পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৭৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শাস্তিপৰ্ব্ব । - সৰ্ব্বালঙ্কারসংযুক্তং নেমীশ্ৰং দিকৃপতীশ্বরং । ዓማማ দুই দূত আইলেন শরীর স্বন্দর। বন্ধুগণ তাড়নেতে ভয় পেয়ে মনে । বিমান লইয়া তারা জাইল সত্বর ॥ ক্ষুধা তৃষ্ণাযুক্ত হয়ে প্রবেশিল বনে ॥ রথে তুলি যজ্ঞমালী নিল সেইক্ষণ । ভ্ৰমিতে ভ্ৰমিতে শ্রম হইল শরীর । গন্ধৰ্ব্বেতে গীত গায় নৰ্ত্তকে নাচন ॥ দৈবেতে পাইল এক কেশব মন্দির ৷ এইরূপে বৈকুণ্ঠেতে করিল গমন । ! মন্দির সমীপে এক সরোবর ছিল । পথে সুমালীর সঙ্গে হৈল দরশন ॥ ভয়ঙ্কর যমদূত বিকৃতি আকার। পাশে বান্ধি ল’য়ে যায় করিয়া প্রহার ॥ দেখি সবিস্ময় চিত্ত যজ্ঞমালী হ’য়ে । দূতগণে নিবেদিল বিনয় করিয়ে ॥ এই দুষ্ট দূত হৈল কাহার কিঙ্কর । কাহারে প্রহার করে কেব। এই নর ॥ কোথাকারে ল’য়ে যায় কিসের কারণে । বান্ধিয়া লইয়া যায় কোন প্রয়োজনে ॥ যদি দূত জান তবে কহিবা আমারে। এত শুনি বিষ্ণুদূত কহিল তাহারে ॥ এই দুই জন হয় যমের কিঙ্কর । এই যে দেখিছ পাপী তব সহোদর ॥ যতেক অৰ্জিঞ্জল পাপ না হয় এড়ান। বান্ধিয়া লইয়া যায় যম বিদ্যমান ॥ এত শুনি যজ্ঞমালী মানিল বিস্ময়। পুনরপি জিজ্ঞাসিল করিয়া বিনয় ॥ যদি জান দূতগণ কহ বিবরণ। কোন প্রকারেতে এই হয়ত মোচন ৷ দূতগণ বলে এই পাপী দুরাচীর । আছয়ে উপায় এক মুক্তি করিবার ॥ তোমার সদনে আছে যদি কর দান ! পূর্বের্বর কাহিনী কহি কর অবধান ॥ কৌশল নগরে পূর্বে কামিল নামেতে । বেষ্ঠাকুলে জন্ম এক ছিল দুষ্টচিতে ॥ গে। ব্রাহ্মণ বিনাশিয়া হয় দুষ্ট চোর । তাছার পাপের কথা কি কহিব ঘোর ॥ চুরি হিংসা করে আর বেশ্বাপরায়ণ । নানারূপ কুকৰ্ম্ম অধৰ্ম্মি দুষ্টজন ॥ তার ছুষ্টকৰ্ম্ম দেখি যত বন্ধুজন । নগর বাহির করি_দিল সেইক্ষণ ॥ স্নান দান নিত্যকৰ্ম্ম তাহাতে করিল ॥ শ্রম দূরে গেল শান্ত হৈল কলেবর । আশ্রয় লইল সেই মন্দির ভিতর ॥ যত ভস্ম অঙ্গর আছিল ভাঙ্গা ঘরে । পরিষ্কার সে সব করিল নিজ করে ॥ শ্ৰমযুক্ত হয়ে তাহে শয়ন করিল। আয়ুশেষে আসি কাল উপনীত হৈল ॥ গৃহের ভিতর মহাকাল সর্প ছিল। দংশিয়া বৈশ্বোরে সেই বনান্তরে গেল ॥ দৈবের নির্ববন্ধ খণ্ডে যোগ্যতা কাহার। সপের দংশনে মৃত্যু হইল তাহার ॥ দুই দূত সেখানে আইল সেইক্ষণ । মহাপাশে বৈশ্বাপুত্রে করিল বন্ধন ॥ জানিয়া যমের দুষ্ট কৰ্ম্ম গদাধর । আমা দোহে পাঠাইয়া দিলেন সত্বর ॥ সেইক্ষণে করিলাম মোচন তাহার । যমদূতে করিলাম বহু তিরস্কার ॥ সেই পুণ্যে বিষ্ণুর সাহায্যে মুক্তি পায় । পূর্বের কাহিনী এই জানাই তোমায়। গোচৰ্ম্ম প্রমাণ বিষ্ণু মন্দির মার্জনে । উদ্ধারহ নিজ ভ্রাত; দিয়া পুণ্যদানে ॥ | এত শুনি যজ্ঞমালী অনিন্দিত মনে । স্থমালীরে পুণ্যদান দিল সেইক্ষণে ॥ পুণ্যের প্রভাবে সব পাপ হৈল ক্ষয় । যমদূত প্রতি তবে বিষ্ণুদূত কয় ॥ ভ্ৰাতৃ পুণ্যফলে এই পাইল নিস্তার । ছাড়হ ইছারে তোরা আরে দুরাচার ॥ ইহার উপরে তোর নাহিক শাসন । এত বলি মুক্তি করি দিল সেইক্ষণ ॥ যজ্ঞমালী শুনি তবে স্তন্ধচিত্ত হৈয়া । উভয়ে বৈকুণ্ঠে গেল বিমানে চাপিয়া ॥