পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Q ○○ রথে রথে প্ৰহারিয়া মারে বহুজনে । গদাঘাতে সংহারিল বহু বীরগণে ॥ আথালি পাথালি বীর মারে গদাবাড়ি । রথী দশ সহস্ৰেকে মারিল খেদাড়ি ॥ তবেত স্থশৰ্ম্ম বীর নানা অস্ত্র মারে । গদা ফিরিইয়া বাণ সকলে সংহারে ॥ লাফ দিয়া পলাইল শৰ্ম্ম নৃপতি । দেখিয়া ধাইল দুৰ্য্যোধন নরপতি ॥ ং নানা অস্ত্র বরিষয়ে ভীমের উপর । রথে চড়ি ধনু ধরে বীর বৃকোদর ৷ তবে দুৰ্য্যোধন রাজা সমরে তৎপর। মারিলেক ভীম’পরে দশ গোটা শর ॥ অৰ্দ্ধপথে ভীম তাহ করে খান খান ॥ পুনঃ দুৰ্য্যোধনে মারে দশ গোট বাণ ॥ বাণে নিবারিল তাহা কৌরব প্রচণ্ড । ভীমের ধনুক কাটি করে খণ্ড খণ্ড । আর ধনু ধরে বীর চক্ষুর নিমিষে । বৃষ্টিধারাবৎ বাণ নিৰ্ভয়ে বরিষে ॥ ধনু অস্ত্র কাটিল রথের চারি হয় । এক বাণে সারথিরে নিল যমালয় ॥ আর রথে চড়ে তবে কৌরবপ্রধান : ভীমের উপরে পুনঃ পুরিল সন্ধান ॥ বাণে বাণে নিবারয়ে পবন-নন্দন । দুর্য্যোধন রাজার কটেন শরাসন ॥ ধনু কাটা গেল বীর পায় বড় লাজ । পুনঃ আর লয় ধনু কুরু মহারাজ । পুনঃ পুনঃ দুর্য্যোধন যত ধনু লয় । বাণে কাটি পাড়ে তাহা পবন-তনয় ॥ রাজার সঙ্কট দেখি ভীষ্ম মহাবীর । রণে অবকাশ নাছি হইল অস্থির } রাজগণে ডাকি বলে, ওহে মহাশয় । শীঘ্ৰ যাহ বুঝি আজি হইল প্রলয় ॥ ভীম ফুৰ্য্যোধনের বাধিল ঘোর রণ । মহাবল পরাক্রম পবন-নন্দন ॥ শুনিয়া ধাইল তবে বহু যোদ্ধাগণ । জয়দ্রথ-ভূরিশ্রব স্থশৰ্ম্ম রাজন ॥ দ্যাং লিখন্তীং জটমেকাং বিভ্রতীং শিরাসদ্ধিয়ীং ধ। মহাভারত রূপ শল্য দুঃশাসন ছন্মুখ প্রভৃতি। _ ধৰ্ম্মসেন চিত্ৰসেন আর বিবিংশতি ॥ ভগদত্ত মহারাজ বিলম্ব না করে । মহাগজে অরোহিয়া বেড়ে বৃকোদরে । চারিদিকে আসিয়া বেড়িল বীরগণে । অন্ধকার করিলেক বাণ বরিষণে ॥ মেঘে আচ্ছাদিল যেন দেব দিবাকরে । শরজালে আবরিল বীর বৃকোদরে । দেখি ভীম মহাবীর শীঘ্ৰহস্ত হৈল : সবাকার শরবৃষ্টি শরে নিবারিল ৷ সব অস্ত্র ব্যর্থ করি এড়ে অস্ত্রগণ । একে একে সৰ্ব্বজনে করয়ে ঘfতন ॥ কাহার কাটিল রথ কার’ ধনু গুণ ! কাহার ধনুক কাটে কার কাটে তুণ - কাহার কাটিয়া পাড়ে দন্ত দুই পাটি । বুকে বাণ বাজি কেহ কামড়ায় মাটি । কৌরবের সেনাগণ রণে ভঙ্গ দিল । দেখি ভগদত্ত বীর সমরে কুপিল । মহাগজরাজে চড়ি হাতে ধনুঃশর ; ভীমের উপরে ধায় অতি ক্রোধভর | ভগদত্তে দেখি ভীম পূরিল সন্ধান । বাছিয়া বাছিয়া মারে চোথ চোখ বাণ ; অস্ত্রে অস্ত্র নিবারিল ভগদত্ত বার - চোখ চোখ বাণে বিন্ধে ভীমের শরীর ! বাণাঘাতে ভীমসেন অজ্ঞান হুইল ভগদত্ত সিংহনাদ তখনি করিল ৷ ক্ষণেক চৈতন্য পেয়ে উঠে মহাবীর । ধনুঃশর নিল হস্তে নির্ভয় শরীর r বাছিয়া বাছিয়া বাণ করিল সন্ধান ! ভগদত্ত রাজার কাটিল ধনুখান ॥ কবচ কাটিয়া বাণ অঙ্গেতে ভেদিল নানা অস্ত্র মহাগজরাজে প্ৰহারিল | অরুণ কিরণ যেন জলধর মাঝে !

তেমন রুধির পড়ে ধারে গজরাজে ।

ভগদত্ত এড়িয়া দিলেক গজরাজ । দেখিয়া হৈল ব্যস্ত পাণ্ডব সমাজ ॥