পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


©ᏩxᏑ দ্বিভূজাং চিন্তয়েদেৰী নাগযজ্ঞোপবীতিনীমূ— । এককালে ধৃষ্টকেতু নয় বাণ মারে । কবচ ভেদিয়া তার বিন্ধিল শরীরে । দুই বীরে মহাযুদ্ধ বাধিল তুমুল । অমরে দানবে যুদ্ধ নহে সমতুল ॥ বটোৎকচ অলসুষ রক্ষসে ধাইল । দৈত্যেরে মারিতে যেন দেবেন্দ্র আইল ॥ নয় বাণ মারি তারে ঘটোৎকচ হাসে । , মহাবীর অলস্কুধ ধায় মহারোষে । অস্ত্রাঘাতে দোহ অঙ্গে বহিল রুধির । করয়ে রাক্ষলা মায়ু নির্ভয় শরীর ॥ ইলাবন্ত সহ যুদ্ধ অশ্বথামা করে । দুইজনে অস্ত্রবৃষ্টি করে নিরন্তরে ॥ সিন্ধুরাজ সহ যুঝ শকুন দুৰ্ম্মতি । শতাসুৰ সহ যুঝে বিরাট সন্ততি ॥ স্বদক্ষিণ সহ যুঝে সহদেব-স্থত। দুই বীরে শরবৃষ্টি করেন অদ্ভুত ॥ রথে রথে গজে গজে পদাতি পদাতি । সমানে সমানে যুদ্ধ এই ধৰ্ম্মনাতি ॥ অাসোয়ারে আসোয়ারে ধানুকী ধানুকী । যুঝয়ে সকল সৈন্য মনেতে কৌতুকী ॥ পরিঘ পট্টশ গদ ত্রিশূল তোমর । মুদগর মুঘল শেল বর্ষে নিরন্তর ॥ মণিমস্ত সপ cযন আকাশেতে ধায় । উভয় সন্যৈর অস্ত্র সেইরূপে যায় ॥ কনক রচিত নাগ আকাশ ভরিল । যোদ্ধাগণ অস্ত্র সেইরূপ আচছাদিল ॥ অস্ত্রবৃষ্টি দেখি কম্পবাণ দেবগণ । পড়িল যতেক সৈন্য কে করে গণন কর্দম হুইল রক্তে, নদীত্ৰেণত বয় । সাগর উথলে যেন প্রলয় সময় ॥ পরে অভিমমু্যবীর অৰ্জ্জুন-নন্দন । সৈন্যের উপরে করে বাণ বরিষণ । কাটিয়া অনেক সৈন্য পাড়ে চারিভিতে । চঞ্চল হইল সব কৌরব-সৈন্যেতে ॥ দেখিয়া রুষিল ভীষ্ম কুরু-সেনাপত্তি । কৃপ শল্য ৰিবিংশতি দুৰ্ম্মৰ সংহতি ॥ [ মহাভারজ চোখ শর মারি কাটি পাড়ে বহু বাদ - বাণেতে পাণ্ডব সৈন্য করিল অস্থির । অৰ্জুনের পুত্র অভিমনু্য মহাবীর । ধনুক ধরিয়া হাতে নির্ভয় শরীর ॥ শল্যরাজ রথধ্বজ কাটে এক বাণে । তিন বাণে কৃপের কাটিল শরাসনে ॥ নয় বাণ বিন্ধিলেক দোহার শরীরে । এক বাণে বিন্ধিলেক কৃতবৰ্ম্ম বীরে । রথধ্বজ কাটে সব মারি তীক্ষশর । অশ্ব সহ সারথিরে দিল যমঘর ॥ কৃতবৰ্ম্ম কৃপ শল্য বরিষয়ে শর। জলধর বর্ষে যেন পৰ্ব্বত উপর ॥ নিবারয়ে অভিমত্যু নির্ভয় শরীর । ধনঞ্জয় সদৃশ সমরে বড় ধীর ॥ ভীষ্মকে মারিতে যত্ন অভিমনু্য করে । নিবারয়ে ভষ্মবীর হাতে ধনুঃশরে ॥ কাটিয়া ভীষ্মের ধ্বজ ভূমিতে পাড়িল । সৈন্য মধ্যে দেবগণ তাহে প্রশংসিল ॥ ক্রোধে ভষ্ম দিব্য অস্ত্র সন্ধান পুরিল । অভিমনু্য রথধ্বজ সারথি কাটিল ॥ দিব্য অস্ত্র নিল ভীষ্ম সমরে দুর্জয় । বিন্ধিয় জর্জর করে অর্জুন তনয় ॥ তবে মহারথী সব লয় অস্ত্ৰগণ । অভিমমু্য রক্ষণ হেতু ধায় সৰ্ব্বজন ॥ করিলেন ভীষ্মোপরি বাণ বরিষণ । নিবরিয়ে সব অস্ত্র গঙ্গার নন্দন ॥ সব অস্ত্র নিবারিধা, সবারে বিন্ধিল । পাণ্ডবের সেনাগণে জর্জর করিল | ব্যাকুল পাণ্ডব সৈন্য রণে নহে স্থির । দেখি রুষিলেন ধনঞ্জয় মহাবীর ॥ যেন দুই অগ্নি আসি একত্র হইল । ভীষ্ম অৰ্জ্জুনেতে মিশামিশি যুদ্ধ হৈল । ক্রোধে অগ্নিবাণ নিল গঙ্গার নন্দন । বরুণ অস্ত্রেতে পার্থ করেন বারণ " হেনমতে ছুইজনে মহাযুদ্ধ হৈল । ৰাহুল্য হেতুক তাহ লেখা নাছি গেল ।