পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૧૭8 এমেৰ নয়োফাৰেজদেৰশকের ক- trमझच्छक्रश চতুঃষষ্টি ব্যাধি হুজি দেন তার সনে । তাহে ভাজা হয় পাপ আপনার তৈলে T প্রেতপুরে যমরাজা চলিল তখনে ॥ ব্ৰহ্মবধ করে কিম্বা স্ববর্ণ হরিলে ॥ পুরী চতুর্দিকে তার অপূর্ব রচন। মিথ্যা কথা কহে যেবা হরয়ে শাসন । তার কথা কহি শুন ধৰ্ম্মের নন্দন ॥ দেবখষি সন্ন্যাসী যে মরে নৃপবর। উত্তর দ্বারেতে যায় যমের নগর ॥ পশ্চিম দুয়ার হয় অতি রম্যস্থল । নানা দ্রব্য ভোগ্য আছে অমৃত সকল ॥ . সম্মুখ যুদ্ধেতে পড়ে যেই যোদ্ধাগণ । পশ্চিম দুয়ারে যায় যমের সদন ॥ পূৰ্ব্বদ্বারখানি দেখি পরম স্বন্দর । দধি দুগ্ধ ভক্ষ্যদ্রব্য পরম স্বন্দর ॥ স্বামীর সহিত মরে যত নারীগণ । স্বামী লীয়ে পূর্বারে করয়ে গমন ॥ দক্ষিণ দ্বারের কথা কহনে-মা যায়। শুনিলে লোমাঞ্চ হয় সকলের গায় ॥ দক্ষিণ দুয়ারে বছে বৈতরণী নদী । পাপীর শরীর দহে পরশয়ে যদি ॥ মস্তকে মারায়ে দূত অস্ত্রের প্রহর । সর্ণতারিয়া পাপী সব হয় তাহে পার ॥ পার হতে আছে ভয়, শুনহ কাহিনী । কৃমিতে মাথার খুলি খায় ইহা জানি ॥ ঠাই ঠাই একেশ্বর হৈতে হয় পার । শৃগাল কুকুরে খায় ঘোর অন্ধকার ॥ চৌরাশী নরককুণ্ড তাহার দক্ষিণে । তাহার সকল কথা শুন সাবধানে ॥ বজকীট পোকা আছে তাহার ভিতর। গ্রাসে গ্রাসে পাপী বেড়ি খায় নিরস্তর ॥ স্বামীবাক্য নাহি মানে, স্থাপিত হরণ। - দেবতারে নিন্দে আর নিন্দয়ে ব্রাহ্মণ ॥ তাহারে ফেলায় ঘোর নরক ভিতরে । ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম বিবেচনা চিত্রগুপ্ত করে ॥ মহাকুণ্ড নাম ধরে পুরিত শোণিত। শতেক যোজন তাং কণ্টকে পূরিত ॥ সে নরকে গোবধ স্ত্ৰীবধকারী যায়। সৰ্ব্বাঙ্গে পোণ্ডুয় তাহে নরক পীড়য় ॥ কুম্ভীপাক নরকেতে তাহার গমন ॥ যে মহারৌরব নাম নরক বিশেষ । শুনহ তাহার কথা বলিব অশেষ ॥ তনয় বিক্রয় যেবা করে মুঢ়জন । লে মহারেীরবে হয় তাহার গমন ॥ আর যেবা মহাপাপ করে মহীতলে । একে একে নরক ভুঞ্জয়ে বহুকালে ॥ ংক্ষেপে জানহ যমপুরীর কথন । কহিব ধৰ্ম্মের ফল শুনহ রাজন ॥ যার যেবা ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম করিয়া বিচার । ছোট বড় সবাকার কহিব বিস্তার ॥ মহাভারতের কথা অমৃত লহরী। শুনিলে অধৰ্ম্ম খণ্ডে পরলোক তরি ॥ শান্তিপৰ্ব্ব ভারতের অপূৰ্ব্ব কথন । একচিত্তে একমনে শুনে যেই জন ॥ সৰ্ব্বধৰ্ম্ম ফল লভে নাহিক সংশয় । সৰ্ব্বত্র অভীষ্ট লাভ সৰ্ব্বত্র বিজয় ॥ অন্তকালে গতি হয় বৈকুণ্ঠ উপর । নাহিক সংশয় ইথে ব্যাসের উত্তর ॥ কাশীরাম দেব চিত্ত গোবিন্দ-চরণে । একচিত্তে একমনে শুনে সৰ্ব্বজনে ॥ ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম প্রভাবে হরিনামের মহাত্ম্য কথন । জিজ্ঞাসেন যুধিষ্ঠির করিয়া বিনয় । ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম কথা কহ শুনি মহাশয় ॥ কিরূপে অধৰ্ম্ম ভোগ করে পাপিগণ । ধৰ্ম্মিলোক ধৰ্ম্মভোগ করয়ে কেমন ॥ শুনিয়া কহেন হালি গঙ্গার তনয় । কহিব সকল কথা শুনহ নিশ্চয় ॥ যমরাজপুরী নাম বিখ্যাত ভুবনে । অস্তুত গছার পুরী না যায় বর্ণনে ॥ যোলশত যোজন তাহার পরিমাণ । যমের অদ্ভুত পুরা বিচিত্ৰ নিৰ্ম্মাণ ॥ ।