পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ե-(t 8 শুক্লাস্বরধরং শ্ৰীগৌরংভক্তি লম্পট মানসং ॥ [ মহাভারত । এইরূপ নৃপতিরে কহে সৰ্ব্বজন । শুনিয়া ভাবিত চিত্ত ধৰ্ম্মের নন্দন ॥ দিবfরাত্রি কান্দিলেক মাদ্রীর তনয় । শরীর ত্যজিবে দোহে হেন মনে লয় । কোনমতে প্রবোধ না হয় দুই ভাই । পুরজন আদি সবে কাতর সবাই ॥ অন্যমতে না হইবে শোক নিবারণ। জ্যেষ্ঠতাত নিকটেতে যাইব কানন ॥ সবারে কাতর দেখি পাণ্ডবের পতি । বাহুড়িয়া আসিবেন হেন লয় মতি ॥ কদাচিত বাহুড়িয়া যদি না আইসে । সেইরূপে সবাই রহিব তারপাশে ॥ এইরূপ অনুমানি ধৰ্ম্মের নন্দন । সবারে আশ্বাস্তু করি প্রবোধিয়া কন ॥ শোক দুঃখ ছাড়ি সবে স্থির কর মন । সেই বনে সবে মোরা করিব গমন ॥ রাজার বচনে সবে তুষ্ট হ’য়ে মনে । সেইক্ষণে বাহির হইল সৰ্ব্বজনে ॥ যুধিষ্ঠির পঞ্চ ভাই দ্ৰৌপদী সছিত । * ভীমসেন স্বভাদ্রা উত্তর পরীক্ষিত ॥ ধৃতরাষ্ট্র বধূগণ দুঃশলা স্থনরী। লিখনে না যায় যত চলে নরনারী ॥ ত্ৰিবিধ বাহনে চলে আর পদব্রজে । পঞ্চম শবেদতে তাহে নানা বাদ্য বাজে ৷ পূৰ্ব্বেতে ভারত-যুদ্ধে সৈন্যের সাজনি । তেমনি সাজিল অষ্টাদশ অক্ষৌহিণী ॥ তাহা সবাকার ছিল যত নারীগণ । সবাই চলিল ধৃতরাষ্ট্র দরশন ॥ অষ্টাদশ অক্ষৌহিণী হেন অনুমানি । মহারোলে কম্পমান হইল মেদিনী ॥ হেনমতে ধৰ্ম্মরাজ চলিল ত্বরিত । দ্বৈপায়ন কাননেতে হৈল উপনীত ॥ গঙ্গাজলে স্নান করি প্রবেশি কাননে । চলিলেন পঞ্চভাই সছ নারীগণে ॥ বসিয়াছে ধৃতরাষ্ট্র কুটার ভিতর । মৌনভাবে একাসনে যুড়ি দুই কর o, - প্ৰণমিয়া পঞ্চভাই অন্ধের চরণে । জ্যেষ্ঠতাত বলিয়া ডাকেন পঞ্চজনে ॥ সমাধি ত্যজিয়া অন্ধ শুনিবারে পায় । কে তুমি বলিয়া জিজ্ঞাসেন কুরুরায় ॥ শুনি যুধিষ্ঠির কহিলেন সবিনয় ॥ তব ভূত্য যুধিষ্ঠির শুন মহাশয় ॥ । এত শুনি অন্ধ যুধিষ্ঠিরে কোলে নিল । অঙ্গে হাত বুলাইয়া শুভ জিজ্ঞাসিল ॥ কহু তাত পুরের কুশল সমাচার । কুশলে আছেতো সব বন্ধু পরিবার ॥ যুধিষ্ঠির বলিলেন কি কহিব আর । তোমার সাক্ষাতে এই সব পরিবার ॥ তোম না দেখিয়া সব হৃদয় বিদরে । আপনি রহিল আদি কানন ভিতরে ॥ কহ তাত কোথা মম গান্ধারী জননী । কোথা কুন্তী মাতা মোর ভোজের নন্দিনী । খুল্লতাত কোথায় বিন্ধুর মহাশয় । র্তা সবারে না দেখিয়া প্রাণ বাহিরায় ॥ এত শুনি কহিতে লাগিল কুরুপতি । ও কুটীরে তব মাতা গান্ধারী সংহতি ॥ বিদুরের সমাচার নিশ্চয় না জানি । জীয়ে কি ন জীয়ে ভাই ক্ষতা গুণমণি ॥ অনশন ব্রত করি ত্যজিয়া আহার । ! একেশ্বর গেল ক্ষত্ত নিকটে গঙ্গার ॥ চারিদিন আমা সহ নাহি দরশন । জীয়ে কি ন জীয়ে ভাই কর অন্বেষণ ॥ শুনিয়া আকুল ধৰ্ম্মপুত্র যুধিষ্ঠির । চলিলেন গঙ্গাতীরে অন্তরে অস্থির } গঙ্গাতীরে বটমূলে দেখি একেশ্বর । | দীর্ঘ জটাভার পড়িয়াছে পৃষ্ঠোপরে ॥ করপুটে বসিয়া আছেন মহাশয় । প্রণাম করেন গিয়া ধৰ্ম্মের তনয় ॥ আছে কিনা আছে প্রাণ না জানি নিশ্চ: | উচ্চৈঃস্বরে ডাকে পঞ্চ পাণ্ডুর তনয় ॥ ওহে খুল্লতাত বলি ডাকে ঘন ঘন । কৃতাঞ্জলি করি ডাকে ভাই পঞ্চজন ॥