পাতা:কৃষ্ণচরিত্র.djvu/১৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 * কৃষ্ণচরিত্র 3. রাকারো নিশ্চলাং ভক্তিংগ্ৰাপ্তং কৃষ্ণপায়ুজে। সৰ্ব্বেলিতং সঙ্গানাং সৰ্ব্বসিদ্ধৌঘমীশ্বর ॥ ১৮ ধকার সহবাসঞ্চ তত্ত্ব ল্যকালমেব চ। জাতি সাষ্ট্রং সান্ধপ্যং তত্ত্বজ্ঞানং হরে সমমূ। ১৯৯ ॥" ব্রহ্মবৈবৰ্ত্তপুরাণমূ, শ্ৰীকৃষ্ণজন্মখণ্ডে ১৩ জঃ । - ইহার একটিও রাধী শব্দের প্রকৃত ব্যুৎপত্তি নয়। রাধ, ধাতু আরাধনার্থে, পূজার্থে। যিনি কৃষ্ণের আরাধিক, তিনিই রাধা বা রাধিক। বর্তমান ব্রহ্মবৈবর্তে এ ব্যুৎপত্তি কোথাও নাই। যিনি এই রাধা শব্দের প্রকৃত ব্যুৎপত্তি গোপন করিয়া কতকগুলা অবৈয়াকরণিক কল কৌশলের দ্বারা ভ্রান্তি জন্মাইবার চেষ্টা করিয়াছেন, এবং ভ্রান্তির প্রতিপোষণার্থ মিথ্যা করিয়া সামবেদের দোহাই দিয়াছেন, ৫ তিনি কখনও রাধা’ শব্দের স্মৃষ্টিকারক মহেন। যিনি রাধা শব্দের প্রকৃত ব্যুৎপত্তির অনুযায়িক হইয়া রাধারূপক রচনা করেন নাই, তিনি কখনও রাধার স্মৃষ্টিকৰ্ত্ত নহেন । সেই জন্য বিবেচনা করি যে, আদিম ব্ৰহ্মবৈবর্তেই রাখার প্রথম সৃষ্টি । এবং সেখানে রাধা কৃষ্ণারাধিক আদর্শরূপিণী গোপী ছিলেন, সন্দেহ নাই । রাধা শব্দের আর একটি অর্থ আছে—বিশাখানক্ষত্রের শ একটি নাম রাধা । কৃত্তিক হইতে বিশাখা চতুর্দশ নক্ষত্র। পূৰ্ব্বে কৃত্তিক হইতে বৎসর গণনা হইত। কৃত্তিক হইতে রাশি গণনা করিলে বিশাখা ঠিক মাঝে পড়ে। অতএব রাসমণ্ডলের মধ্যবৰ্ত্তিনী হউন বা না হউন, রাধ রাশিমগুলের বা রাশমণ্ডলের মধ্যবর্তী বটেন । এই ‘রাশমণ্ডলমধ্যবৰ্ত্তিনী রাখার সঙ্গে ‘রাসমণ্ডলের রাধার কোন সম্বন্ধ আছে কি না, তাহ আসল ব্রহ্মবৈবর্তের অভাবে স্থির করা অসাধ্য। • রাখাশাস্ত বুৎপত্তি সামবেদে নিরূপিত ৮-১৩ জঃ ১৪৯ । রাখা বিশাখ পুয়েতু সিধতিকে প্রৰিটা -ময়কোৰ।