পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ե8Ե ইছা জানি বৃকোদরে ত্যজহ আক্রোশ । যুধিষ্ঠির প্রতি তুমি নহ অসন্তোষ । তোমারে বিমন যদি শুনে ধৰ্ম্মরায় । এইক্ষণে আসিয়া পড়িবে তব পায় ॥ তুমি অসন্তোষ যদি হও নরপতি । . রাজ্য ত্যজি বনে যাবে ধৰ্ম্ম নরপতি ॥ তাহারে প্রসন্ন ভাব হও নরনাথ ॥ এত বলি বিস্তুর করিল প্ৰণিপাত ॥ পুনরপি ধৃতরাষ্ট্র সকরুণে কয়। যুধিষ্ঠিরে ক্রোধ মম কদাচিত নয় ॥ আমি ধৃতরাষ্ট্র রাজা বিখ্যাত ভুবনে । মহাধনুৰ্দ্ধর পুত্র একশত জনে ॥ সকল সংহীর মম করে যেইজন । তাহার পালিত হ’য়ে রাখিব জীবন ॥ ধিক্ ধিক্ জীবনে এমন ছার আশ । ংসার যুড়িয়া লজ্জা লোকে উপহাস 1. দ্বিতীয় বাসব মম পুত্র দুর্য্যোধন । ভগছা বিনা পাপ প্রাণ রহে এতক্ষণ ৷ এইরূপে শোচনা করিয়া বহুতর । পুনঃ বিছরের প্রতি করিল উত্তর ॥ অবধান কর ভাই বচন আমার ! যে বিধান চিত্তে আমি করেছি বিচার । রাজ্যমুখ ভোগ নানা করিমু বিস্তর । মম সম স্থখ নাহি ভুঞ্জে কোন নর ॥ অতঃপর চিত্তে সে সকল ক্ষমা দিব । বনবাসে গিয়া আমি যোগ আরম্ভিব ॥ রাজনীতি ধৰ্ম্ম হেন আছে পূৰ্ব্বাপর। শেষকালে প্রবেশিবে অরণ্য ভিতর ॥ অবশেষ কাল মম হৈল উপনীত । যোগ ধৰ্ম্ম আচরণ হয়ত বিহিত ॥ সত্য সত্য বনে যাব নাহিক সংশয় । যোগ আচরিব গিয়া কহিমু নিশ্চয় ॥ বিছুর বলেন রাজ কর অবধান । যতেক কহিলে সত্য কভু নহে আন ॥ রাজা হ’য়ে শেষকালে যাব বনবাস । যোগ আচরিব গিয়া করিয়া সন্ন্যাল । শ্চভূধিষ্ঠ মহাভারত। ' বেদের বচন ইথে নাহিক সংশয় । কিন্তু এক কথা কহি শুন মহাশয় ॥ আপনি বৃদ্ধক অতি শরীর দুর্বল । | শোকাতুর অন্ধ তব নয়ন যুগল ॥ অভ্যন্তর যেতে তব নাহিক শকতি । ঘোর বনে কিমতে পশিবে নরপতি ॥ ভয়ঙ্কর বনজন্ত সিংহ ব্যাঘ্রগণ । প্রলয় মহিষ গজ ঘোর দরশন ॥ কিমতে রহিবে তথা তাহ মোরে কহ । আর তাহে মহারাজ চক্ষে না দেখহ ॥ অপমৃত্যু হয় পাছে এই বড় ভয় । এই হেতু ইথে মোর চিত্তে নাহি লয় ॥ সে কারণে কহি আমি শুন মহারাজ । গৃহাশ্রমে থাকিয় না হয় কোন কাজ ॥ দ্বিজগণে দান দেহ বহুবিধ ধন । প্রবাল মুকুতা মণি রজত কাঞ্চন ॥ ভূমিদান অন্নদান আর নানা দান । ; অম্ল দান নহে অন্য দানের সমান ॥ যাহা ইচ্ছা দান কর আপনার মনে । কৃষ্ণপদ চিন্তা কর বসিয়া নির্জনে ॥ সৰ্ব্ব কাৰ্য্য সিদ্ধ যবে হবে এইমতে । পাইবা উত্তম গতি শুন নরপতে ॥ ধৰ্ম্মের নন্দন দেখ রাজা যুধিষ্ঠির । ভ্ৰাতৃ মন্ত্রী বন্ধুশোকে আকুল শরীর ॥ তোমার সেবন হেতু করে গৃহবাস । তোমার এ মতি শুনি হইবে নিরাপ ॥ তোমা বিনা সকল ত্যজিবে ধৰ্ম্মরায় । ব্রহ্মচৰ্য্য আচরি কাননে পাছে যায় ॥ এই হেতু রাজা আমি কহি যে তোমায় । গৃহাশ্রমে রহি গতি চিন্তা কর রায় ॥ ইহা বিন উপায় নাহিক, রাজা আর । মম চিত্তে লয় রাজা এই তো বিচার ॥ ধৃতরাষ্ট্র কহে তুমি পরম পণ্ডিত । তোমার বচন খ্যাত বেদের বিহিত ৷ যতেক কহিলে কিছু না হয় বিধান । কিন্তু এক কথা কহি কর অবধান ।