পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

R8 কৃষিতত্ত্ব । অন্য সকলে দুই ঘণ্টা না হইলে উঠিবে না । এরূপ ঘটনা হইলে কৃষিকাৰ্য্যের সম্পূর্ণ ব্যাঘাত জন্মে। পরদিবস যে সকল কাৰ্য্য করিতে হইবে, পূৰ্ব্ব দিবস রাত্ৰিতে চিন্তা করিয়া তাহা অবধারণ এবং তাহার যোগাড় করিয়া রাখিবো। প্রত্যুষে উঠিয়া যথা সময়ে সেই সকল কাৰ্য্য সম্পাদনা করিবে ও করাইবে। প্ৰাতঃকালে গো-সকলকে কিঞ্চিৎ আহার করাইয়া কর্ষণ কাৰ্য্যে প্ৰবৃত্ত করাইবে, এবং কর্ষণের কাৰ্য্যান্তে সম্পূর্ণ আহারীয় বস্তু দিবে। কর্ষণসম্বন্ধীয় যন্ত্র সকলের প্রতি সৰ্ব্বদা দৃষ্টি রাখিবে, যখন যে যন্ত্র অপরিাস্কৃত কি ভগ্ন দেখিবে, তখনই তাহার সংস্কার করিবে। গোময় ও ছাই ইত্যাদি যাহা দ্বারা সার হইতে পারে, এমত বস্তুসকল জঘন্য বস্তু মনে করিয়া অযত্নে রাখিয়া নষ্ট করিবে না । ঐ জঘন্য বস্তুসকলই কৃষিকাৰ্য্য সাধনের প্রধান অবলম্বন। রক্ষিত বীজ সকল সযত্নে এবং সদ্যবস্থায় আছে কি না মধ্যে মধ্যে স্মরণ করিয়া দেখিবে । কোন ক্ষেত্রের উৎপাদিকা শক্তি কি প্রকার আছে, এবং কি পরিমাণ হ্রাস হইয়াছে সৰ্ব্বদা অনুসন্ধান করিবে। ক্ষেত্রের উৎপাদিকা শক্তি হ্রাস হইতেছে এমত বোধ হইবা মাত্র যথা সময়ে উপযুক্ত মত সারা দিয়া উৎপাদিকা শক্তি রক্ষা করিবে । উৎপাদিক-শক্তিবিহীন অনুর্বর ক্ষেত্ৰ সকলের উৎপাদিকা শক্তি জন্মাইবার নিমিত্ত যথোচিত যত্ন ও উপায় করিবে । বর্ষা সময় ক্ষেত্রে অধিক জল আসিয়া শস্য নষ্ট করিবার আশঙ্কা থাকিলে বর্ষ। আসিবার পূর্বেই অধিক জল ক্ষেত্রে আসিতে না পারে। এমত বিবেচনা করিয়া বাধ বান্ধিবে। জলের অভাব বশতঃ যে সকল ক্ষেত্র আবাদ না হয় অথবা সময়মত প্রাকৃতিক ঘটনা ক্ৰমে বৃষ্টি না হওয়াতে আবাদের হানি হইবার সস্তাবনা হয়, খাল কাটিয়া সে সকল ক্ষেত্রে জল আনিবার চেষ্টা করিবে । বাঁধ দেওয়া কি খাল কটাদি কাৰ্য্য একজন কৃষকের সাধ্যায়ত্ত নহে, ইহা সত্য, দশজন মিলিত হইলে কিছুই অসাধ্য হয় না, অতএব সৰ্ব্বদা গ্রামের