পাতা:কৃষ্ণচরিত্র.djvu/১৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


it * ... - 蜗 شد. ggBB BB BBB BBBB BBBB BBBB BBB BBB BBBB BBBB BBBS BBB BBBB DDD DDB BB BBBB BBB BBB SSSSSS e e eeeS "এই সময়ে জরাসন্ধের উত্তেজনায় আর এক প্রবল শক্র কৃষ্ণকে আক্রমণ করিষ্কার প্রস্ত উপস্থিত হইন্স। অনেক গ্রন্থেই দেখা যায় যে, প্রাচীনকালে ভারতবর্ষের স্থানে স্থানে ঘবনদিগের রাজত্ব ছিল। এক্ষণকার পণ্ডিতের সিদ্ধান্ত করিয়াছেন যে, প্রাচীন গ্রীকদিগকেই ভারতবর্যায়ের যবন বলিতেন। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত বিশুদ্ধ কি না, তৰিয়ে অনেক সন্দেহ আছে। বোধ হয়, শক, হুণ, গ্ৰীক প্রভৃতি অহিন্দু সভ্য জাতিমাত্রকেই যবন বলিতেন। যাহাই স্থউক, ঐ সময়ে, কালযবন নামে এক জন ববন রাজা ভারতবর্ষে অতি প্রবলপ্রতাপ হুইয়া উঠিয়াছিলেন । তিনি আসিয়া সসৈঙ্গে মথুরী অবরোধ করিলেন । কিন্তু পরমসমররহস্যবিং কৃষ্ণ র্তাহার সহিত সসৈন্তে যুদ্ধ করিতে ইচ্ছা করিলেন না। কেন না, ক্ষুদ্র রাদবসেন। তাহার সহিত যুদ্ধ করিয়া তাহাকে বিমুখ করিলেও, সংখ্যায় বড় অল্প হইয়৷ যাইবে । হতাবশিষ্ট যাহ থাকিবে, তাহারা জরাসন্ধকে বিমুখ করিতে সক্ষম হইতে না পারে। আর ইহাও পশ্চাৎ দেখিব যে, সৰ্ব্বভূতে দয়াময় কৃষ্ণ প্রাণিহত্যা পক্ষে ধৰ্ম্ম্য প্রয়োজন ব্যতীত অনুরাগ প্রকাশ করেন না। যুদ্ধ অনেক সময়েই ধৰ্ম্মান্বমোদিত, সে সময়ে যুদ্ধে অপ্রবৃত্ত হইলে, ধৰ্ম্মের হানি হয়, গীতায় কৃষ্ণ এই মতই প্রকাশ করিয়াছেন। এবং এখানেও কালযবন এবং জরাসন্ধের সহিত যুদ্ধ ধৰ্ম্ম্য যুদ্ধ। আত্মরক্ষার্থ এবং স্বজনরক্ষার্থ প্রজাগণের রক্ষার্থ যুদ্ধ না করা ঘোরতর অধৰ্ম্ম । কিন্তু যদি যুদ্ধ করিতেই হইল, তবে যত অল্প মনুন্যের প্রাণ হানি করিয়া কাৰ্য্য সম্পন্ন করা যায়, ধাৰ্ম্মিকের তাঁহাই কৰ্ত্তব্য। আমরা মহাভারতের সভাপৰ্ব্বে জরাসন্ধবধ-পৰ্ব্বাধ্যায়ে দেখিব যে, যাহাতে অন্ত কোন মনুষের জীবন হানি না হইয়া জরাসন্ধবধ সম্পন্ন হয়, কৃষ্ণ তাহার সহপায় উদ্ভূত করিয়াছিলেন। কালযবনের যুদ্ধেও তাহাই করিলেন। তিনি সসৈন্তে কালযবনের সম্মুখীন না হইয়া কালঘবনের বর্ধার্থ কৌশল অবলম্বন করিলেন। একাকী কালযবনের শিবিরে গিয়া উপস্থিত হইলেন। কালযবন উহাকে চিনিতে পারিল। কৃষ্ণকে ধরিৰার জন্য হাত বাড়াইল, কৃষ্ণ ধরা মা দিয়া পলায়ন করিলেন । কালযবন তাহার পশ্চাদ্ধাবিত হুইল। কৃষ্ণ যেমন বেদে বা যুদ্ধবিস্তায় স্থপণ্ডিত, শারীরিক ব্যায়ামেও তদ্রুপ সুপারগ। আদর্শ মন্থয়ের এইরূপ হওয়া উচিত, আমি “ধৰ্ম্মতত্ত্বে" দেখাইয়াছি। অতএৰ কালযবন কৃষ্ণকে ধরিতে পারিলেন না। কৃষ্ণ কালযবন কর্তৃক অনুস্থত হইয়া এক গিরিগুহাঁর মধ্যে প্রবেশ করিলেন। কথিত আছে, সেখানে মুচুকুন্দ মামে এক ঋষি মিঞ্জিত ছিলেন। কালযবন গুহান্ধকারমধ্যে । » Xo