পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৮৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মুষলপৰ্ব্ব । ] বৈষ্ণবীর ধ্যান—শঙ্খচক্ৰগদাশঙ্গ-শিরশচন্দ্রেণ ভূষিত । অচিরে অর্জন সেই কৃষ্ণকে পাইবে । প্রিয়জন স্মরণেতে সতত চিন্তিবে ॥ নিকটে থাকুিতে র্তারে যত ভক্তি ধরে। শত কোটি ভক্তি হয় থাকিলে অন্তরে ॥ জানিয়া অৰ্জ্জুন তুমি স্থির কর মন । গৃহেতে গমন কর জানিয়া কারণ ॥ পুনশ্চ বলেন পার্থ শুন মহাশয় । এক কথা কছি, মোর খণ্ডাও বিস্ময় ॥ দৈত্য হরি লইল প্রভুর নারীগণ । ইহার কারণ তুমি কহ তপোধন ॥ পূৰ্ব্বপুণ্যে কৃষ্ণ পতি পাইল স্ত্রীগণ । সদাকাল সেবিলেক শ্ৰীকৃষ্ণ-চরণ ॥ তাহা সবাকার কেন হৈল হেন গতি । কহিবে ইহার হেতু মুনি মহামতি ॥ অৰ্জ্জুনের বাক্য শুনি কহিলেক মুনি । কার শক্তি হরিবেক শ্ৰীকৃষ্ণ-রমণী ॥ পূর্বের্বর বৃত্তান্ত কহি শুন ধনঞ্জয় । বিদ্যাধরীগণ ছিল ইন্দ্রের আলয় ॥ প্রভুর প্রকাশ যবে হইল অবনী । তাহা সবাকারে আজ্ঞা কৈল পদ্মযোনি ॥ পৃথিবীমণ্ডলে জন্ম লহ গিয়া সবে । ভাগ্য পুণ্যফলে সবে কৃষ্ণ পতি পাবে ॥ লক্ষমা অংশ পেয়ে হবে লক্ষীর সমান । ভক্তিতে করিবে বশ বিষ্ণু ভগবান ॥ বিধির আদেশ সৰ্ব্ব কন্যাগণ লৈয় । পৃথ্বীতে চলিল সবে হৃষ্টমতি হৈয়া ॥ স্নান করিবারে গেল পুণ্যনদী তীরে । অষ্টাবক্র নামে মুনি তথা তপ করে ॥ ভক্তি করি কন্যাগণ প্রণতি করিল। ইষ্ট হৈয়া মুনিবর আশীৰ্ব্বাদ দিল ॥ পৃথিবীতে গিয়া সবে পাবে কৃষ্ণ পতি । নোবাঞ্ছা পূর্ণ হবে শুন গুণবতী ॥ আশীৰ্ব্বাদ লাভ করি চলিল রমণী । ইনকালে জল হৈতে উঠে মহামুনি ॥ ট ঠাই কুজ বক্র খৰ্ব্ব কলেবর। দযুগ বঙ্কিম, বঙ্কিম দুই কর । - শ্রবণ নাসিক চক্ষু সব বিপরীত । দেখিয়া অপূৰ্ব্ব সব হইল বিস্মিত ॥* মুনিরূপ দেখি সবে উপহাস কৈল। তাহা শুনি মুনিবর কুপিয়া কহিল ॥ আমি দেখি উপহাস কর নারীগণ । সে কারণে শাপ দিব শুন সৰ্ব্বজন ॥ পৃথিবীতে গিয়া সবে কৃষ্ণে পতি পাবে। এই অপরাধে সবে দৈত্য হরি লবে ॥ মুনির বচনে সবে কম্পিত শরীর । নিবেদন করে তবে চরণে মুনির ॥ অবলা স্ত্রীজাতি মোর সহজে চঞ্চল । ক্ষম অপরাধ মুনি দেখিয়া অবলা ॥ প্রসন্ন হইয় কর শাপ বিমোচন । ধৰ্ম্মে মতি রন্থ আজ্ঞা কর তপোধন ॥ তুষ্ট হয়ে পুনরপি মুনিবর কহে । কছিলাম যে কথা সে কভু ব্যর্থ নহে ॥ অবশ্য হরিবে দৈত্য না হবে এড়ান । দৈত্যের পরশে সবে হইবে পাষাণ ॥ পূর্বের বৃত্তান্ত এই জানাই তোমায় । কন্যাগণে দৈত্য হরে এই অভিপ্রায় ॥ পাষাণ হইল তারা দৈত্যের পরশে । প্রভুর রমণীগণ গেল তার পাশে । না ভাবিও চিত্তে দুঃখ চল নিজ ঘরে । ভোগ অভিলাষ ত্যজি ভজহু কৃষ্ণেরে ॥ এত বলি অর্জুনেরে দিলেন বিদায় । প্ৰণমিয়া ধনঞ্জয় যান হস্তিনায় ॥ i I | ! | o t i . | | f $ মহাভারতের কথা অমৃত সমান । কাশীরাম দাস কহে শুনে পুণ্যবান ॥ অৰ্জ্জুন কত্ত্বক যুধিষ্ঠিরের নিকট ঘছকুল নাশের কথা । জন্মেজয় কহে তৰে শুন তপোধন । অতঃপর কি হইল কহ ৰিবরণ ॥ পাণ্ডুপুত্র পঞ্চভাই শ্ৰীকৃষ্ণ বিয়োগে । কিমতে ধরিল প্রাণ এত শোক ভোগে ৷ বিশেষিয়া কহ মুনি মহাশয় মোরে । এ তাপ খণ্ড ও মম মনের ভিতরে ॥