পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৯৮ পাণ্ডবের যতেক জিনিলে রাজ্যধন । শীঘ্ৰগতি আনি তারে দেহ এইক্ষণ ॥ দ্রৌপদীরে দুঃশাসন কৈল অপমান । বিনয় করিয়া চাহ ক্ষম। তার স্থান ॥ কর্ণে দুৰ্য্যোধনে কর পাণ্ডবের প্রীত । এই কৰ্ম্ম হয় প্রীত দেখি তব হিত ॥ তুমি কৈলে যদি নাহি মানে দুর্য্যোধন । তবেত তাহারে রাখ করিয়া বন্ধন ॥ পূৰ্ব্বে যত বলিলাম করিলে অন্যথা । এখন যে বলি রাজা রাখ এই কথা ॥ জিজ্ঞাসিলে তেঁই এই কহিমু বিচার । ইহা ভিন্ন অন্ন নাহি উপায় ইহার ॥ বিদুর বচন শুনি বলিলেন অন্ধ । যতেক বলিল এ সকল কথা মন্দ ॥ আপনার মূৰ্ত্তিভেদ আপন নন্দন । তারে দুঃখ দিব পর-পুত্রের কারণ ॥ এবে জানিলাম তব কুটিল বিচার । তোমারে বিশ্বাস ক্ষত্তা না হবে আমার ॥ অসতী নারীকে যদি করয়ে পালন । বহুমতে রাখিলে সে না হয় আপন ॥ পাণ্ডবের ছিত তুমি করহ এখন । যাও বা থাকছ তুমি যাহা লয় মন ॥ এত শুনি উঠিল বিদুর মহাশয় । ডাকি বলে কুরুবংশ মজিল নিশ্চয় ॥ চিত্তে মহাতাপ হেতু না গেল মন্দির । হস্তিনানগর হুৈতে হইল বাহির । যথা বনে আছে পঞ্চ পাণ্ডুর নন্দন । এক রথে তথাকারে করিল গমন ॥ যুধিষ্ঠির ছিল কামাকানন ভিভর । গচৰ্ম্ম পরিধান সঙ্গে সহোদর ॥চতু, দকে সহস্ৰ সহস্ৰ দ্বিজগণ । ইন্দ্রেরে বেড়িয়া আছে যেন দেবগণ ॥ কতদূরে বিছরে দেখিয়া কুরুনাথ । ভ্রাতৃগণে বলে ঐ আইল খুল্লতাত ॥ কি হেতু বিছর আসে না বুঝি বিচার । পনঃ কি বিচার কৈল হবল-কুমার । ব্যাঘ্ৰচৰ্ম্মাৰ্বতকটিং খুন্দিলং রক্তৰালসংTম পুনঃ কিবা পাশা হেতু দিল পাঠাইল । রাজ্য হৈতে আমি কিছু না আইনু লৈয় । কেবল আয়ুধ মাত্র আছয়ে আমার । আয়ুধ জিনিয়া নিতে করেছে বিচার ॥ পঞ্চ ভাই করিছেন বিচার এমত । হেনকালে উপনীত বিদুরের রণ ॥ যথাযোগ্য পরস্পর করি সম্ভাষণ । জিজ্ঞাসেন যুধিষ্ঠির বিনয় বচন ॥ আমরা আইলে বনে অন্ধ কি কহিল । বিদুর কহেন শুন যে কথা হইল ॥ কুরুবংশ হিত হেতু জিজ্ঞাসিল মোরে । সেইমত সংযুক্তি দিলাম অন্ধেরে ॥ যতেক কহিনু আমি সবাকার হিত । অন্ধ রাজ শুনিয়া বুঝিল বিপরীত ॥ রোগীজনে যথ। দিব্য পথ্য নাহি রুচে । যুবা নারী বৃদ্ধ স্বামী যথা নাহি ইচ্ছে ॥ ক্রুদ্ধ হয়ে আমারে বলিল কুবচন । যাও বা থাকহ তোমা নাহি প্রয়োজন । সে কারণে তারে ত্যজি মাইলাম বন । তোমা সবাকারে বনে করিতে পালন । ভাল হৈল অন্ধরাজ ত্যজিল আমারে । , তোমা সব সহ বনে থাকিব বিহারে । তবেত বিদুর বহু কহিল স্বনীত । যুধিষ্ঠির পঞ্চ ভাই লইয়া ত্বরিত ॥ বনপৰ্ব্ব অপূর্ব রচিলেন অমৃত । কাশীদাস কহে সাধু পিয়ে অনুব্রত ! প্ত স্তরাষ্ট্রের সহিত পিছরের পুনঃ মিঃ + ও সুতরাষ্ট্রের প্রতি ব্যাসের হিতোপদেশ । হস্তিন ত্যজিয়া ক্ষত্তা গেল বনমাঝ শুনিয়া আকুল চিত্ত হৈল অন্ধরাজ । নাহি রুচে অন্নজল অশন শয়ন । অতি বেগে সভামাঝে করিল গমন ॥ যাইতে মুছিত হ’য়ে ভূমিতে পড়িল । সঞ্জয় প্রভূতি সবে ধরিয়া তুলিলা ॥