগণ যত।।
 একে একে সবা স্থানে হইয়া বিদায়।
 পুরোহিত বিপ্রগণে প্রণমিল রায়।।
 দুষ্টবুদ্ধি ধৃতরাষ্ট্র করিল কুমতি।
 সে কারণে হেন কর্ম্ম করিছে অনীতি।।
 সত্যবুদ্ধি ধর্ম্মশীল পাণ্ডুপুত্রগণ।
 বাহির করিয়া দেয় দুষ্ট দুর্য্যোধন।।
 হান ছার নগরে রহিতে না যুয়ায়।
 যথা যান যুধিষ্ঠির যাইব তথায়।।
 হেতা সবে রহিবেক যত দুষ্টচিত।
 মোরা না রহিব হেথা যাইব নিশ্চিত।।
 এত বলি দ্বিজগণ চলিল সুমতি।
 পুত্র দারা পরিবার লইয়া সংহতি।।
 অগ্রসরি বিদুর গেলেন কতদূরে।
 যুধিষ্ঠিরে কহিলেন ম্লেচ্ছভাষাচারে।।
 বারণাবতেতে যাও পঞ্চ সহোদর।
 সাবধানে থাকিবা আছয়ে তাহে ডর।।
 স্বযোনি-অন্তক যেই শীতলের রিপু।
 তাহে সাবধানেতে রাখিবা সবে বাপু।।