পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৬২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


やっ>b" দেবীগলোচ্ছল দক্ত ধারাপানং প্রকুৰ্ব্বতীং । [ भशडीब्रखें ভারত-সঙ্গীত, বিরচিল কাশীদাস ॥

  • mm- mamm",

অর্জনের প্রতি শ্ৰীকৃষ্ণ ও ব্যাসের সাস্বনা ও জয়দ্ৰথ বধে অৰ্জ্জুনের প্রতিজ্ঞ । অৰ্জুন বলেন কৃষ্ণ করি নিবেদন । অভিমতু্য বিনা আর না রহে জীবন ॥ অভিমনু্য সম নাহি দেখি ত্রিভুবনে । কন্দপ সমান বীর পূর্ণ রূপে গুণে ॥ শ্ৰীকৃষ্ণ বলেন সখে শুনহ বচন । স্বগে গেল যেই, তার না কর শোচন ॥ সম্মুখ সংগ্রাম করি গেল স্বৰ্গলোক । বড় কাৰ্য্য কৈল সেই, পরিহর শোক ॥ অনিত্য সংসার দেখ নিত্য কিছু নয় । কহিনু স্বরূপ এই জানিহ নিশ্চয় ॥ যতেক দেখহ সব পুত্র পরিবার। কেহ কার’ নয় শুন কুন্তীর কুমার ॥ এক কথা কহি তাহ শুন সাবধানে । দেখিয়াছ বৃক্ষেণপরে থাকে পক্ষিগণে ॥ নিশাকালে থাকে সব বৃক্ষের উপর । প্রভাতে উঠিয়া যায় দিগ দিগন্তর ॥ তত্তুল্য সংসার এই দেখ ধনঞ্জয় । কুহকের প্রায় যেন কিছু সত্য নয় ॥ এইমত সান্তন করেন নারায়ণ । হেনকালে আইলেন ব্যাস তপোধন ॥ বসিবারে আসন দিলেন সেইক্ষণ । উঠিয়া প্রণাম করিলেন সৰ্ব্বজন ॥ পার্থ বলিলেন মুনি কর অবধান । অভিমনু্য পুত্র বিনা স্থির নহে প্রাণ ॥ ব্যাস বলিলেন ইহা শুন সৰ্ব্বজন । জীবন অসার, সার কেবল মরণ ॥ স্বজন করিলা প্রভু এ তিন ভুবন । পরিপূর্ণ হৈল পাপী না হয় পতন ॥ পৃথিবী না সছে ভার টলমল করে। এত দেখি নারায়ণ চিন্তিল অন্তরে ॥ শ্রবণে ললিত, নিশ্বাস ছাড়েন প্রভু করি হুহুঙ্কার। মাসাপথে কন্যা এক হৈল অবতার ॥ প্রভুর নিকটে কন্যা দাণ্ডাইয়া কয় । কি কাৰ্য্য করিব আজ্ঞা কর মহাশয় ॥ প্রভু বলিলেন তুমি মৃত্যুরূপ হও । চতুর্দশ পুরে গিয়া ভ্ৰমিয়া বেড়াও ॥ মৃত্যুরূপে প্রাণীর সংহার কাল পেয়ে । প্রভুর আদেশে কন্যা হরষিত হ’য়ে ॥ কালপ্রাপ্ত জনেরে যে মৃত্যুরূপে হরে । অনিত্য সংসার এই জানাই তোমারে ॥ এত বলি ব্যাসদেব করেন গমন । সবে মেলি করে তার চরণ বন্দন ॥ তার পরে বাস্থদেব কমললোচন । যুধিষ্ঠির রাজা চাহি বলেন বচন ॥ কহ শুনি অভিমনু্য যুদ্ধের কৰ্থন । কিরূপে কৌরব সহ করিলেক রণ ॥ যুধিষ্ঠির বলিলেন শুন বিবরণ। চক্রব্যুহ করি দ্রোণ করে মহারণ ॥ ব্যুহ ভেদি যুদ্ধ করে নাহি হেন জন । অভিমনু্য প্রতি কহিলাম সে কারণ ॥ এতেক শুনিয়া পুত্ৰ কহিল তখন । ব্যুহে প্রবেশিতে জানি, না জানি নিগম ৷ তথাপি পাঠানু তারে করিয়া বিচার । বুহে প্রবেশিল শিশু করি মহামার ॥ তার পাছে যাই সবে হেন করি মনে । ব্যুহুদ্বার রুদ্ধ করে সিন্ধুর নন্দনে ॥ জয়দ্রখে জিনিতে নারিল কোন জন । সে কারণে মরিলেন অর্জুন-নন্দন ॥ কুরুবল বিনাশিল অভিমনু্য রথী । তবে তারে বেড়িলেন সপ্ত সেনাপতি ॥ এমত অন্যায় করে দুষ্ট দুৰ্য্যোধন । সমরেতে বিনাশিল আমার নন্দন ॥ এত শুনি নারায়ণ ক্রোধে হুতাশন । এমত অন্যায় যুদ্ধ করে ছষ্টগণ ॥ | জয়দ্ৰথ হেতু মরে অভিমনু্য বীর । । শুনি ধনঞ্জয় ক্রোধে হইল অস্থির ॥ .