পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

". r/ হাতে লইলে অ { লাঙ্গল স্পর্শ করিতে নাই। ঐ সকল বালক উচিতামত ? প্রাপ্ত হয় না, অথচ কৃষিকাৰ্য্য করিতে ক্লেশ এবং অপমান বোধ করে। সকল পাঠশালায় লেখা পড়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি কৃষিবিদ্যার শিক্ষা দেওয়া চাহা হইলে বোধ হয়, উহাদের কৃষিকাৰ্য্যের প্রতি অনাদর হয় না। দেশে কৃষিকাৰ্য শিক্ষার অন্য উপায় নাই, কেবল শিশুকাল হইতে পিতামহাব্দির মুখে শুনিয়া ও স্বহস্তে কৃষিকাৰ্য্য করিয়া শিক্ষিত হইতে যে সকল বালক পাঠশালায় লেখা পড়া করিতে যায়, তাহদের সেই ীিক কৃষিশিক্ষার সময় অতীত হইয়া যায়। বিশেষতঃ শৈশব হইতে শীত তান্তপাদি-সহিষ্ণু না হইলে পরে তাহ নিতান্ত অসহনীয় এবং ক্লেশবার ‰ካ 懿岱 হয়। সুতরাং পাঠশালার শিক্ষা ঐ সকল বালকের উভয় কুল বিনাশের কারণ যে প্রকার দুর্ভিক্ষের প্রাদুর্ভাব দেখা যায়, তাহাতে ক্ৰমে কৃষকের সংখ্যা কৃষিকাৰ্য্যের উন্নতি যাহাতে হয় এমন যত্ন করা সাধারণের এবং ہند চুইবে না, সঙ্গে সঙ্গে স্বহস্তে কৃষিকাৰ্য্য করিবার এবং শীতবাতাতপাদি * হইবার নিমিত্ত উৎসাহ ও সময় দেওয়া অতি কৰ্ত্তব্য। ! বিষয়ে এ পৰ্যন্ত বঙ্গভাষায় যে কয়েকখানি পুস্তক প্ৰকাশ হইয়াছে, টুতে এতদ্দেশের লোকের সর্বদা প্রয়োজনীয় কৃষি সম্বন্ধে কিছুই লেখা ঞ্জিাই, তদ্বিষয়ে একখানি পুস্তক লিখিবার নিমিত্ত আমার একান্ত বাসনা হয়, কিন্তু পুরাতন কোন পুস্তক না পাইয়া, কিয়দিবস হতাশ হইয়া ছিলাম। তদনন্তর প্রাচীন অথচ কৃষিকাৰ্য্যদক্ষ বহুতর কৃষকের সহিত কথােপকথন টুকরিতে করিতে মনে হইল, এই সকল কথা পুস্তকাকারে লিখিলে একখানি কি হইতে পারে, এই চিন্তা করিয়া নানা স্থান হইতে উপযুক্ত কৃষক আন驟*鯊 > *নিষ্ঠকারিয়া সেই সকল লোকের নিকটে যতদূর অবগত হইয়াছি এবং স্থানে ফুলনে পত্র লিখিয়া যে সকল তত্ত্ব জানিতে পাবিন্যাদি ও স্বযং ক্লষিকাৰ্য্য