পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৪৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8ఫిe দেংষ্ট্রাভীমমুখীং জটালিবিলসম্মেীলীং কপালস্রজং [ মহাভারত । - যে বলিলা বিরাট অন্যথা কিছু নয়। তোমার আসন কি ইহার যোগ্য হয় । যে আসনে এ তিন ভুবন নমস্কারে। ইন্দ্র যম বরুণ শরণ লয় ডরে ॥ অখিল ঈশ্বর যেই দেব জগন্নাথ । ভূমি লুঠি যে চরণে করে প্রণিপাত ॥ সে আসনে সতত বৈসেন যেইজন। প্রথমে বলিলে তুমি আমি ব্রহ্মচারী। ভূমিতে শয়ন করি ফলমূলাহারী ॥ কোন’ কন্দ্রব্যে আমার নাছিক অভিলাষ । এখন আপন ধৰ্ম্ম করিলে প্রকাশ ॥ " অনুগ্রহ করিয়া করিমু সভাসদ । এৰে ইচ্ছা হইল লইতে রাজ্যপদ ॥ না বুঝিয়া বসিলে অবিদ্যমানে মোর । বিদ্যমানে আমার সন্ত্রম নাহি তোর ॥ আjর দেখ আশ্চর্য্য সকল সভাজনে । সৈরিন্ধীরে বসাইল আমার আসনে ॥ মোরে নাহি ভয় করে নাহি লোকলাজ । পরস্ত্রী লইয়া বৈসে রাজসভামাঝ ॥ কহ বৃহন্নলা কেন অন্তঃপুর ছাড়ি । কঙ্কের সম্মুখে দাণ্ডাইলে কর যুড়ি ॥ হে বল্লভ সুপকার তোমার কি কথা । কার বাক্যে কম্বেরে ধরিলে দগুছাত ॥ অশ্বপাল গোপালের কিবা অভিপ্রায় । এ দেশহে কঙ্কেরে কেন চামর চুলায় ॥ হে সৈরিন্ধী জানিলাম তোমার চরিত্র । গন্ধৰ্বের ভাৰ্য্য৷ তুমি পরম পবিত্র ॥ বাপের বচনেতে উত্তর ভীতমন । আখি চাপি বাপেরে করিল নিবারণ ॥ কুমারের ইঙ্গিত না বুঝিল রাজন । উত্তরে চাহিয়৷ বলে সক্রোধ বচন ॥ কহ পুত্র তোমার এ কেমন চরিত । মম পুত্র হয়ে কেন এমন অনীত ॥ কঙ্কের অগ্ৰেতে করিয়াছ যোড়হাত । মুখে স্তুতিবাক্য ঘন ঘন প্ৰণিপাত ॥ সেই দিন হৈতে তব বুদ্ধি ছেল আন। কুরু হৈতে যে দিন গোধন কৈলে হ্ৰাণ ॥ আমা হৈতে শত গুণে কঙ্কেতে ভকতি । নছিলে এ কৰ্ম্ম করে কঙ্কের শকতি ॥ পুনঃ পুন বিরাট করেন কটুত্তর । কোপেতে কম্পিত কায় বার বৃকোদর ॥ নিষেধ করেন ধৰ্ম্ম ইঙ্গিতে ভীমেরে । সিরা অর্জন বীর কছিছেন ধীরে ॥ কিমতে র্তাহার যোগ্য হয় এ আসন | বৃষ্ণি ভোজ অন্ধক কৌরব আদি করি । সপ্তবংশ সহ র্যার খাটেন ঐহরি ॥ পৃথিবীতে যত বৈসে রাজ-রাজ্যেশ্বর ! ভয়েতে শরণ লয় দিয়া রাজকর ॥ দানেতে দরিদ্র না রহিল পৃথিবীতে । নির্ভয় ও স্বর্থী প্রজা যার পালনেতে ॥ যত অন্ধ অথৰ্ব্ব অকৃতি অভাজন । অমুক্ষণ গৃহে ভুঞ্জে নাহিক বারণ ॥ অষ্টাদশ সহস্ৰ দ্বিজ ভুঞ্জে অনুদিন । যে দ্রব্য যাহার ইচ্ছা খায় ইচ্ছাধীন | ভীমাৰ্জ্জুন পৃষ্ঠভাগ রক্ষিত র্যাহার। দুই ভিতে রামকৃষ্ণ মাদ্রীর কুমার ॥ পাশাতে যে রাজ্য দিয়া ভাই দুৰ্য্যোধলে । ভ্ৰমিলেন দ্বাদশ বৎসর তীর্থ বনে ॥ হেন রাজা যুধিষ্ঠির ধৰ্ম্ম অবতার। তোমার আসন যোগ্য হয় কি ইহার শুনিয়া বিরাট রাজা মানি চমৎকার , অর্জনেরে কহিলেন কহ আরবার ॥ ইনি যদি যুধিষ্ঠির ধৰ্ম্ম অধিকারী। কোথায় ইহার আর সহোদর চারি । কোথায় দ্রুপদকন্যা কৃষ্ণ গুণবতী । সত্য কছ বৃহন্নল এ সব ভারতী । অর্জন বলেন হের দেখ নরপতি । তব সুপকার যেই বল্লভ খেয়াতি । র্যাহার প্রহারে যক্ষ রাক্ষস কম্পিত । ব্যাস্ত্র সিংহ মল্ল আদি তোমার বিদিত । মারিল কৗচকে যেই তোমার শ্বালক । দেখ এই বৃকোদর জলন্ত পাৰক ।