পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৫৭৮ উগ্রতারার ধ্যান—প্রত্যালীঢ়পদাপিতংজি শবস্থা ঘোরাট্টহাসা— মহাভারত , কৌরব পাণ্ডব গেল আপনার ঘর । হেনমতে ছয় দিন হইল সমর ॥ মহাভারতের কথা অমৃত-লহরী। কাশীরাম দাস কহে শুনি ভব তরি ॥ হুকুমানের সছি ত বিবাদ ও অর্জুনের শর দ্বার সাগর-বন্ধন কথন । শিবিরেতে গিয়া যুধিষ্ঠির মহাশয় । কহেন গোবিন্দে অতি করিয়া বিনয় ॥ করিছেন পিতামহ সৈন্যের নিধন । কি করি উপায় এবে কহ নারায়ণ ॥ নারায়ণ অস্ত্রে ভীষ্ম পূরিল সন্ধান । দেবাস্থরে কেহু,যার নাহি জানে নাম ॥ মহাকোপে আসিল সে ভীমে মারিবারে । আপনি করিলে রক্ষ। আবরিয়৷ তারে ॥ মনে লয় যাহা মম শুন হৃষীকেশ । রাজ্যে কার্য্য নাহি বনে করিব প্রবেশ ॥ অর্জন বলেন শুন ধৰ্ম্ম নৃপবর । অমঙ্গল চিন্তা কেন কর নিরন্তর ॥ তীর্থ পর্য্যটনে আমি গেলাম যখন । ভ্ৰমিতে ভ্ৰমিতে যাই দ্বারকাভুবন ॥ হুগন্ধি কনকপদ্ম গন্ধে মনোহর । সত্ৰাজিত নন্দিনীকে দেন দামোদর ॥ দেখিয়া রুক্মিণী মনে ক্রোধ যে করিল। শরীর ত্যজিব মনে হেন বিচারিল ॥ এ সব বৃত্তান্ত জ্ঞানিলেন নারায়ণ । পুষ্পহেতু মোরে আজ্ঞা দিলেন তখন ॥ আমি কহিলাম পুষ্প আছে কোনখানে । । হfর কহিলেন আছে কদলীর বনে ॥ , , সেইক্ষণে ধনুৰ্ব্বাণ লইলাম আমি । গেলাম কদলীবনে অতি শীঘ্রগামী ॥ ভ্ৰমিতে ভ্ৰমিতে দেখি পুষ্প মনোহর । রক্ষক রয়েছে চারি মর্কট বানর ॥ পুষ্প তুলিবারে আমি যাইনু যখন । দেখিয়া তাহার মোরে করিল বারণ ॥ না মানিয়া পুষ্প আমি তুলি নিজ মনে । দেখিয় ছুটিয়া তারা গেল চারিজনে ॥ গিয়া হনুমাণে সব কহে সমাচার । শ্রতমাত্র আসে তথা পবন কুমার ॥ আমারে দেখিয়া বলে হ’য়ে ক্রোধ মন । , অন্যায়ী কিরাত চোর শুন রে বচন ॥ যাইবে শমন পুরী ইচ্ছা হৈল তোর । সে কারণে পুষ্প তোল’ উদ্যানেতে মোর। ইন্দ্র চন্দ্র দেবগণ নাছি আসে ডরে । অধম কিরাত কেন এলে মরিবারে ॥ নিত্য নিত্য পূজা আমি করি রঘুবীর । যাহার প্রসাদে মোর অক্ষয় শরীর ॥ আমি কহিলাম তুই জাতিতে বানর। বনফল খেয়ে ভ্রম বনের ভিতর ॥ নাহি জানি কটু কথা বলিস আমারে। যদি প্রাণে মারি তোরে কে রাখে সংলারে। বড় বীর বলি মনে কর রঘুনাথ । ংসারেতে র্তার বল আছয়ে বিখ্যাত ॥ বানর পাথর বহি সাগর বান্ধিল । তবে সে কটক ল’য়ে পার হয়ে গেল ॥ শরেতে আপনি যদি বান্ধিত সাগর । তবে আমি কহিতাম তীরে বীরবর ॥ হুনু ক্রোধে বলে শুন কিরাত অধম । ত্রিভুবনে খ্যাত যত রামের বিক্রম ॥ হরধনু ভাঙ্গিলেন যিনি অবহেলে। পরশুরামেরে যিনি জিনিলেন বলে ॥ শরেতে সাগর বান্ধ তার চিত্র নহে । কটকের মহাভার কি প্রকারে সহে ॥ সে কারণে বান্ধিলেন পাষাণে সাগর । রামের করহ নিন্দা অধম পামর ॥ ইহার উচিত ফল পাবে মোর ঠাই । পড়িলে আমার হাতে অব্যাহতি নাই ॥ তুমি যদি মহাবীর বড় ধনুৰ্দ্ধর । শরেতে সাগর বান্ধি কর মোরে পার ॥ আমার ভারেতে যদি তব বাধ রয়ু । তবে ত হইবে সখা এ কথা নিশ্চয় ॥