পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


        নমস্যে ত্বাং মহাদেব লোকানাং গুরুমীশ্বরং।
 স্কন্ধ হৈতে ফলভার ভূমিতে থুইল।
 শকুন্তলা এস বলি মুনি ডাক দিল।।
 লজ্জায় মলিন কন্যা না হ'ল বাহির।
 দেখিয়া বিস্ময় চিত্ত হইল মুনির।।
 ধ্যানেতে জানিল মুনি যত বিবরণ।
 হাসিয়া কন্যার প্রতি বলিল বচন।
 আমারে হেলন করি কৈলে এই কর্ম্ম।
 দুষ্মন্ত নৃপতি সহ করিলে অধর্ম্ম।।
 ক্ষমিলাম তোরে আমি করেছি পালন।
 না করিহ ভয় চিত্তে স্তির কর মন।
 সবিনয়ে কন্যা বলে যুড়ি দুই কর।।
 অপরাধ করিয়াছি ক্ষম মুনিবর।।
 যোগ্যপাত্র সেই সে দুষ্মন্ত নৃপবর।
 গান্ধর্ব্ব বিবাহে তাঁরে বরিলাম বর।।
 ক্ষমহ রাজার দোষ আমায় দেখিয়া।
 এত শুনি মুনিবর বলিল হাসিয়া।।
 তোমার কারণে আমি দিনু তারে বর।
 শুনি শকুন্তলা হৈল হরিষ-অন্তর।।
 হেনমতে মুনি গৃহে আছে শকুন্তলা।
 বিস্মৃত হইল রাজা রাজভোগে ভোলা।।
 কতকালে প্রসব হইল শকুন্তলা।
 পরম সুন্দর পুত্র শশী ষোলকলা।।
 দিনে দিনে বাড়ে পুত্র মুনির ভবনে।
 ছয় বর্ষ পূর্ণ হৈল নাহি কার' মনে।।
 মহাপরাক্রমী বীর হৈল শিশুকালে।
 সিংহ ব্যাঘ্র হস্তী ধরি আনে পালে পালে।।
 তার পরাক্রম দেখি মুনি চমৎকার।
 দমনক বলি নাম দিলেন তাহার।।
 শকুন্তলা সহ মুনি করিল বিচার।
 যুবরাজযোগ্য পুত্র হইল তোমার।।
 পুত্র সহ যাও তুমি রাজার আলয়।
 পিতৃগৃহে পুত্র কভু সম্ভব না হয়।।
 ধর্ম্মক্ষয় অপযশ হয় কুচরিত্র।
 পিতৃগৃহে বহুধর্ম্মে না হয় পবিত্র।।
 দুষ্মন্ত নৃপতি বৈসে হস্তিনানগর।
 শকুন্তলা গেল যথা আছে নরবর।।
 পাত্রমিত্র সহ রাজা আছেন বসিয়া।
 পুত্র আগে করি তথা উত্তরিল গিয়া।।
 রাজারে চাহিয়া শকুন্তলা বলে বাণী।
 এই পুত্র তোমার দেখহ নৃপমণি।।
 পূর্ব্বের প্রতিজ্ঞা রাজা করহ শ্রবণ।
 তপোবনে গিয়াছিলে মৃগয়া কারণ।।
 সত্য আপনার রাজা করহ স্মরণ।
 যুবরাজযোগ্য হয় এইত নন্দন।।
 শুনি সভাসদলোকে বিস্ময়-অন্তর।
 হাসিয়া দুষ্মন্ত রাজা করিল উত্তর।।
 কোথাকার তপস্বিনী কাহার নন্দিনী।
 কোনকালে পরিচয় আমি নাহি জানি।।
 এত শুনি শকুন্তলা হইল লজ্জিত।
 ক্রোধেতে অধর ওষ্ঠ সঘনে কম্পিত।।
 পুনঃ ক্রোধ সম্বরিয়া বলে শকুন্তলা।
 পূর্ব্ব সত্য পাসরিয়া রাজ্যভোগে ভোলা।।
 কি বাক্য বলিলা রাজা নাহি ধর্ম্মভয়।
 তুমি হেন মিথ্যা বল উচিত না হয়।।
 দৈবের সে সব কথা কেহ নাহি জানে।
 আপনা আপনা রাজা ভাব মনে মনে।।
 জানিয়া শুনিয়া মিথ্যা কহে যেই জন।
 সহস্র বৎসর তার নরকে গমন।।
 লুকাইয়া যে জন করে পাপ কর্ম্ম।
 লোকে না জানয়ে কিন্তু জানে সেই ধর্ম্ম।।
 চন্দ্র সূর্য্য বায়ু অগ্নি মহী আর জল।
 আকাশ শমন ধর্ম্ম জানয়ে সকল।।
 দিবা রাত্রি সন্ধ্যা প্রাতঃ বাল বৃদ্ধজনে।
 ধর্ম্মাধর্ম্ম ফল তারে হেয় ত শমনে।।
 মিথ্যা হেন বল রাজা কভু ভাল নহে।
 মিথ্যা হেন পাপ নাহি সর্ব্বশাস্ত্রে কহে।।
 পতিব্রতা নারী আমি না কর হেলন।
 আমারে নীচের প্রায় না ভাব রাজন।।
 পুত্ররূপে জন্ম হয় ভার্য্যার উদরে।
 শাস্ত্রেতে প্রমাণ আছে যত চরাচরে।
 অর্দ্ধেক শরীর ভার্য্যা সর্ব্বশাস্ত্রে লেখে।
 ভার্য্যা সম বন্ধু রাজা নাহি কোন লোকে।।