পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৭৬২ মঞ্জুঘোষের ধ্যান—শশধরমিবশুভ্রং খড়গপুস্তাঙ্কপাণিনং— [ মহাভারত। মোরে অপমান যেন কৈলি দুরাচার। প্রেতযোনি জন্ম দুষ্ট হইবে তোমার ! ক্ষুধার্ত অতিথি জনে করিলি বঞ্চন । বিষ্ঠা মূত্রে হইবেক তোমার ধরণ ॥ এত বলি দুঃখচিত্তে করিল গমন । শীঘ্ৰক আমার নাম হৈল সে কারণ ॥ তদন্তরে আর প্রেত কছিল বচন । পূৰ্ব্বজন্মে ছিনু আমি দ্বিজের নন্দন ॥ অযাজ্য যাজক ছিনু লুব্ধ অতিশয় । ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম করিষ্ণু আজ্জিনু ধনচয় । স্থত দার। পরিবার করিয়া পোষণ । ক্রুরমতি ছিনু অতি আশয় কৃপণ ॥ একদিন বলি শাস্ত্র করিতে লিখন । হেনকালে আসে এক অতিথি ব্রাহ্মণ ॥ ক্ষুধাতুর আসি অন্ন মাগিল আমারে। ক্রোধে বহু তিরস্কার করিমু তাহারে ॥ সেই পাপে লেখক হইল মম নাম । শয়ন আসন মম অমঙ্গল ধাম ॥ তদন্তরে অন্য প্রেত বলয়ে বচন । কহিব আমার কথা শুন তপোধন ॥ পূৰ্ব্বজন্মে ছিনু আমি বৈশ্বের নন্দন । মম ঘরে অতিথি আইল একজন ॥ ক্ষুধার্ত হইয় অন্ন মাগিল আমারে । কপট করিয়া আমি পুছিনু তাহারে ॥ তিরস্কার করি অন্ন করি পযুষিত । অল্প অন্ন দিনু নহে উদর পূরিত ॥ সেই পাপে পযুষিত নাম যে খুইল । অদৃষ্টের ফলে মম প্রেতত্ত্ব হইল ॥ অন্ত প্রেত বলে দ্বিজ শুনহ বচন । অল্প দোষে হৈল মম দুৰ্গতি লক্ষণ ॥ সঙ্গদোষে অল্প পাপে পাপ বাড়ে নীতি । মোসবার বিবরণ শুন মহামতি ॥ বিষ্ঠ মুত্র মেচ্ছোদক করি যে ভক্ষণ । শ্মশানে মশানে নিত্য করি যে শয়ন ॥ শেষে নিবাস মম শুন তপোধন । সন্ধ্য বীজমন্ত্রহীন যেইত ব্রাহ্মণ ॥ তাহার শরীরে করি নিয়ত বিহার । আর যাহা করি তাহ শুন সারোদ্ধার ॥ সন্ধ্যাহান যেই গৃহে তৈলের বিহনে । বিহীন যাহার বাড়া তুলসী কাননে ॥ যে যুবতী নিজপতি করি পরিহার। অন্য পুরুষের সঙ্গে করে অনাচার ॥ বাসি বস্ত্র প্রক্ষালন অলিস্তে না করে । বালি ঘরে শোয় আর থাকে অনাচারে ॥ তাহার শরীরে মোরা থাকি অনুক্ষণ । পূৰ্ব্বজন্ম কথা কহি শুন দিয়া মন ॥ শূদ্রের কুলেতে জন্ম আছিল আমার । একদিন কৰ্ম্ম আমি কৈক্ষু দুরাচার ॥ আলস্য করিয়ু গৃহে করিষ্ণু শয়ন। হেনকালে অতিথি আইল একজন ৷ ক্ষুধায় আকুল হৈয়া ডাকিল আমারে । জাগিয়া উত্তর আমি না দিমু তাহারে ॥ উত্তর না পেয়ে শাপ দিল অতিশয়। জন্মান্তরে প্রেত দেহ হুইবি নিশ্চয় ॥ এত বলি অন্য স্থানে করিল গমন । পাঠক আমার নাম হৈল সে কারণ ॥ এত শুনি হৈল মুনি সবিস্ময় মন । পুনরপি জিজ্ঞাসিল কহ প্রেতগণ ॥ কোন কৰ্ম্মে খণ্ডে ছেন দুৰ্গতি লক্ষণ । প্রেতগণ বলে শুন কহি তপোধন ॥ নরযোনি পৃথিবীতে জন্মিয় যে জন । ; জাতি মত কৰ্ম্ম যে করয়ে আচরণ ॥ জাতি জ্ঞাতি বন্ধুগণে করি আবাহন ॥ মিষ্ট অন্ন পান দিয়া করায় ভোজন ॥দরিদ্রে ভিক্ষুকে যেই করে অন্ন দান। তাহার পুণ্যের কথা না হয় বাথান ॥ ব্রত উপবাস করে গোবিন্দ-উদ্দেশে । ༑ ཨཤ་ཅ গোবিন্দ ব্রত আচরে বিশেষে ॥ আলস্ত শয়ন নিদ্রা করিয়া বর্জন । স্বহস্তে করয়ে হরি মন্দির মার্জন ॥ | গোবিন্দের উদ্দেশে করয়ে পুম্পোদ্যান । | গোবিন্দের নাম যেই করে মতিমান ॥