পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


wo) s \o এত শুনি হৃষ্ট হৈয়া তুণুে অস্ত্র খুল ৷ এ সব কারণ শাল্ব সকল জানিল ॥ রণ ত্যজি সৌভপুরে উভরিল গিয়া । নিজ রাজ্যে গেল তবে দ্বারকা ত্যজিয় ॥ শ্রীকৃষ্ণের যুদ্ধে শাল্বদৈত্য বধ । তব যজ্ঞ সাঙ্গ যবে হৈল নরপতি । হেথ হতে অমিত’ গেলাম দ্বারাবতী ॥ দেখিলাম দ্বারকা যে লণ্ডভণ্ড প্রায় । বেদধ্বনি উচ্চারিল সবে সূক্ষ তায় ॥ পুম্পোদ্যানে তরুগণ লণ্ডভণ্ড দেখি । জানিলাম জিজ্ঞাসিয়া সাত্যকিরে ডাকি ॥ সকল কহিল তবে হৃদিকানন্দন । আদ্যোপান্ত যতেক শাস্বের বিবরণ l; শুনিয়া হৃদয়ে তাপ হইল অপার । ঘরে প্রবেশিতে চিত্ত নছিল আমার ॥ কামপাল কামদের বাহুক প্রভূতি । ডাকিলাম সবারে রাখিতে দ্বারাবতী ॥ হইলাম কিছু সৈন্য লইয়া বাহির । শাল্ব সহ যুদ্ধে যাই সিন্ধুনদ তাঁর ॥ তথা শুনিলাম শাল্প আছে সিন্ধুমাঝে । হুইলাম সিন্ধুমাঝে প্রবিষ্ট সে সাজে ॥ *{ঞ্চজন্য শঙ্খ শব্দ শুনিয়া আমার । হাসিয়া ভাকিয় বলে শাল্ব তুরাচার ॥ তোমারে দেখিতে গেনু দ্বারকা নগরে । না দেখিলু তোমারে তাইকু নিজ ঘরে ॥ ভাগ্য মোর আপনি আইলা মম পুরে । পাঠাইব এখনি তোমারে যমঘরে ॥ এত বলি এড়িলেক লক্ষ লক্ষ বাণ । গল; চক্র শেল শূল অস্ত্র খরসান ॥ আমি সব কাটিলাম চোখ চোখ শরে । মায়ায় উঠিল শাল্ব আকাশ উপরে ॥ আকাশে উঠিয়৷ শাল্ব বহু মায়া কৈল । দিবা রাত্রি নাহি জ্ঞান অন্ধকার হৈল ॥ কোটি কোটি বাণ ধে এড়িল দুষ্টমতি । না দেখি রথের ঘোড়া রখের সারথি ॥ BBBBBBBBB BBBBBBBBBBBuBBBBBi শৈল স্বগ্রীবাদি অশ্ব হইল অচল। T ডাকিল দারুক মোরে হইয়া বিহবল ৷ শক্তিহীন সৰ্ব্বাঙ্গে বহিছে রক্তধার । চিন্তান্তর হয় দুঃখ দেখিয়া তাহার ॥ হেনকালে দ্বারক নিবাসী একজন । সম্মুখে আসিয়া বলে করিয়া ক্ৰন্দন ॥ কিবা কর বাস্থদেব চল শীঘ্ৰগতি । ক্ষণমাত্র রহিলে মজিবে দ্বারাবতী । শাল্ব রাজা আসিয়াছে দ্বারকানগরে । যুদ্ধ করি মারিলেক তোমার বাপেরে । শীঘ্ৰ করি উগ্রসেন দিল পাঠাইয়া । মজিল দ্বারকাপুর রক্ষা কর গিয়া ॥ এত শুনি চিত্তে বড় হইল বিস্ময় । পিতৃশোকে তাপ বড় জন্মিল হৃদয় । বলভদ্র প্রত্যুহ্ম সাত্যকি আদি করি । মহাবীরগণ সব রক্ষা করে পুরী ॥ এ সব থাকিতে বাসুদেবেরে মারিল । সবাই মরিল হেন সত্য জানা গেল ৷ এ তিন থাকিতে যদি দেবরাজ আসে । না হয় তাহার শক্তি দ্বারক প্রবেশে । মায়াতে সকলি হেন জানিলাম মনে । করিলাম পুনঃ বুদ্ধারম্ভ শাল্ব সনে ॥ আচম্বিতে দেখি শাল্ব সৌভপুরী হৈতে । কেশপাশমুক্ত পিতা পড়িল ভূমিতে ॥ চতুদিকে দৈত্যগণ করয়ে প্রহর । দেখিয় আমরা সব করি হাহাকার । দেখিয়া এ সব ক্রিয়া ব্যাকুল হইয় । জ্ঞানচক্ষে চাহিলাম বিস্ময় মানিয়া ॥ শেষে জানা গেল সব অম্বরের মায়া । না জানি কোথায় শাল্ব আছে লুকাইয় । তবে কতক্ষণে শবদ শুনি আচম্বিতে । মার মার বলিয়৷ ডাকয়ে পূর্ববভিতে ॥ এড়িলাম শব্দ অনুসারে শব্দভেদি । যতেক মায়াবী দৈত্য ফেলিলাম ছেদি ॥ খণ্ড খণ্ড হুইয়া পড়িল সিন্ধুজলে । কুম্ভীর মকর দৈত্য ধরি সব গিলে ।