পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


জীবনী । কৰিকক্ষণ তৎক্রত শ্লোকমধ্যে যে ইজাণীর উল্লেখ করিয়াছেন, তাহাও কাটোয়ার নিকট ইজানী বলিয়া বোধ হইতেছে, কারণ হাট খাট সমন্ত এানে /:ন সহিয়াছে। কিন্তু কবিকঙ্কণ কাশীরাম তাসের ভবিষ্যৎ জন্য বিষয়ে কিছু জানিতেন বলিয়া সম্ভব হয় না ; কারণ কবিকঙ্কণ বর্গারোহণ করিবার প্রায় e•e• বৎসর পরে কাশীরাম দাসের জন্ম হয়। পুতরাং প্রমাণ হইতেছে যে, কাশীরাম দাসের বাসস্থান কাটোয়ার সন্নিকট ইজাণী পরগণার মৰ:পাতী সিদ্ধিগ্রামে। কাশীরাম দাস কোন সালে জন্মগ্রহণ কর্মিয়াছিলেন, তাহার বিশেষ প্রমাণ কিছুই নাই। কবিকঙ্কণ কেিবাস ইত্যাদির রচনা অপেক্ষা কাণীরাম দাসের রচনা আধুনিক। কারণ বৃত্তিবাস ও কবিকঙ্কণের তাৰা অপেক্ষা কাশীরাম দাসের ভাব অনেক অংশে মার্জিত, স্পষ্ট ও সরল এবং ইহাতে শগত বৈষম্যও অনেক দেখিতে পাওয়া যায়। কবিকঙ্কণের চওী তিন শত ত্রিশ বৎসরাধিক কালের লিখিত ; কাশীরাম দাসের রচনা তাহার পরে প্রতীয়মান হইতেছে। ফলতঃ, কাশীরাম দাস যে ইহার অনেক পরে জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন, সন্দেহ নাই। বিশেষ অনুসন্ধানে জানা গিয়াছে যে, কাশীরাম দাসের পুত্র, পুরোহিতগণকে আন ১০৮৫ সালের সাধার্চ মাসে বাবাটী দান করিয়াছেন , উক্ত দানপত্র এক্ষণে ছির বম্বে এটা মাছে গtহার সমস্ত শব্দ পড়িতে পারা যায় না, স্থানে স্থানে গলিত হইয়া গিয়াছে। ইহাতে বোধ হইতেছে যে, বযি কালীরাম দাসের পুত্র ১০৮৫ সালে দানপত্র করিয়া থাকেন, তবে নিশ্চয়ই াহার পিগা সন ১••• দশ শত সালের কিছুদিন পরে জন্মগ্রহণ করিয়াছেন। কাশীরাম দাস কায়ংকুলোদ্ভব এবং তাহাদের "দেব” উপাধি ছিল। কায়স্থ জাতিরা উপাধির পূর্বে "দাস” বলিয়া উল্লেখ করেন। কাশীরাম দাসও মহাভারতের কোন স্থানে দেব, কোন স্থানে "দাস" উল্লেখ করিয়াছেন । “শান্তিপৰ্ব ভারতের অপূৰ্ব্ব কথনে । কাশীরাম দেব কছে গোবিন্দsরণে ॥” কাশীরাম কায়বংশোদ্ভব ; কিন্তু তিনি শৈব ছিলেন, কি বৈঞ্চব ছিলেন, তাহার কিছুই নির্যারি, প্রমাণ নাই। তিনি নিজ রচনায় লিখিয়া ছন ;- “মস্তকে বন্দিয়া চSচুড়পদরজ । কহে কাশীরাম গদাধর দাসাণৰ * মহাভারত কৃঞ্চলীলায় পূর্ণ, মুতরাং ইহার মধ্যে অনেক স্থলে ঝঞ্চ বন্দনাই লক্ষিত হয় এবং কানীরাফ দাসকেও স্কবভক্ত বলিয়া বোধ হয় । সময়ের গুণেই হউক, অথবা স্বভাবের গুণেই হউক, কাশীরাম দাস ব্ৰাখণভক্ত ছিলেন। তিনি মহাভারতের মধ্যে ব্রাহ্মণের মাহাত্ম্য অতিশয় সরল অংকরণে লিখিয়াছেন এবং স্থানে স্থানে বদনও করিয়াছেন। “মন্তকে বন্দিয়া গ্রাহ্মণের পদারজঃ। কহে কাশীরাম দাস গদাধরাগ্রত * কাশীরাম দাসের পিতার নাম কমলাকান্ত, পিতামহের নাম সুধাকর এবং প্রপিতামহের নাম প্রিয়ম্বর ছিল। কাণরাম দাসের ছই সহোদর। কক্ষnাস লেtকাশীরাম মধ্যম, ও গদাধর কনি। কেহ কেহ বলেনকমলাকাষের চারিটি পুত্র, মধ্যে কাশীরাম তৃতীয়, কিন্তু এ কথা বিশ্বাস হয় না ; কারণ বিষয়ের ফিাই প্রমাণ নাই।