পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Փ ՀԵ- রাত্রে চারমসী চৰ্ম্মধরং দ্বিশত মস্তকং ॥ [ মহাভারত বাতি দিতে না রাখিব কুলে একজনে । রক্তপান করিলেন দেখিকু নয়নে T ংশ সহ সংহার করিব দুর্য্যোধনে ॥ ধবল কুঞ্জর চড়ি মান্দ্রীর নন্দনে । এত বলি করিলেন গোবিন্দ প্রস্থান । রথী দশ সহস্ৰেক ল’য়ে ধনুৰ্ব্বাণ ॥ বলিল শ্ৰীকৃষ্ণ প্রতি ভাই পঞ্চজন । ভ্ৰমিলাম বিষম সঙ্কটে কত বন ॥ তোমার প্রসাদে দুঃখ হইল মোচন । সা স্থাইবা মায়ে যেন দুঃখিত না হন ॥ শুনিয়া গোবিন্দ করিলেন তাঙ্গীকার । দ্ৰৌপদী কৃষ্ণেরে চাহি বলিছে আবার শুনহ দুঃখের কথা কমললোচন । অত্যন্ত নিষ্ঠুর শত্রু পাপ দুর্য্যোধন ॥ যত দুঃখ দিলেক সে জানহ বিশেষ । সভামধ্যে ধরিয়া আনিল মম কেশ ॥ বিবস্ত্রা করিতে ইচ্ছা কৈল দুষ্টগণ । করিয়াছ তুমি প্রভু লজ্জা নিবারণ ॥ হেন জন মুখ পুনঃ চাহ দেখিবারে । তব বাক্য কদাচ না রাখিবে পামরে ॥ তার সঙ্গে প্রীতি করি কিব৷ আছে হিত । সবংশে মারিতে তারে হয়ত উচিত ॥ তোমার অী শ্রয়ে দেব কেবা বীৰ্য্যহত । সবাই যুঝিবে কৃষ্ণ তোমার সম্মত । মম পিতা যুঝিবেন দ্রুপদ স্বধীর । ভাই আরো যুঝিবেন ধৃষ্টদ্যুম্ন বীর ॥ শিখণ্ডী করিবে যুদ্ধ মহাবলবান । পঞ্চভাই করিবেন রণ সমাধান ॥ মম পঞ্চ পুত্র গাছ সংগ্রামে স্বধীর । দ্বিতীয় বাসব তুল্য অভিমনু্য বীর ॥ ভোজবংশে মৎস্ত্যবংশে যত বীরগণ । এক এক জন যেন দ্বিতীয় শমন ॥ কৌরবেরে পরাজয় করিবে সমরে । কোন প্রয়োজনে প্রভু যাও তথাকারে ॥ স্বপ্ন আজি দেখিয়াছি শুন মহাশয় । রথে চড়ি রণ করে পাণ্ডুর তনয় ॥ রাক্ষস আকার ধরি বীর বৃকোদর । রণমধ্যে দুঃশাসন চিরিল উদর ॥ কৌরবের সহিত হইল মহারণ । ধবল পুষ্পের মালা পরি পঞ্চজনে । শ্বেত কৃষ্ণ লোহিতাদি বর্ণ ছত্র বাণ । কৌরবের সেনা করে রক্তজলে স্নান । স্রোতোধারে মহাবেগে রক্তধারা বয় । দেখিয়াছি এই স্বপ্ন শুন মহাশয় ॥ কৌরবের পরাজয় পাণ্ডবের জয় । গোবিন্দ বলেন দেবী হুইবে নিশ্চয় ॥ শক্র মধ্যে যাইবার উচিত না হয় । তথাপি যাইব আমি ধৰ্ম্মের আজ্ঞায়। বুঝাইব নীতিধৰ্ম্ম দুষ্ট দুৰ্য্যোধনে । মৃত্যুকালে ঔষধ না খায় রেগিজনে ॥ কদাচিত মম বাক্য না শুনিবে কাণে ; সবংশে যাইবে দুষ্ট যমরাজ-স্থানে ॥ অচিরাং হবে তব দুঃখ বিমোচন । হস্তিনায় রাজধানী হইবে এথন ॥ এত বলি সান্তু ইয়া দ্রুপদ-কন্যায় । শুভযাত্রা করি হরি যান হস্তিনায় ॥ মহাভারতের কথ। অমৃত-সমান । কাশীরাম দাস কহে শুনে পুণ্যবান ॥ ঐকৃষ্ণের হস্তিনায় আগমন সস্বাদে কুরুদের পর মুনি বলে শুন কুরুবংশ চূড়ামণি । বিদুর আসিয়া অন্ধে কহেন তখনি । হস্তিনায় আসিবেন আপনি শ্রীপতি । দুৰ্য্যোধনে বুঝাইতে ধৰ্ম্মশাস্ত্র নীতি ৷ সকল মঙ্গল রাজা হইবে তোমার । এই হেতু গোবিন্দ হইল আগুলার ॥ তোমার পূর্বের্বর ধৰ্ম্ম হইল উদয় । সম্প্রীতি করিল কৃষ্ণ হেন মনে লয় ] সাবধানে মহারাজ পূজিবা কৃষ্ণেরে । ত্যজিয়া কাপট্য শাঠ্য নিৰ্ম্মল অন্তরে " উভয় কুলের হিত চিন্তি নারায়ণ । আসিবেন তোমার সভায় এ কারণ "