পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/২৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


WXSW2 রক্তকঙ্কণ পাণিঞ্চ রক্তমূলুরশোভিতাং । [ মহাভারত দময়ন্তীর কোপে ব্যাধ ভস্ম । কতক্ষণে দময়ন্তী নিদ্রা অবশেষে । নিদ্রাভঙ্গে দেখিলেন স্বামী নাহি পাশে ॥ তা হইয়া ভৈমী ভূমিতলে পড়ি । ধূলায় ধুসর হইয়া যায় গড়াগড়ি ॥ উঠিয়া সঘনে চতুৰ্দ্দিকে ধায় রড়ে । নাথ নাথ বলি উচ্চৈঃস্বরে ডাক পাড়ে ॥ অনাথ ডাকিছে, কেন না দেহ উত্তর । কোন দিকে গেলে প্রভু নিষধ ঈশ্বর ॥ কোন দোসে দোষী অামি নহি তব পায় । তবে কেন আমারে ত্যজিল মহাশয় ॥ ধাৰ্ম্মিক বলিয়া তোমা কহে সৰ্ব্বলোকে । তবে কেন নিদ্রিত ছাড়িয়া গেলে মোকে ॥ লোকপাল মধ্যে পূৰ্ব্বে সত্য কৈলে প্রভু । শরীর থাকিতে তোম। না ছাড়িব কভু ॥ সত্যবাদী হয়ে সত্য ছাড় কি কারণ। লুকাইয়া আছ কোথা দেহ দরশন ॥ দুঃখ-সিন্ধু মধ্যে প্রভু কেন দেহ দুঃখ । অতি শীঘ্র এস নাথ দেখি তব মুখ ॥ ক্ষুধাৰ্ত্ত ফলের হেতু গিয়াছ কি বনে । তৃষ্ণাৰ্ত্ত হইয়া কিবা গেলে জলপানে ॥ এত বলি বনে বনে ভৈমী পর্য্যটিয়া । ক্ষণে উঠে ক্ষণে বৈসে ক্ষণে যায় ধাইয় ॥ ব্যাঘ্ৰ সিংহ মহিষ শূকর যত ছিল । লক্ষ লক্ষ চতুৰ্দ্দিকে তাহার বেড়িল । স্বামী অম্বেষিয়া ভৈলা বনে বনে ভ্ৰমে । অকস্মাৎ সম্মুখেতে দেখে ভুজঙ্গমে u . বিকট দশন তার বিকট গর্জন । ভৈমীরে দেখিয়া আহি বিস্তারে বদন ॥ বিপরীত মূৰ্ত্তি অছি দেখিয় নিকটে । হ নাথ বলিয়৷ ডাকে পড়িয় সঙ্কটে ॥ আর না লেখিব প্রভু তোমার বদন । নিশ্চয় হইনু কালপপের ভক্ষণ ॥ উচ্চৈঃস্বরে কান্দে দেবী করি আর্তনাদ । দুরেতে থাকিয় তাহ শুনে এক ব্যাধ ॥ শীঘ্ৰগতি আসে ব্যাধ দেখি অজগর । ──=། ༤ দুইখান করিল মারিয়া তীক্ষ্ণশর ॥ সৰ্প মারি মৃগজীবী বৈদর্ভারে পুছে । কে তুমি একাকী ভ্রম এ কানন মাঝে । সম্পূর্ণ চন্দ্রমা-মুখ পন-পয়োধর । বচন অমৃতে ব্যাধে বিন্ধে খরশর ॥ কামাতুর হৈয়া যায় ভৈমী ধরিবারে । ব্যাধেরে দেখিয়া ভৈমী কহিল অন্তরে । সত্যশীল নল রাজ যদি মোর পতি । নল বিনা অন্যে যদি নাছি থাকে মন্তি । এ পাপিষ্ঠ পরশিতে না পারে আমায় : এখনি হউক ভস্মরাশি চুরাশয় ॥ এতেক বলিতে ব্যাধ ভস্ম হৈয়া গেল । স্বামীর উদেশে সতী বৈদভী চলিল ॥ wময় স্তীর পাত অন্বেষণ ও সুবাহু নগ: সৈরিষ্ক, বেশে স্থিতি । মহাঘোর বনে গিয়া করিল প্রবেশ । নানাজাতি পশু তথা দেখয়ে বিশেষ ॥ সিংহ কোল ব্যাঘ্ৰ দ্বিপ খড়গী কৃষ্ণসার মৃগ মৃগী দেগে আর মহিষ মার্জার । শল্পকী নকুল গোধ মুষিক বানর। নানাজাতি গগনে পরশে তরুবর ॥ শাল তাল পিয়াল যে অৰ্জ্জুন চন্দন । শিমূল খর্জুর জাম কদম্ব কাঞ্চন ॥ খদির পাণ্ডবী পিচুমদ কোবিদার । শকট কপিথ যে অশ্বথ বট আর ; নোয়াড়ী বদরী বিঞ্চি বহেড়া পর্কটি । অশোক চম্পক কেন্দু তিড়িম্বীক ঝাটি বাপী সর তড়াগ সিন্ধুর সম নদী । নানা ঋতু রম্যস্থান বহু রত্বনিধি ॥ যত যত দেখে ভৈমী অন্যে নাহি মন । স্বামী অন্বেষণে ভ্ৰমে গহন কানন । , যারে দৃষ্টি করে ভৈমী জিজ্ঞাসে তাহ:ে দেখিয়াছ মম প্রভু গেল কোথাকারে ।