পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বনপৰ্ব্ব । ] উৰ্ব্বশীরে পাঠাইবে অৰ্জ্জুনের স্থানে । g রীড়া আদি যত করাও অর্জনে ॥ কন্দ্র পেয়ে চিত্ৰসেন পার্থে ল’য়ে গেল । দিব্য মনোহর স্থল রহিবারে দিল ॥ বচিত্র উত্তম শয্যা রত্বের আসন । রচর্য্যা হেতু নিয়াজিল বহুজম ॥ ব চত্রসেন গেল উৰ্ব্বশীর স্থান । দ্বভূমের গুণ কহে করিয়া বাখান ॥ ৰূপে গুণে বুদ্ধিবলে কৰ্ম্মে জপ তপে । অঙ্গুনের তুল্য নাহি বিশ্বে কোনরূপে ॥ s'র তৃপ্তি হেতু আজ্ঞা কৈল পুরন্দর। মজি নিশি উৰ্ব্বশী তাহার সেবা কর ॥ উৰ্ব্বশ বলেন আমি ভালমতে জগনি । ক‘মেতে কাতর অঙ্গ তার কথা শুনি ॥ আপনার গৃহে তুমি যাও মহাশয় । তামি চলিলাম যথা ধনঞ্জয় ॥ লেন করি উৰ্ব্বশী পরিল দিব্যবাস । 'প'রছাত মালোতে বান্ধিল কেশপাশ ॥ ১লন বস্তুর অঙ্গে করিল লেপন । অলঙ্কার অঙ্গে করিল ভূষণ ॥ রূপতে মুনিজন-মন মোহে । গণ সঙ্গে হরে প্রাণ যার পানে চাহে ॥ *** স্তকেশা প্রায় কাল অৰ্দ্ধমিশি। স্থনের আলয়েতে চলিল উৰ্ব্বশী ॥ রিপলি জানাইল অৰ্জ্জুন গোচরে । উ*” ছপসরা আসি রহিয়াছে দ্বারে ॥ ত ইষ্টলেন শুনি কুন্তীর নন্দন । "ক’লৈ উৰ্ব্বশী আইল কি কারণ ॥ ঠ গলেন তবে ইন্দ্রের কুমার। *"রে বিনয়ে করেন নমস্কার ॥ • মির মনিয়া মনে উৰ্ব্বশী চাহিল । সম পুরিল নাহি হৃদয় জ্বলিল ॥ চিত্রনেন যে বলিল ইন্দ্র-অনুমতি । 覽 একে সব কথা কহে পার্থ প্রতি ॥ ট্রর আজ্ঞায় আমি আইনু হেথায় ।

  • নিশি ক্রীড়া কর লইয়া জামায় ॥

ബ് . Z so, ..

۰یر স্বাবেশস্মেরবদনাং স্ত্র্যলঙ্কারবিভূষিতাং । HIV শুনিয়া অৰ্জ্জুন বীর কর্ণে হাত দিয়া । অধোমুখে মলিন কহেন শিহরিয়া ॥ শুনিবার যোগ্য নহে তোমার এ বাণী । কেন হেন দুষ্ট কথা কহ ঠাকুরাণী ॥ বারাঙ্গনা হও তুমি না হও প্রমাণ । উৰ্ব্বশী আমার পক্ষে জননী সমান ॥ কহিলে যে তুমি মোরে চাহিলা সভায় । যেই হেতু চাহি আমি কহিব তোমায় ॥ পূৰ্ব্বে মুনিগণ মুখে ইহা শ্রত ছিল । তোমার উদরে পুরুবংশ বৃদ্ধি হৈল ॥ এই হেতু বড়ই বিস্ময় মানি মনে । পুনঃ পুনঃ চাছিলাম তাহার কারণে ॥ পূৰ্ব্ব পিতামহা তুমি মম গুরুজন । হেন অসম্ভব কথা কহ কি কারণ ॥ উৰ্ব্বশী বলিল আমি নহি যে কাহার । স্ব-ইচ্ছায় যথা তথা করি মে বিহার ॥ অকারণে গুরু বলি পাতিলে সম্বন্ধ । রমহ আমার সঙ্গে দূর কর দ্বন্দ্ব,॥ যত সব মহারাজা হৈল পুরুবংশে । তপ পুণ্যফলে সবে স্বগেতে চাইলে । ক্রীড়ারস করে সবে সহিত আমার । এ সব বচন কেহ না করে বিচার ॥ তুমি কেন হেন কথা কহ ধনঞ্জয় । করছ আমার প্রাতি,খণ্ড ও খ্রিস্তায় । অৰ্জুম কহেন মম তুমি ঠাকুরাণী । গুরুবং পরমগুরু কুলের তুলনা ৷ ঘথা কুন্তা যথা মাদ্রা নপ। শচীন্দ্রাণী । ইহা সব হৈতে তোম। গরিষ্ঠেতে গণি ॥ নিজ গৃছে যা ও মাত করি নে প্রণাম । পুত্ৰবৎ জ্ঞান সাম, কর অবিশ্রাম ॥ শুনিয়া উৰ্ব্বশী-মনে ড•:ক্রিল তাপ । ক্রোধমুখে অর্জনেরে দিল অভিশাপ ॥ তব পিতৃ আজ্ঞায় আসিয়া তব গৃহে । নিস্থল ফিরিয়া যাই প্রাণে নাহি সহে ॥ না করিলা কাম পূর্ণ পুরুষের কাজ । এই দোষে নপুংসক হও স্ত্রীর মাঝ ॥