পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


రిఫెe বামাঙ্কে জানকীং চাস্য সংশ্লিষ্টাং বামপাণিনা। শুন'ধৰ্ম্ম মহীপাল অপূৰ্ব্ব কথন । ভদ্রোবতী কন্যা ল’য়ে শুন বিবরণ ॥ ভোজনেতে বসি বাহুদেব মহীপাল । নিকটে আইল ভদ্র হাতে স্বর্ণখাল ॥ রাণীজ্ঞানে করিলেন রাজ পরিহাস । কান্দিয় কহিল ভদ্র। জননীর পাশ ॥ শুনি রাণী ক্রোধচিত্তে করেন গমন । ভৎসিয়া নৃপতি প্রতি কহেন বচন ॥ গুহে মহারাজ তুমি রাজমদে মজি । সকলি করিলে মন্ট ধৰ্ম্মপথ ত্যজি ॥ পরকালুবন্ধু ধৰ্ম্ম তাহে করি হেলা । }বষয়ে হইলে মত্ত রাজভোগে ভোল ॥ জান না যে মহারাজ আছিয়ে শমন । fক বোল বলিবে কালে ন। ভগব এখন ॥ এমন কুকৰ্ম্ম রাজ কেহ না আচরে । আপনার তনয়ারে পরিহাস করে ॥ স্পোত্ৰ আনিয়া যদি কন্যা কর দান । চিরদিন স্বৰ্গভোগ বৈকুণ্ঠেতে স্থান ॥ ইহ না করিয়া তীরে কর পরিহাস । ধিক্ ধিক্ রাজা তব জীবনে কি আশ ॥ এমত শুনিয়া রাজ রাণীর বচন । লাজত হইয়। রাজা কহিছে তখন ॥ ওহে মহাদেবি শুন আমার বচন । মিথ্যাবাদে তুমি মোরে করহ লাঞ্ছন ॥ এত বড় যোগ্য কন্যা আছে মোর ঘরে । এতদিন মহাদেবি ন; কহ আমারে il আমি ধৰ্ম্ম হেল। নাহি করি যে, কথন । জানেন আমার মন সেই নারায়ণ | আজি আমি করিব কন্যার স্বয়ম্বর ! এত বলি বাহিরে চলিল নৃপবর ॥ ডাকাইয়৷ পাত্র মন্ত্রী আনিল সকল । পবারে কহিল আমন্ত্রহ ভূমণ্ডল ॥ ইচছাবরী হইবেক আমার নন্দিনী । অনিন্দিত হৈল সবে এই কথা শুনি ॥ আজ্ঞ পেয়ে নিমন্ত্রণ করিল সবার । যতদূর পাইলেক মনুষ্য সঞ্চার ॥ হেনকালে শূন্যবাণী হইল তখন ॥ নিমন্ত্রণ পাইয়। যতেক রাজগণ । বাহুদেব রাজ্যে সব করিল গমন ॥ নিরবধি আসে রাজা কত লব নাম } কলিঙ্গ তৈলঙ্গ আর সৌরাষ্ট্র সুধাম ॥ চতুরঙ্গ দলেতে আইল নৃপগণ । উপযুক্ত বাস দিল করি নিরূপণ ॥ স্বস্থির হইল সবে পেয়ে রম্যস্থান । ভক্ষ্য ভোজ্য যত দিল নাহি পরিমাণ । কেবা খায় কেব। লয় কেব। দেয় তানি থা ও খাঁ ও লও লও এই মাত্র শুনি | আড়ে দাৰ্ঘে দশক্রোশ পুরা পরিমাণ । প্রতি মঞ্চে প্রতি রাজ করে অধিষ্ঠান সবাকারে বিধিমতে পূজিল রাজন ; ভাসিলেন আনন্দ-সাগরে নৃপগণ ॥ নানা কথ। আলাপনে বৈসে সৰ্ব্বজন অধিবাস হেতু রাজা করিল গমন ॥ অগ্নি পূজি গেল রাজা সভায় তখন ; মালিনীর মুখে শুনে শ্ৰীবৎস রাজন ; শুনিয়া দেখিব বলি বাঞ্ছ। কৈল মনে রাজকন্য; ইচছবির হইবে কেমনে ॥ সমভাব হ'য়ে বসে সাত রাজগণ । কদম্ব তরুর মূলে শ্ৰীবৎস রাজন ॥ মনোযোগ কর রাজ; ধম্মের নন্দন : বিধির নির্ববন্ধ কভু কে করে গগুন । হাতে চন্দনের পত্র মালার সহিত । সভামধ্যে ভদ্রাবতী হৈল উপনীত । ভদ্রার রূপের কথা বর্ণন না যায় । তিলোত্তম ইন্দ্রাণী তাঁহার তুল্য নয় : লক্ষী তাংশে জন্মি ভদ্র। আইলা অবন রাজার ঋণেতে মুক্তি বাঞ্ছি নারায়ণী । সভামধ্যে আসি ভদ্র কৈল নিবেদন । এ সভাতে দেব দ্বিজ আছ যতজন } জানিবেন সকলে আমার নমস্কার । আজ্ঞ কর তামি পাই পতি আপনার এত বলি চতুদিকে করে নিরীক্ষণ । [ यशडिीब्रत्ङ །--བ བབ།-༤༥