পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উদ্যোগপৰ্ব্ব । ] স্বন্দরাৎ মন্দরং কান্তং নানাপুষ্প বিহারিণং। মুনির আশ্রমে আমি আছি এ কারণ I arভক বলিয়া রাণী করিলা রোদন ॥ eনিয়া সগর ক্রোধে অরুণ লোচন । জননীর ক্ৰন্দন করিয়া নিবারণ ॥ মানবিধ অস্ত্ৰ শস্ত্র সঙ্গে করি লয় । প্ৰণমিয়া জননীরে হইল বিদায় ॥ নুমরে প্রণাম করি বিদায় হইয়া । সুদ বান্ধবগণে সহায় করিয়া ॥ বর্তমান ছিল যত পিতৃ-শক্রগণ । অস্বেতে কাটিয়া সবে করিল নিধন ॥ একেশ্বর বিনাশিল যত রিপুগণ । প্রাণভয়ে কেহ নিল বশিষ্ঠ-শরণ ॥ ক’তর দেখিয়া তারে দিল প্রাণদান । কোন জন যুনিস্থানে রাখিল পরাণ ॥ তবে যুনি বশিষ্ঠ তাহারে নিবারিল । শুনোধ্যায় ল’য়ে সিংহাসনে বসাইল ॥ একচ্ছত্র রাজা হৈল ধরণীমণ্ডলে । যত ক্ষত্ৰগণেরে শাসিল বাহুবলে ॥ সপ্তান ষাট সহস্ৰ তাহার ঔরসে । অসাবধি যার কীৰ্ত্তি সংসারেতে ঘোষে ॥ বগবান পুত্র যত মত্ত দুরাচীর । ব্রহ্মণের শাপে তার হইল সংহার ॥ আইসিকে হিংসিলেই হয় এই ক্ষতি । ঈগতে অকীৰ্ত্তি রহে অশেষ দুৰ্গতি ॥ * কারণে শুন পুত্র না হও বিমন। প বের সহ দ্বন্দ্বে নাহি প্রয়োজন ॥ সমুচি ত ভাগ তার প্রাপ্য যাহা হয় । * দিয়া প্রীতি কর পাণ্ডুর তনয় ॥ ই ভাই বিরোধেতে নাহি প্রয়োজন । গৃহত কর আনাইতে পঞ্চজন ॥ ই ইন্দ্র প্রস্থে পুনঃ দেহ অধিকার । দের সহ দ্বন্দ্বে কি কাজ তোমার ॥ *#ধন বলিলেন এ নহে বিচার । মির পরম শত্রু পাণ্ডুর কুমার ॥ ণ যুদ্ধে ছাড়িয়া না দিব রাজ্যধন । *জধৰ্ম্ম শাস্ত্রমত আছে নিরূপণ ॥ TE . ra ^ To r

芝 .

மம்_ ক্ষত্ৰ হ’য়ে বৈরীকে না করিবে বিশ্বাস ॥ রিপুর মহিমা কেহ না করে প্রকাশ ॥ যে হোকু সে হোক তাত ক্রোধ কর হুমি । বিনাযুদ্ধে পাণ্ডবে না দিব রাজ্যভূমি ॥ এত বলি সভা হৈতে চলিল উঠিয়া । কর্ণ দুঃশাসন আর দুষ্ট মন্ত্রী নিয়া ॥ মহাভারতের কথা অমৃত-সমান । ব্যাস বিরচিল দিব্য ভারত-পুরাণ ॥ শুনিলে অধৰ্ম্ম খণ্ডে না কর সংশয় । পয়ার প্রবন্ধে কাশীর মা দাস কয় ! ধৃতরাষ্ট্রের প্রতি বছরের iঙ্কতোপদেশে 4 কহিলা বৈশম্পায়ন শুনহ রাজন । সভা হৈতে উঠি যদি গেল দুৰ্য্যোধন ॥ কারো বাক্য না শুনিল কুরু-অধিকারী ! অধোমুখ হইয়া রহিল দণ্ড চারি ॥ ভীষ্ম দ্রোণ কৃপ আদি যত সভ{জন । সভা হৈতে উঠিয়া চলিল সেইক্ষণ ॥ অদৃষ্ট মানিয়া সবে গেল নিজ স্থান । . বিছর বলিল ধৃতরাষ্ট্র বিদ্যমান ॥ কুলক্ষয় হেতু দুৰ্য্যোধনের বিধান । স্থম্পস্ট কথায় তাহ হইল প্রমাণ ॥ অৰ্দ্ধ রাজ্য ছাড়ি দেহ পাণ্ডুর নন্দনে । নতুবা তোমার রাজ্য রহিবে কেমনে । আপনার রাজ্য যদি বাঞ্ছ নরেশ্বর । পাণ্ডবের সহ কর সম্প্রীত মত্বর ॥ পর্বের কাহিনী কিছু কহিব তোমারে । কত কত রাজা হ’য়েছিল এ সংসারে : আছিল উত্তালপাদ ধৰ্ম্ম অবতার । সপ্তদ্বীপা পৃথিবীতে যায় অধিকার ॥ ইন্দ্রের সম্পদ তুলা র্যাহার গণন । জলবিম্ব প্রায় সব দেf:ল রাজন ॥ হিংস হেন বস্তু তার না জন্মিল মনে । সকল ছড়িয় রাজ প্রবেশিল বনে ॥ তপ যজ্ঞ আরম্ভিয় পান দিব্যগতি । র্তাহার তনয় ধ্রুব জগতে কুকুতি ॥