পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৪৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিরাটপৰ্ব্ব । ] সপাকল্পং ত্রিনেত্ৰং মণিময়বিলসৎ কিঙ্কিণীমুপুরাঢ্যং । 8ԳՏ অশ্বথাম আগে পড়ে কাটা রথ চুড়া । করিতে সংগ্রাম হইল রথ মুড়া ॥ Afজত হইয়া শেষে দ্রোণের নন্দন । অৰ্জ্জুন উপরে করে বাণ বরিষণ ॥ প্রলয়ের মেঘ যেন মুঘলের ধারে । সেইমত অস্ত্রবৃষ্টি করে পার্থোপরে ॥ aবানিশি নাহি জ্ঞান অস্ত্রে আচ্ছাদিল । * কুক্‌ অন্যের কার্য্য পবন রুধিল ৷ ,"ত্থামা-অৰ্জ্জুনের যুদ্ধ অনুপম । যম ইন্দ্র বৃত্ৰাহর রাবণ-শ্রীরাম ॥ বে যেন সংগ্রাম হইল সুরাহর । সাধার ধনুক ঘোষে কম্পে তিনপুর ॥ কঁকে অস্ত্রবৃষ্টি নাহি লেখা জোখা । অস্ত্র বিন রণমধ্যে অন্তে নাহি দেখা ৷ 93 ১ট শব্দে যেন কর্ণে লাগে তালি । tলঙ্গ, অস্ত্র দোহে কাটে দোহে মহাবলী ॥ iধচত্র চালায় রথ উত্তর সারথি । চক্ৰবৎ ভ্রমে যেন বায়ুসম গতি ॥ থানের ছিদ্র দ্ৰৌণী ভাবিয়া অন্তরে । গাণ্ডব ধনুক চাহে কাটিবার তরে ॥ হচ্ছেদ্য অভেদ্য ধনু দেবের নিৰ্ম্মাণ । :ক করতে পারে তাহা মনুষ্য-পরাণ ॥ মইক্রোধে অশ্বথামা হইয়া ক্রোধিত । *ওঁ চত্বারিংশ শর মারিল ত্বরিত ॥ ঐাধে ধনঞ্জয় করিলেন শরবৃষ্টি । এণর কালে যেন সংহারিতে স্বষ্টি ॥ কটু দক্ষহস্তে বিন্ধে কভু বিন্ধে বামে । মত শরবৃষ্টি করিলেন ক্রমে ॥ Ug: অক্ষয় ६ ठु ーリー বন্ধে তত হয় নাহি তার ক্ষয় ॥ গধত দ্রোণপুত্র অস্ত্রবৃষ্টি কৈল । 쯔 স্ট পার্থের তুর্ণ পূর্ণ অস্ত্রময়।

  • r *

"ধকার শরজালে পৃথিবী ঢাকিল ॥

  • ণ সহস্ৰ অস্ত্র মারে পুনঃ পুনঃ । বলে দ্রোণির হইল শূন্য তুণ ॥ "ধ্যে অশ্বথামা নিরস্ত্র হইল। "কি সূর্যের পুত্র ক্রোধেতে ধাইল -

বিজয় নামেতে ধনু ভৃগুপতি-দত্ত । আকর্ণ পূরিয়া এড়ে যেন গজমত্ত । হাসিয়া অৰ্জুন বীর ছাড়িল দ্রোণীরে । সম্মুখে দেখিয়া কর্ণে কহিছেন তারে ॥ ক্রোধে কন ধনঞ্জয় চক্ষু রক্তবর্ণ। হে রাধেয় মুঢ়মতি সূতপুত্র কণ ॥ অনুক্ষণ কহিস্ করিয়া অহঙ্কার । পৃথিবীতে বীর নাহি সমান আমার ॥ সে কথার পরীক্ষণ হইল পূৰ্ব্বক্ষণে । সাক্ষাতে দেখিল যত কুরুবীরগণে ॥ সভামধ্যে বসি যত কৈলা অহঙ্কার । ক্ষত্র হয়ে প্রাণে তাহা সহিবে কাহার ॥ ধৰ্ম্মপথে বন্দী যে ছিলাম লেইকালে । সকল সহিমু কষ্ট যতেক করিলে ॥ লাজ নাহি কোন মুখে এলি রণস্থল । পুনঃ রণে এলি যদি দিব তার ফল ॥ এত শুনি কহিতে লাগিল কণবীর । অবোধ নিলাজ মত নির্ভয়-শরীর ॥ দ্রোণস্থানে ইন্দ্রস্থানে যে অস্ত্ৰ পাইলি । ল’য়ে পুনঃ কর যুদ্ধ এই তোরে বলি ৷ এত শুনি হাসিয়া বলেন ধনঞ্জয় । লণ্ডজ যার থাকে সে কি হেন কথা কয় ॥ এইক্ষণে পূর্ণ নাহি হইতে প্রহর । বিদ্যমানে কাটিলাম তোর সহোদর ॥ ভঙ্গ দিয়; পলাইলি লইয়া জীবন । কোন মুখে কহ পুনঃ এ দপ বচন ॥ যাহা কহ, নহ শক্ত করিতে সে কাজ । সভামধ্যে কহিতে না বাস তুমি লাজ ॥ এত বলি অর্জুন ধনুকে যুড়ি বাণ । কণোপরি মরিলেন বজের সমান ॥ অস্ত্রে অস্ত্র নিবারিল কণ মহাবল । কুলেতে নিরক্ত যেন হয় সিন্ধুজল ॥ তবে দিব্য পঞ্চবাণ মারিল অর্জুন । ফেলিলেন কর্ণের কাটিয়া ধনুগুণি ॥ আর গুণ চড়াইল সংগ্রামে নিপুণ । কাটিয়া সকল তবে ফেলিল অৰ্জুন ॥