পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অশ্বমেধপর্ব । ] হাসিয়া অর্জন বলে যুদ্ধ তোর সনে । একথা জানিলে হাসিবেক ক্ষত্ৰগণে ॥ বিবাদ করিব আমি বালক সংহতি । যুঝিবে তোমার সঙ্গে মম সেনাপতি ॥ অৰ্জুনের বাক্য রোষে রাজার কুমার, আকৰ্ণ পুরিয়া দিল ধনুকে টঙ্কার ॥ এত শুনি অগ্নিদেব-প্রবেশিল রণে । অর্জন কটক সব দহিল আগুনে । দেখিয়া অৰ্জুন কহিছেন বৈশ্বানরে। ক্ষমা করি অগ্নি হও সদয় আমারে ॥ খাণ্ডব দহিয়া আমি ভূষিমু তোমারে । অক্ষয় কবচ তুমি দিয়াছ আমারে ॥ এখন শত্রুত কর কিসের লাগিয়া । মিনতি করিয়া বলি যাহ নিবৰ্ত্তিয় ॥ অশ্বমেধ করিবেন পাণ্ডুর নন্দন । তাহাতে করিবে তুমি আহুতি ভক্ষণ ॥ অৰ্জুন বচনে অগ্নি সম্প্রীতি পাইল । তেজ নিবারণ করি অৰ্জ্জুনে তুষিল ॥ অগ্নির পাইয়া আজ্ঞ বীর ধনঞ্জয় । এড়িলেন বরুণাস্ত্র হইয়া নির্ভয় ॥ নিৰ্ব্বাণ হইল অগ্নি সলিল পরশে । মন্দানল হয়ে গেল নৃপতির পাশে ॥ ভয়ে ভঙ্গ দিল ষত নৃপ সেনাগণ । আপনি পলায় রাজা পরিহরি রণ ॥ প্রবীর রাজার পুত্ৰ আছিল পশ্চাতে । দেখিয়া অৰ্জ্জুনে সেই আইল ত্বরিতে ॥ অৰ্দ্ধচন্দ্রবাণে তার মুণ্ড কাটা গেল । প্রবীর রাজার পুত্র ভূমিতে পড়িল ॥ পুত্ৰশোকে নীলধ্বজ বিরস বদন । ভঙ্গ দিল মনোদুঃখ পাইয়া রাজন ॥ নীলধ্বজে কহে অগ্নি মধুর ভারতী । মর্জনে জিনিতে নাছি তোমার শকতি ॥ আমার বচনে তুমি পরিহর রণ । মনুষ্য না হয় পার্থ নর-নারায়ণ ॥ আমি অগ্নি শুন রাজা পাগুবের পক্ষ । পাণ্ডবের সখ্যকরি না করি জলখ্য। . সূৰ্য্যাস্তং সিংহগং লৌম্যং পীতবস্ত্রং তথাহীয়েৎ । RSS তুরগ জপিয়া তুমি দ্রুত কর প্রীতি । রাজ্য প্রজা রক্ষা পাবে শুন নরপতি ॥ নহেত" অসাধ্য বড় হইবে দুষ্কর। রাখিতে নারিব আমি শুন নৃপবর ॥ জামাতার বাক্য শুনি নীলধ্বজ রায় । অশ্ব আনিবার তরে অন্তঃপুরে যায় ॥ পুত্ৰশোকে নৃপতির অন্তর জর্জর । নয়নে সলিল-ধারা বহে নিরস্তর ॥ বিরস বদনে রাজা গেল অন্তঃপুরে । । কহিল সকল কথা প্রিয়ার গোচরে ॥ ংগ্রামে পড়িল পুত্র সমাচার পেয়ে । ক্রন্দন করেন রাণী অচেতন হ’য়ে ॥ কোথা সে প্রবীর বলি কঁদে নরপতি । পুত্ৰশোকে অচেতন জন গুণবতী ॥ নৃপতি বলেন তুমি না কাদিও আর । অশ্ব দিয়া রাজ্য আমি রাখি আপনার ॥ ছিলাম পুরুষ আমি, হইলাম নারী । এ সব ঈশ্বরলাল বুঝিতে ন পারি। সম্প্রীতি করিব আমি অর্জুনের সনে । সংগ্রামে মরিল পুত্ৰ কাৰ্য্য নাছি রণে ॥ জনা বলে কি কথা কহিলে নরপতি । শত্ৰু সঙ্গে কেমনেতে করিবে পিরাতি ॥ প্রবীরে মারিয়া সে হইল মোর অরি। তার সঙ্গে প্রীতি কর কহিতে না পারি ॥ সাহস করিয়া তুমি কর গিয়া রণ। অৰ্জুনে নাশিয় কর শোক নিবারণ ॥ নীলধ্বজ রাজা বলে শুন রূপবতী । জামাতা হ্যারল রণে অৰ্জ্জুন সংহতি ॥ যার বাহুব.ল আমি জিনি সবাকারে । স্থির হতে নারে সেই অৰ্জ্জনের শরে ॥ তুমি কি বুঝাবে নীতি সব আমি জানি । পাণ্ডবের সহায় আপনি চক্রপাণি ॥ প্রীত করে ভার সনে অশ্ব সমপিয়া । অশ্বরক্ষl uহতু প্রয়ে বি গোড়াইয়া ॥ শুনি ভাহা জনা বলে ধিক্ বীরপণ । রহিল ঘুষিতে অপযশের ঘোষণা ॥