পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૧૪૦ দূত বলে দ্বিজ ভূমি হইলে অঋণী । খটুতে গৃহের মধ্যে শুইবে আপনি ॥ দুয়ারেতে খিল দিয়া করিয়া শয়ন । স্বত দারা সবাকে করিবে নিবারণ ॥ পুনঃ পুনঃ সবাকে কহিবে এই বাণী । -- তিন দিন গত হলে ঘুচাবে খিলনি ॥ ইতিমধ্যে যদি কেহ যুচায় দুয়ার । নিশ্চয় হইবে তবে আমার সংহার ॥ এইরূপে সবাকারে কহিবে বচন । - সত্য কহি দেখাইব যমের সদন ॥ এত বলি অন্তৰ্দ্ধান হৈল সেইক্ষণ । আনন্দেতে দ্বিজ গৃহে করিল গমন ॥ পিতা-পিতামহ হৈতে যত ঋণ ছিল । ক্রমে ক্রমে ভদ্রশীল সকল শুধিল ॥ আপনিও যত ঋণ দিয়াছিল লোকে । সৰ্ব্বলোকে বলিলেক পরম কৌতুকে ॥ যার ধারি লহ ঋণ যেবা ধার’ দেহ । এই ভিক্ষা মাগি আমি কর অনুগ্রহ ॥ এইরূপ সর্ববলোকে কহিয়া বচন । ক্রমে ক্রমে যত ঋণ করিল শোধন ॥ অঋণী হইল দ্বিজ আনন্দিত মন । দারণস্থত সবাকারে কহিল বচন ॥ তিন দিবসের মত শুইব গৃহেতে । কদাচিত কেহ মোরে না যাবে তুলিতে ॥ যদ্যপি আমার বাক্য করহ অন্যথা । তবেত আমার মৃত্যু না হয় সৰ্ব্বথা ॥ এতেক বচন দ্বিজ কহি স্থত দারে । আনন্দেতে নিদ্রা গেল ঘরের ভিতরে ॥ দ্বিজে সত্য করি দুত স্বস্থ নাহি মনে । বৈশ্বেরে লইয়া গেল যমের সদনে ॥ এত বলি জিজ্ঞাসেন ধৰ্ম্মের নন্দন । কিরূপেতে যম তারে করিল তাড়ন ॥ আচম্বিতে মৃত্যু তার হৈল কিরূপেতে । ইহার বিধানে দেব কহিবে আমাতে ॥ শুনিয়া কহেন হাসি ভীষ্ম মহাশয় । কীৰ্ত্তিমস্ত নামে এক বৈশ্বের তনয় ॥ o छ्ननलाशनः। পুত্র বিখ্যাত जगाडT তার সম ধনে বৈশ্ব নাহি পৃথিবীতে ॥ তড়াগ পুকুর বিল দিল শত শত। ' লিখনে না যায় দ্বিজ দান দিল যত ॥ ক্রোধের সমান রিপু নাহি সংসারেতে । দানকালে এক দ্বিজে চাহিল ক্রোধেতে ॥ জগতের গুরু দ্বিজ চিনিয়া ন চিনে । ধনে মত্ত হয়ে চাহে সক্রোধ নয়নে ॥ ক্রোধে দ্বিজ তার দান কিছু না লইল । ক্রোধে দ্বিজ তারে শাপ সেইক্ষণে দিল ॥ দান দিয়া ক্রোধ মোরে কর পুনর্বার ॥ এই পাপে অপমৃত্যু হইবে তোমার ॥ এত বলি নিজ স্থানে গেল তপোধন । বিরল বদন হৈল বৈশ্বের নন্দন ॥ একদিন নিত্যকৃত্য হেতু সন্ধ্যাকালে । গোষ্ঠ দিয়া যায় বৈশ্ব রেবা নদীকূলে ॥ দৈবযোগে ষণ্ড এক বিক্রম করিয়া । বৈশ্বের হরিল প্রাণ শৃঙ্গেতে চিরিয়া ॥ যমের আজ্ঞায় তবে যমের কিঙ্কর । বৈশ্বেরে লইয়া গেল যমের গোচর ॥ কপট করিয়া যম জিজ্ঞাসিল তারে । তোমা হেন পুণ্য কেহ না করে সংসারে । , তুমি পুণ্যবান, দান করিলে বিস্তর। তড়াগ পুষ্কর্ণি কূপ দিলে বহুতর ॥ দেবঋণে পিতৃঋণে হইলে মোচন । নানা যজ্ঞ করি আরাধিলে পদ্মাসন ॥ কিছুমাত্র তব পাপ আছে হৃদিমাঝে । } ক্ৰোধদ্বষ্টে তুমি চাহি ছিল এক দ্বিজে ॥ যাহা অর্জিজ তাহা ভুঞ্জি বেদের বচন । পাপ পুণ্য দুই ভোগ নাহিক মোচন ॥ এত শুনি বৈশ্য বলে বিনয় বচন । অল্প আছে যদি পাপ করিব ভুঞ্জন ॥ যম বলিলেন পড় হ্রদের ভিতরে । চিরকাল থাক তথা কুম্ভীর শরীরে ॥ দেবল ঋষির সঙ্গে হৈলে দরশন । তবে পাপভোগ তব হইবে খগুন ।