পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৩৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিয়া চরের মুখে এতেক বচন । ” किन्छे छांकिग्नां }शठा भांटनन अन्नन ॥ নাশ কালেতে বুদ্ধি বিপরীত হয়। গণে আদেশিয়া পুত্রকে আনায় ।

  1. বৃসিংহ অবতার ও হিরণ্যকশিপু নিধন ।

নিকটে আনিয়া রাজা আপন সন্ততি । ধুর বচনে কহে প্ৰহলাদের প্রতি ॥ rহ পুত্র বিস্ময় হইল মম মনে । তেক বিপদে তোরে রাখে কোন জনে ॥ শশু বলে সৰ্ব্বভূতে যেই নারায়ণ । ঙ্কিট হইতে ভক্তে তারে সেইজন ৷ যেন থাকিতে পিতা ন হইও অন্ধ। তামায় কৰিমু ঘুচাইয়া মন ধন্ধ ॥ একান্ত হইয়া ভজ সেই কৃষ্ণপদ । ষ্টি না করিও পিতা এ স্থখ সম্পদ ॥ ত অস্ত্র প্রহার করিল দৈত্যগণে । স্তিদস্ত ঠেকিয়া ভাঙ্গিল ততক্ষণে ॥ }তল হইল অগ্নি দেখিলে পরীক্ষা । Hড়িলু-পৰ্ব্বত হৈতে তাহে পাই রক্ষা । হামত্ত মল্পগণ হৈল হীনদর্প। মার জান বিষ হীন হ’ল কালসৰ্প ॥ Hমাদে পাইলু রক্ষ যজ্ঞের অনলে। . মুদ্রে ফেলিল। তবে শিলা বান্ধি গলে ॥ " লৎ দেখিলা তৰে ভাসিল পাষাণ । খাচ নাছিক দূর তোমার অজ্ঞান ॥ হেন বৈভব স্থখ সম্পদ তোমার। iয় ক্রোধে নিমিষেতে হবে ছারখার ॥ ক্ত শুনি দৈত্যপতি কহিল পুত্রেয়ে । কথা আছে তোর বিষ্ণু কোন রূপ ধরে ॥ মণ্ড বলে আছে প্রতু সবার অন্তর। নিজ হাল্পগুণ বেদে অগোচর। #াক্ষ পৰ্য্যস্ত কীট সকল সংসার। . . সংসার বাছির পুত্র এই স্তম্ভ নয় ॥ . ইতিমধ্যে বিষ্ণু যদি থাকিবে সৰ্ব্বথা । তবে সত্য জানিব তোমার সর্বব কথা ॥১ প্ৰহলাদ কহিল মম শুন নিবেদন । যত জীব তত শিবরূপ নারায়ণ ॥ স্তম্ভমধ্যে অবশ্য আছেন মম প্ৰভু । অন্যথা আমার বাক্য ন জানিবা কভু ॥ শুমিয়া পুত্রের মুখে এতেক ভারতী । নির্ণয় জানিতে তবে দৈত্যকুলপতি ॥ হাতে খড়গ ল’য়ে উঠে করি মহাদম্ভ । মধ্যস্থানে হানিলেন স্ফটিকের স্তম্ভ ॥ সেরকের বাক্য আর রাখিতে সংসার । স্তম্ভমধ্যে আসিয়া ধরেন অবতার ॥ পূৰ্ব্বেতে ব্ৰহ্মার স্তবে জিনি নারায়ণ । | মনুষ্য শরীর আর সিংহের বদল । স্তম্ভ কাটি নিরখিয়াৰদখে দৈত্যপতি । দেখিল অনন্ত সূক্ষ অনন্ত-আকৃতি ॥ স্বন্দর সিংহের মুখে মনুষ্য-শরীর । মুহুর্তেকে স্তম্ভ হৈতে হইল বাহির । ক্রমে ক্রমে বাড়িলেক প্রভাতের ভার্ম । নরসিংহ বিস্তার করেন নিজ তনু দেখিয়া বিরাটমুৰ্ত্তি রূপে দৈত্যঘট । ব্ৰহ্মাণ্ড ভেদিল গিয়া দিব্য সিংহজটা ॥ গভীর গৰ্জ্জিয়া মুখে অট্ট অট্ট হাস । শব্দ শুনি ত্ৰৈলোক্যমণ্ডলে হৈল ব্রাস ॥ এমত প্রকারে রাক্তা দেব নরহরি । , মহাক্রোধে হিরণ্যকশিপু দৈত্য ধরি ॥ উরুমধ্যে রাখি তারে বিদারিলা বুক । মারেন দুরন্ত দৈত্য দেবের কৌতুক ॥ মহামুৰ্ত্তি দেখিয়া ভয়ার্ভ দেবগণ । নির্ভয় প্ৰহলাদ মাত্র করিল স্তবন ॥ কৃপা কর কৃপাসিন্ধু অনাথের নাথ। . ত্ৰৈলোক্য কঁাপিল শব্দ শুনির নির্বাত । বিশেষ বিরাটমুক্তি দেখিয়া তোমার। স্বয়াহুর মুছিত মনুষ্য কোন জায় । ।