পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গদাপর্ব । লোকনাথং ত্রিলোকেশং কৌস্তুভারণং হরি। এ ক্ষেত্রের ধূলি উড়ে লাগে যার গায় । অসংখ্য জন্মের পাপ সে জনের যায় ॥ অনিচ্ছায় বা ইচ্ছায় মরে যে এ স্থানে । পায় যেন সে নিৰ্ব্বাণ মুক্তি সেইক্ষণে । এই বর দেহ মোরে দেব দৈত্যভেদী । এই তীর্থ রহিবেক চন্দ্র সূর্যাবধি । তথাস্তু বলিয়া ইন্দ্র হৈলা অন্তৰ্দ্ধান । কুরুরাজ নিজ গৃহে করিল পয়াণ । এই হেতু কুরুক্ষেত্র শুন নৃপমণি । তোমাকে জানামু কুরুক্ষেত্রের কাহিনী ॥ জন্মেজয় বলেন শুনহ তপোধন । তার পর কি হইল ভীম দুৰ্য্যোধন । মুনি বলে শুন শুন অপূৰ্ব্ব কথন । দুইজনে যুদ্ধ হয় শুনহ রাজন ॥ হেথায় সঞ্জয় কহে অন্ধ নৃপতিরে । দুৰ্য্যোধন গদাযুদ্ধে পড়িল’সমরে ॥ শুনি হাহাকার করি করয়ে ক্ৰন্দন । মহাশোকাকুল রাজা হয় অচেতন ॥ সঞ্জয় বলেন রাজা কেন কান্দ আর । সৰ্ব্বনাশ হৈল রাজা কপটে তোমার ॥ কহ রাজা কি হইবে এখন কান্দিলে । কিংজিতং কিংজিতং বলি যবে জিজ্ঞাসিলে ॥ পাণ্ডবেরে যত তুমি কর ভিন্ন ভাব । সে সব কৰ্ম্মেতে এবে হৈল এই লাভ ॥ ধৃতরাষ্ট্র বলে শুন ধৰ্ম্মের নন্দন । কিমতে করিল যুদ্ধ ভীম দুৰ্য্যোধন ॥ জয় বলেন রাজা শুন মন দিয়া । ভীম-দুর্য্যোধন যুদ্ধ কহি বিস্তারিয়া । মহাভারতের কথা সমান পীযুষ । যাহার শ্রবণে নর হয় নিষ্কলুষ । ধ্যাসের বচন শিরে করিয়া বন্দন । কাপরাম দাস কহে শুন সাধুজন । ཟས་ཡོད་ হৰ্য্যোধনের উরুভঙ্গ। ভীম দুৰ্য্যোধন, করে মহারণ, দেখে সবে কুতুহল । అవి: দেখিতে সমর, ज३ग्रा अभद्र, আসিলেন আখগুল । চড়িয়া বাহন, করে আগমন, তেত্রিশ কোটি অমর। যার যেই বেশ, করিয়া বিশেষ, বসিলা যুড়ি অম্বর ॥ অপর অপর, কিন্নরী কিন্নর, গন্ধৰ্ব্ব পিশাচ রক্ষ । | প্রেত ভূতগণ, না যায় গণন, আসিলেক লক্ষ লক্ষ ॥ ংসে পদ্মাসন, বৃষে পঞ্চানন, পাৰ্ব্বতী কেশরী-যানে । দেব জলেশ্বর, আসিল সত্বর, চড়িয়া নিজ বাহনে ॥ হরিণে পবন, নরে বৈশ্রবণ, মুষিকে বিপ্লবিনাশন। হইয়া কৌতুকী, চাপি মত্ত শিখী, আসিলেন ষড়ানন ॥ শমন মহিষে, পরম হরিষে, আসেন দেখিতে রণ । অষ্টলোকপাল, সজ্জা করি ভাল, ' করিলেন আগমন । দিবা নিশাপতি, রমণী সংহতি, করি রথ আরোহণে । যত সিদ্ধগণ, না যায় গণন, আসেন যুদ্ধ সদনে ॥ দেব ঋষি আদি, নাহিক অবধি,

  • নারদাদি মুনি আর । উৰ্দ্ধরেত যত, হয়ে উল্লাসিত,

করিলেন আগুসার ॥ সবে স্থানে স্থানে, বসিলেন যালে, দেখিতে সমর রঙ্গ । ভীম দুৰ্য্যোধন, দোহে করে রণ, উঠিল রণ তরঙ্গ । দুই মহাবলা, গদা স্বন্ধে তুলি, ফিরায় মগুলী করি ।