পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৭৫৬ স্বাক্ষস্থ নীলকণ্ঠম সর্বাভরণভূৰিভক্ষ প্রয়াগে কামনা করি ডুবিয়া মরিল। মম পতি সম রূপ সে জন হইল । দুই পতি হৈল মম দৈব নিৰ্ব্বন্ধন । প্রয়াগ মহিমা কিছু না যায় কথন । এইরূপে মনে মনে করিল চিন্তন । বৈকুণ্ঠের দ্বারী হয়ে রহে তিন জন ॥ মহাভারতের কথা অমৃত লহরী। শুনিলে অধৰ্ম্ম খণ্ডে পরলোকে তরি ॥ মস্তকে বন্দিয়া চন্দ্রচুড় পদরজ । কহে কাশীদাস গদাধর দাসাগ্রজ ॥ পরশুরামের তীর্থপর্য্যটন । ভীষ্ম বলিলেন শুন ধৰ্ম্মের নন্দন । আর কিছু ইতিহাস শুন দিয়া মন ॥ কৌণ্ডিচ্চ নামেতে মুনি বিখ্যাত ভুবন । তীর্থযাত্রা করি তিনি করেন ভ্রমণ ॥ ভাগীরথী বারাণসী প্রভাস পুষ্কর। বিন্দুক্ষেত্রে বিন্দুত্ত্বদ বিরজা ছুক্ষর ॥ ইন্দ্ৰদ্যুম্ন সরোবর সরযু কেদার। মান-সরোবর আদি তীর্থ হরিদ্রার ॥ একে একে সব তীর্থ করিয়া ভ্রমণ । ব্ৰহ্মহদক্ষেত্রে তবে করিল গমন ॥ বিপুল বিস্তার হ্রদ দেখিতে সুন্দর। বৃহৎ কুম্ভীর থাকে তাহার ভিতর ॥ পূৰ্ব্বেতে পরশুরাম ভূগুবংশপতি । টাঙ্গিতে হ্রদের দ্বার কাটেন ঝটিতি ॥ খণ্ডিত হইয়া জল হুইল বাহির । হরিদ্বার দিয়া বহে মহাস্রোত নীর ॥ দ্বার মুক্ত করি স্নান করে তপোধন । মাতৃবধপাপে রাম হুইল মোচন ॥ এত শুনি জিজ্ঞাসেন ধৰ্ম্মের নন্দন । কহ শুনি পিতামহ সবিস্ময় মন ॥ মহাধৰ্ম্মশীল রাজা ভূগুবংশমণি । কি কারণে মাতৃবধ করিলেন শুনি ॥ সৰ্ব্ব গুরু হৈতে শ্রেষ্ঠ গণি যে জননী । হেন কৰ্ম্ম কি কারণে করিলেন মুনি ॥ " [ মহাভারত । ভীষ্ম বলিলেন তাহ শুনহ রাজন । ভুবনে বিখ্যাত জমদগ্নি তপোধন । রেণুকা নামেতে র্তার ভার্ষ্য গুণবতী । পুত্র বাঞ্ছা করি স্বামী সেবা করে অতি ॥ ক্রমে ক্রমে পঞ্চ তার জম্মিল নন্দন । কনিষ্ঠ তাহার রাম প্রতাপে তপন । ধনুৰ্ব্বেদ শিখিলেন বশিষ্ঠের স্থানে । রামের সমান বীর নাহি ত্রিভুবনে ॥ একদিন জমদগ্নি ছলিতে কুমারে । গৃহিণীকে বলিলেন জল আনিবারে ॥ শীঘ্ৰগতি জল আনি দেহত আমারে । তপণ করিব আমি জানাই তোমারে ॥ " এত শুনি কলসী আনিয়া শীঘ্রতর । , জল আনিবারে যায় সিন্ধু সরোবর ॥ হেনকালে চলি যায় ঘৃতাচী অপলরী। " তার রূপে মুগ্ধ হয় গাধির কুমারী ॥ . মুহুর্তেকে তার রূপ করে নিরীক্ষণ । যতক্ষণ তার প্রতি চলিল নয়ন ॥ সে কারণে বিলম্ব হইল কতক্ষণ । জল ল’য়ে দ্রুতগতি করিল গমন ॥ বিলম্ব দেখিয়া মুনি ক্রোধিত হইল । জ্যেষ্ঠ পুত্রে চাহি দ্রুত ডাকিয়া কহিল ॥ জমনীর মাথা কাটি আনহ ত্বরিত । এত শুনি জ্যেষ্ঠপুত্র হইল ভাবিত ॥ মাতৃবধ-পাপ চিন্তি না শুনিল বাণী । আর তিন পুত্রেরে বলিল মহামুনি ॥ কেহ না শুনিল বাক্য ক্রোধে মুনিবর । কনিষ্ঠ নন্দন রামে বলিল সত্বর ॥ জননী সহিত কাটি চারি সহোদর। আমার আজ্ঞায় তাত ফেলাও সত্বর ॥ এতেক শুনিয়া রাম বিলম্ব না করি । মাতৃ সহ কাটিলেন সহোদর চারি ॥ দেখিয়া পুত্রের কৰ্ম্ম সবিস্ময় মন । তুষ্ট হৈয়া জমদগ্নি বলেন বচন ॥ চিরজীবী তাত তুমি হও মম বরে। তোমা সম বীর কেহ নহিবে সংসারে ॥