পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৩৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বনপৰ্ব্ব । ] ভরত কহিল এই শোভা নাছি পায় । কিমতে পঞ্চাস্ত ভার জম্বুকে কুলায় ॥ তবে দদি পিতৃবাক্য করিতে পালন । চতুদশ বৎসর নিবাস কর বন । পদুকাযুগল তবে দাও রঘুপতি । নতুবা রহিব আমি তোমার সংহতি ॥ =রতের ব্যবহারে কমললোচন । কৃষ্ট হৈয়া পুনশ্চ করিল আলিঙ্গন ॥ পাদুক; দিলেন রাম বুঝি মনোরথ । মাথায় করিয়া হখে চলিল ভরত ॥ দেশে আসি পাদুকা রাখিল সিংহাসনে । চতুর্দিক বেড়িয়া বসিল সৰ্ব্বজনে ॥ সাবধানে রাত্রি দিনে পালে রাজধৰ্ম্ম । ইহ বিন ভরতের নাহি অন্য কৰ্ম্ম ॥ শ্রীরাম লক্ষণ চিত্রকূট গিরিবরে । ! করিলেন পিতৃশ্ৰাদ্ধ ত্ৰিদশ বাসরে । লক্ষণ কহিল প্রভু চল হেথা হৈতে । পুনর্বার ভরত আসিবে তোমা লৈতে ॥ এইমত বিচার করিয়া তিন জনে । তক্ষণে যান আগস্ত্যের তপোবনে ॥ কারণ জানিয়া মুনি পরম আদরে । শ্রীরাম লক্ষণে নিল আপনার ঘরে ॥ দিনেক বঞ্চিয়| তথা মাগেন বিদায় । জিজ্ঞাসেন কহ মুনি বঞ্চিব কোথায় ॥ জানিয়া ভবিষ্য কথা কহে তপোধন। আশ্রম করছ মুখে পঞ্চবটী বন ॥ শুনিয়া গেলেন রাম আনন্দিত মন । সন্ধিত জানকী আর অনুজ লক্ষণ ॥ বহুদিন রছিলেন পঞ্চবটী বনে । একদিন শুন তথা দৈবের ঘটনে ॥ ইপনস নামেতে রাবণ সহোদরা । বচ্ছন্দগমনে ফিরে অত্যন্ত মুখরা ! ১ঃদশ সহস্ৰ সংহতি নিশাচর। পর ও দুষণ সঙ্গে দুই সহোদর ॥ ইৰ হৈতে দেখি দেহে দিব্যরূপ ধরি । । গমে হতচিত্ত হৈয়া দুষ্ট মিশাচরী ॥ f লক্ষী নারায়ণের ধ্যান—ও বিদ্যুচ্চন্দ্রনিভং— l i չՀ ծ Գ সীতার সমান রূপ ধরিয় রাক্ষসী । সবিনয়ে কহেন রামের কাছে আসি ॥ নিবেদন করি আমি দেবের দুহিত । ভজিব তোমারে আজ্ঞা করহ সৰ্ব্বথা ॥ শ্রীরাম কহেন তুমি ভজ অন্য জনে । সঙ্গেতে আমার নারী দেখু বিদ্যমানে ॥ এত শুনি লক্ষণেরে কহিল রাক্ষসী । লক্ষণ কহিল আমি আজন্ম তপস্বী ॥ তবে সূৰ্পনখা অতিশয় দুঃখমনে । কাৰ্য্যসিদ্ধি না হইল সীতার কারণে ॥ ইহারে থাইলে দুঃখ খণ্ডিবে আমার । এত বলি ধায় মুখ করিয়া বিস্তুর ॥ . দেখিরা লক্ষণ ক্রোপে যুড়িলেন বাণ । i ! | | দিব্যঅস্ত্রে রাক্ষসীর কাটে নাক কাণ ॥ কান্দিয় রাক্ষসী খর দূষণেরে কয় । দোহে আসি যুদ্ধ করে ক্রোধে অতিশয় । দেখিয়া উঠেন রাম অতি ক্রোধমনে । মুহূর্তেকে সংহারিল নিশাচরগণে ॥ তাহা দেখি সূৰ্পণখা ধায় অতি বেগে । কান্দিয়া কহিল গিয় রাবনের আগে ॥ শুন ভাই বলি দশরথের নন্দন । ভাৰ্য্যাসহ এল বনে শ্রীরাম লক্ষণ ॥ চতুর্দশ সহস্র রাক্ষস মারে বাণে । নাক কাণ কjটে সম হ র খরশানে ॥ যতেক কমিনী স্থাছে এই সভ্য ক্ষিতি । সবার হইতে সেই মৃত রূপবতী ॥ দেপিয স্তীনন্দ বড় হৈল দম মনে । ত্যানিতে কারণু ই স্থ; : :f}র কারণে ॥ তfহাতে ক্ষে গতি সম <ল মহাশয় । বুলিযে কলহ কৰ্য্যৈ উঃ পূঃ যে হয় ॥ অনুক্ষণ রক্ষণ করে দুই মহাবীর । হরিয়া অভ্যানিতে সীত: স:ম কর স্থির ॥ শুনিয়া রাবণ হৈল ক্রাধেতে গজ্ঞান । বিশেষ শুনিয়া ভগিনীর অপমান ॥ সাতার রূপের কথা ভেদিল অন্তরে । কাছে ডাকি কহিল মার্চ নিশাচরে ॥