পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


     প্রণাম মন্ত্র-- কার্ত্তিকেয়ং নমস্যামি গৌরীপুত্রং সুতপ্রদং।
 শুনি আজ্ঞা দিল তারে গান্ধারী-নন্দন।
 শীঘ্র যায় কর্ণ বীর লোহিত লোচন।।
 বৃকোদর বলে কোথা যাস সূতসুত।
 অর্জ্জুনে ধরিতে আশ শুনিতে অদ্ভুত।।
 মম হস্তে রহে যদি তোমার জীবন।
 তবে পার্থ সহ তুমি কর গিয়া রণ।।
 এত বলি লাফ দিয়া পড়িল ধরণী।
 গদা ফিরাইয়া যান যেন দণ্ডপাণি।।
 বিদুর বলিল তাত শুন দুর্য্যোধন।
 পার্থ সহ দ্বন্দ্ব কি তোমার প্রয়োজন।।
 যতন করিয়া তোমা আনিল যে জন।
 তাঁর ঠাঁই আগে গিয়া গিজ্ঞাস কারণ।।
 হেনকালে উপনীত হৈল সাত্যকি।
 মধুর কোমল ভাষে পার্থে কহে ডাকি।।
 দুর্য্যোধন শুনি অভিমানেতে রহিল।
 সসৈন্যে আপন দেশে বাহুড়ি চলিল।।
 তবে পার্থ দারুকে করিয়া কৃতাঞ্জলি।
 সবিনয় কহিতে লাগিল মহাবলী।।
 যথা কৃষ্ণ তথা তুমি ইথে নাহি আন।
 করিলাম অপরাধ ক্ষম মতিমান।।
 দারুক কহিল পার্থ কৈলে বড় কর্ম্ম।
 বন্ধন এ নহে মম রক্ষা কৈলে ধর্ম্ম।।
 তুমি যদি আমারে না করিতে বন্ধন।
 কোন্ লাজে দেখাতাম রামেরে বদন।।
 এই মত লহ মোরে সাক্ষাতে তাঁহার।
 নহিলে রামের ক্রোধ হইবে অপার।।
 অর্জ্জুন বলেন ইহা না হয় উচিত।
 তোমার বন্ধনে কৃষ্ণ হইবে কুপিত।।
 চিত্তে করিবেন রাম কপট বন্ধন।
 এত বলি মুক্ত করি দিলেন তখন।।
 তবে যত যদুগণ সন্তুষ্ট হইয়া।
 লইল অর্জ্জুন বীরে আদর করিয়া।।
 ভীষ্ম দ্রোণ কৃপাচার্য্য বিদুর সুমতি।
 ভুরিশ্রবা সোমদত্ত বাহ্লীক প্রভৃতি।।
 অগ্রসরি লইলেন দেব নারায়ণ।
 হুলাহুলি দিয়া নিল যতেক স্ত্রীগণ।।
 রত্নময় আসনে দোঁহারে বসাইয়া।
 বেদ অনুসারে দোঁহাকার দিল বিয়া।।
 বসুদেব করিলেন ভদ্রা সম্প্রদান।
 যতেক যৌতুক দিল নাহিক পরিমান।।
      -------
    খাণ্ডব বন দাহন।
   কতদিন পরেতে অর্জ্জুন নারায়ণ।
 গ্রীষ্মকালে যান দোঁহে ক্রীড়ার কারণ।।
 যমুনার জলে গিয়া অরেন বিহার।
 রুক্মিণী সুভদ্রা সঙ্গে বহু পরিবার।।
 ক্রীড়ান্তে বসিলেন উভয় আসনে।
 বিপ্রবেশে হুতাশন আইল সেখানে।।
 কহিলেন সবিনয়ে দরিদ্র ব্রাম্ভণ।
 দুইজন মিলি মোরে করাও ভোজন।।
 হাসিয়া কহেন পার্থ কহ বিচক্ষণ।
 কোন্ ভক্ষ্য দিলে তৃপ্ত হইবে এক্ষণ।।
 ভক্ষ্য হেতু অত কথা বল কি কারণ।
 যে কিছু মাগহ ভক্ষ্য দিব এইক্ষণ।।
 আশ্বাস পাইয়া বলে অগ্নি মহাশয়।
 আমি অগ্নি বলি দিল নিজ পরিচয়।।
 ব্যাধিযুক্ত বহুকাল আমার শরীর।
 নির্ব্যাধি করহ মোরে পার্থ মহাবীর।।
 খাণ্ডব বনেতে সব জীবের আলয়।
 সেই বন ভক্ষ্য মোরে দেহ মহাশয়।।
 এত শুনি জিজ্ঞাসিল রাজা জন্মেজয়।
 কহ মুনিরাজ মম খণ্ডাও বিস্ময়।।
 কি হেতু হইল ব্যাধিযুক্ত হুতাশন।
 কিসের কারণে চাহে খাণ্ডব দাহন।।
 মুনি বলে শুন নৃপ পূর্ব্বের কাহিনী।
 সত্যযুগে ছিল শ্বেতকি নৃপমণি।।
 যজ্ঞ বিনা অন্য কর্ম্ম না জানে কখন।
 নিরন্তর যজ্ঞ করে     ব্রম্ভণ।।
 বহুকাল যজ্ঞ রাজা করে হেনমত।
 সহিতে না পারে কষ্ট দ্বিজগণ যত।।
 যজ্ঞ ত্যাজি দ্বিজগণ করিল গমন।
 বিনয় করিয়া রাজা বলিল বচন।।