পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৩৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 > ど শ্ৰীবৎসাঙ্কমুদার কৌস্তুভধরং বন্দেমুণীন্দ্রৈঃস্তুতং ॥ [गशडाब्रङ । রজনাতে দশরথ গেল তার স্থানে । দেখিল কৈকেয়ী রাণী মহা অভিমানে ॥ অনেক সাধিতে রাজ শেষে কহে বাণী । পাশরিলা মহারাজ পূর্বের্বর কাহিনী ॥ দুই বর দিতে মোর কৈলে অঙ্গীকার । সেই বর দিয়া আজি সত্য হও পার ॥ রাজা বলে প্রাণপ্রিয়ে এই কোন দায় । অবিলম্বে বর লহ দিব সৰ্ব্বদায় ॥ কৈকেয়ী বলিল নাথ এই এক বর । ভরতেরে করিব রাজ্যের দণ্ডধর ॥ দ্বিতায় করহ পূর্ণ এই অভিলাষ । চতুর্দশ বৎসর রামের বনবাস ॥ শুনিয়া এতেক রাজা কৈকেয়ীর বাণী ।” মূচ্ছিত হইয়। শোকে পড়িল ধরণী ॥ চৈতন্য পাইয়। রাজ উঠি ততক্ষণে । কৈকেয়ীরে গালি দিল অতি দুঃখ মনে ॥ তবে রাম শুনিয়া এ সব সমাচার। পালিতে পিতার সত্য করি অঙ্গীকার ॥ তথা ন পাইয়া কিছু পিতার উত্তর । বিদায় হইতে যান মায়ের গোচর ॥ শ্রীরামের বনবাস শুনি এই বাণী । শোকাকুল অজ্ঞান হইয়া কান্দে রাণী ॥ বন্ধবপ বিলাপ করিয়া কৈল মান । মধুর বচনে রাম করিল সান্তন ॥ পিতৃসত্য পালিবারে চলিলেন বন । সংহতি চলিল সীতা অনুজ লক্ষণ ॥ দশরথের মৃত্যু ঐরামের পঞ্চবটীতে অবস্থিতি । দশরথ শুনি তবে রামের প্রস্থান । হা রাম বলিয়। তবে ত্যজিল পরাণ ॥ পূর্বের্বতে আছিল অন্ধ মুনির এ শাপ । পুত্ৰশোকে মরিব পাইবা মনস্তাপ ॥ হেনমতে ভূপতির হইল নিধন । অযোধ্যার ঘরে ঘরে উঠিল রোদন ॥ বিচার করিয়া পাত্রমিত্ৰগণ যত । দুত পাঠাইয়া দেশে আনিল ভরত ॥ ভরত শুনিল আসি সব সমাচার। জননীরে নিন্দিয়া করিল তিরস্কার ॥ রাজার সৎকার করে পত্রিমিত্ৰগণে । ভরতেরে বসিতে কহিল সিংহাসনে ॥ ভরত কহিল সবে হৈলে হতজ্ঞান । সে কারণে বলহ অজ্ঞানমত কেন ৷ পিতৃদত্য হেতু প্ৰভু চলিলেন বনে । আমি রাজ্যে ভূপতি হইব সিংহাসনে ॥ এমন অনাতি কৰ্ম্ম করে কোন লোকে । ঈশ্বর থাকিতে রাজ সম্ভবে সেবকে ॥ বিশেষ মায়ের কৰ্ম্ম শুনিতে দুষ্কর । চল সবে যাই অগ্রে শ্রীরাম-গোচর ॥ মাগিয়া মায়ের দোষ প্রভুর চরণে । যত্নে ফিরাইব সবে কমললোচনে ।

যেমন করিয়া বেশ রাম যান বন ।

সেইমত বন্ধ পরি ভাই দুইজন ॥ শিরে জটাভার ধরি তপস্বীর বেশ । চিত্ৰকূট পৰ্ব্বতেতে পাইল উদ্দেশ ॥ সন্টাঙ্গ লোটায়ে ক্ষিতি পড়িয় চরণে । করযোড়ে কহিলেন রাম বিদ্যমানে ॥ আজন্ম আমার মন জানহ গোসাঞি | তোমার চরণ বিনা অন্য গতি নাই ॥ চল রাম ভূপতি হইবে সিংহাসনে । শূন্যরাজ্য বিলম্ব ন সহে সে কারণে ॥ তোমার বনযাত্রা শুনিয়া লোকমুথে । প্রাণ ত্যজিলেন রাজ। সেই মনোত্নঃখে ॥ তবে রাম শুনিয়া সকল সমাচার । পিতৃশোকে কান্দিলেন পেয়ে শোকভার ॥ উচ্চৈঃস্বরে কান্দেন বলিয়া বাপ বাপ । তাহা দেখি সৰ্ববজন করিল সন্তাপ ॥ ভরতের চরিত্রে সন্তুষ্ট রঘুনাথ । অলিঙ্গন করি অঙ্গে বুলায়েন হাত ॥ জননীর কিবা দোষ দৈবের ঘটন। দেশে গেলে পিতৃসত্য হইবে লঙ্ঘন ॥ চতুর্দশ বৎসর থাকিব আমি বনে । ততদিন রাজা হৈয়। বৈস সিংহাসনে ॥