পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৮৬- কুৰ্ম্মপৃষ্ঠাভগাত্রং। রম্যারামবৃতং সন্মণিকণক মহালয়সবৈ পৰীতং মহাভারত। অতি হৃষ্টচিত্ত হৈয়া ভাই পঞ্চজন । সম্ভাষিয়া তোষেণ যতেক বন্ধুগণ ॥ নিজ মিজ পতি দেখি যত নারীগণ । সন্ত্রমে পতির পাশে আইল তখন ॥ হরষিত হ’য়ে স্বামী বসাইল পাশে । ইষ্টকথা আলাপনে সবারে সম্ভাষে ॥ দুৰ্য্যোধন পাশে বসি ভানুমতী নারী। তনয় লক্ষণ কোলে করিল সুন্দরী ॥ দুঃশাসন সহ উনশত ভাই আর । নিজ নিজ পত্নী লৈয় বসে যে যাহার ॥ এমত প্রকারে সবে বঞ্চিল রজনী । নহিল নহিবে হেন অপূৰ্ব্ব কাহিনী ॥ এইরূপে হৈল সব তাপ বিমোচন । সাধু সাধু মুনিবর কহে সৰ্ব্বজন ॥ মনোগত নারীগণে ভাবয়ে হৃদয় । এমত রজনী যেন প্রভাত না হয় ॥ পাছে পুনঃ স্বামীসনে হয়ত বিচ্ছেদ । এই হেতু সবার হৃদয়ে বাড়ে খেদ । চাপিয়া চরণে ধরে নিজ নিজ পতি । দেখিয়া ব্যথিত হৈল যত মহামতি ॥ মুনিবাক্য শুনি তবে আনন্দ অপার । দৃঢ় করি ধরে সব স্বামী আপনার ॥ তবে ধৃতরাষ্ট্র স্থানে বলি পঞ্চজনে । বিদায় মাগিল সবে অন্ধের চরণে ॥ শোকেতে কান্দেন অন্ধ গান্ধারী সহিত । বিচ্ছেদ করিতে আর না হয় উচিত ॥ দেখিয়া সকলে তবে প্রবোধিয়া কয় । অকারণে শোক কেন কর মহাশয় ॥ কত দিন বনে যোগ কর আচরণ । অচিরে পাইবে আমা সবার দর্শন ॥ ধৃতরাষ্ট্র গান্ধারী সহিত ভোজস্থত । পঞ্চ ভাই পাণ্ডুপুত্র দ্রুপদ-দুহিতা ॥ সবারে প্রৰোধ করি মাগিল বিদায় । নিজ নিজ পত্নীগণে লৈয়া সবে যায় ॥ উত্তর মৃন্দরী যায় অভিমনু সাথে । খি যুধিষ্ঠির রাজা লাগিল চিন্তিতে ॥ কহিলেন ব্যাসপদে করিয়া প্ৰণতি । উত্তর চলিল অভিমমু্যর সংহতি ॥ মাতৃহীন হইবেক রাজা পরীক্ষিত । উত্তরারে যাইবারে না হয় উচিত ॥ যুধিষ্ঠির বাক্য শুনি চিন্তিত হৃদয় । উত্তরারে রাখিলেন মুনি মহাশয় ॥ " অপর সকল নারী স্বামীর সংহতি । স্বৰ্গপুরে চলে সবে পতিব্ৰতা সতী ॥ ংসারের মায়া কেহ না করিল আর । মুনির প্রসাদে ভবসিন্ধু হৈল পার ॥ হেনমতে অবশেষ হইল রজনী । দশদিক প্রসন্ন প্রকাশে দিনমণি ॥ দিব্যজ্ঞান জন্মে সব পাপের বিনাশ । আশ্রমিক পৰ্ব্ব কথা কহে কাশীদাস । যুধিষ্ঠিরাদির হস্তিনীয় গমন ও তপোবনে ধৃতরাষ্ট্রাদির যজ্ঞাগ্নিতে দাহ । মুনি বলে শুন জন্মেজয় নরনাথ এইরূপে হইল সে রজনী প্রভাত । যুধিষ্ঠির প্রতি কন ব্যাস তপোধন হস্তিনানগরে রাজা করহ গমন ॥ না ভাবিহ শোক দুঃখ হৃষ্টচিত্ত হৈয় । ভ্রাতৃসঙ্গে রাজ্যের পালন কর গিয়া ! ধৃতরাষ্ট্র কুন্তী আর গান্ধারী সঞ্জয় । সবারে বিদায় করে মুনি মহাশয় ॥ প্রদক্ষিণ করি সবে মুনিরে বন্দিল । সন্তুষ্ট হইয়া মুনি নিজ স্থানে গেল ॥ তবে ধৰ্ম্ম নরপতি সঙ্গে ভ্রাতৃগণ । ধৃতরাষ্ট্র গান্ধারীর বন্দেন চরণ ॥ আশীৰ্ব্বাদ কৈল দোহে প্রসন্ন বদন । ওহে তাত নিজ রাজ্যে করহ গমন ॥ কুরুকুলে তোমা বিনা কেহ নাছি আর । তুমি পিণ্ড দিবে আশা আছে সবাকার ॥ ভুবনে অপূর্ব তাত তোমার চরিত্র। তোমা হৈতে কুরুকুল হইবে পবিত্র ॥