পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

কৃষিতত্ত্ব। Q বস্তুর সারাংশ জীবসৈকলের শরীরে প্রবিষ্ট হইয়া শরীর বদ্ধন এবং পুষ্ট করে। ধাতু হইতে যে সারা হয়, তাহাতে উদ্ভিদের কোন অংশ দেখিতে পাওয়া যায় না। কিন্তু সকল ধাতুর আকর স্থান স্মৃত্তিকাতে স্বাভাবিক স্থিরাংশ (সার) আছে, সেই সারের অংশ ধাতুতে থাকা অসম্ভব নয় । সুতরাং ধাতু দ্বারা যে সারা প্ৰস্তুত হয়, তাহাও উদ্ভিদ সম্বন্ধীয় সার বিবেচনা করা যাইতে পারে । সার প্রস্তুত করিবার প্রক্রিয়া । উদ্ভিদের অঙ্গ, প্ৰত্যঙ্গ, পত্ৰাদি একত্র সংগ্ৰহ করিয়া জলযুক্ত কোন নিম্ন স্থানে রাখিবে। গো-শালার নিকট কোন নিম্ন ভূমি যাহাতে গো সকলের প্রস্রাব গড়িয়া পড়িতে পারে, অথবা পড়িবার উপায় করিয়া দেওয়া যাইতে পারে, এমত স্থানে রাখিলে আরো ভাল হয়। ঐ প্রকারে তাহা রাখিলে পর ক্ৰমে তাহা উত্তমরূপে পচিয়া গেলে মৃত্তিকার সহিত মিশাইয়া সারের কাৰ্য্যে ব্যবহার করিবে। এই সারা প্ৰস্তুত হইতে অধিক সময় লাগে। মৃত্তিকার সহিত মিশ্রিত এই সারকে ফাস মাটি বলে। উল্লিখিত সারা অতি উত্তম কিন্তু বড় বড় বৃক্ষের গোড়ায় দিলে এক প্রকার কীট জন্মিয় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র শিকড় সকল কাটিয়া ফেলিবার আশঙ্কা আছে। বোদমাটি এক প্রকার সার। ইহা পুষ্করিণী আদি খনন করিবার সময়ে অধিক মৃত্তিকার নীচু হইতে উখিত হয়। উহা দেখিতে কৃষ্ণবর্ণ মৃত্তিকার ন্যায়। এ সার বহুকালের উদ্ভিদ পচা মাত্ৰ । সকল সার অপেক্ষ এই সার উত্তম, এবং সকল উদ্ভিদের নিমিত্ত ব্যবহার করা যাইতে পারে। মনুষ্য পশ্বাদির অস্থি সারের কাৰ্য্যে ব্যবহার করিতে ইচ্ছা হইলে ইহা উত্তম চূর্ণ করিয়া ক্ষেত্রে বা বৃক্ষের মূলে দিতে হয়, এবং মাংস রক্ত নাড়ী ভুড়ি আদি মৃত্তিকার নীচে পুতিয়া রাখিলে পচিয়া সারা হয়। এ সারও অতি উত্তম এবং ক্ষেত্রে কি বৃক্ষমূলে দিলে অধিক কাল উৎ পাদিকা শক্তি রক্ষা করে । ধাতুসার প্রায় এ দেশে ব্যবহার হয় না। কেবল চূণ, লবণ, শোরা কথঞ্চিৎ ব্যবহার হয় ।