পাতা:কৃষ্ণচরিত্র.djvu/২৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


है गरे बेरस्परिट स्चि ज्ञान चूंकि गङा अव छद्र कैश इशङ,३शबूबारेशत्र প্রয়োজন নাই; হিন্দুর কাছে তাহ স্বতঃসিদ্ধ। তবে ভ্রাপ্তি ঘূর্বদ্ধি প্রভৃতিও যে স্তাহ। इहेरछ, छांश भष्ट्राशुग्न झनग्नजम कब्रियांद्र शृंछांछन श्रांरश् । श्रख्ठः भशङांद्राङग्न दिउँीग्न ভরের কবি, এমন বিবেচনা করেন। আধুনিক জ্যোতির্কিদের বলিয়া থাকেন, আমরা চত্রের এক পিঠই চিরকাল দেখি, অপর পৃষ্ঠ কখন দেখিতে পাই না। এই কৰি { সেই অদৃষ্টপূৰ্ব্ব জগৎরহস্তের অপর পৃষ্ঠ আমাদিগকে দেখাইতে চাহেন। তিনি জয়দ্ৰথবধে দেখাইতেছেন, ভ্রান্তি ঈশ্বরপ্রেরিত, ঘটােৎকচবধে দেখাইবেন, দুৰ্ব্বদ্ধিও তাহার প্রেরিত, ড্রোণবধে দেখাইবেন, অসত্যও ঈশ্বর হইতে, দুৰ্য্যোধনবধে দেখাইবেন, অন্যায়ও ওঁহি হইতে। আরও একটা কথা বাকি আছে। জ্ঞানবল, বুদ্ধিবল, সত্যবল, স্বায়বল, বাহুবলের কাছে কেহ নহে। বিশেষতঃ রাজনীতিতে বাহুবলের প্রাধান্ত। মহাভারত বিশিষ্ট প্রকারে রাজনৈতিক কাব্য অর্থাৎ ঐতিহাসিক কাব্য ; ইতিহাসের উপর নিৰ্ম্মিত কাব্য। অতএব এ কাব্যে বাহুবলের স্থান, জ্ঞান বুদ্ধ্যাদির উপরে। দ্বিতীয় স্তরের কবি দেখিতে পান যে, কেবল জ্ঞান ভ্রান্তি, বুদ্ধি ছৰ্বদ্ধি, সত্যসত্য, এবং স্কায়ান্তায় ঐশিক নিয়োগাধীন, ইহা বলিলেই রাজনৈতিক তত্ত্বটা সম্পূর্ণ হইল না, বাহুবল ও বাহুবলের অভাবও তাই। তিনি ইহা স্পষ্টীকৃত করিবার জন্য মৌসলপৰ্ব্ব প্রণীত করিয়াছেন। তথায় কৃষ্ণের অভাবে স্বয়ং অর্জন লগুড়ধারী কৃষকগণের নিকট পরাভূত হইলেন। আমি যাহাকে ঐশিক নিয়োগ বলিতেছি, অথবা দ্বিতীয় স্তরের কবি যাহা ঈশ্বরপ্রেরণা বলিয়া বুঝেন, ইউরোপীয়ের তাহার স্থানে “Law” সংস্থাপিত করিয়াছেন। এই মহাভারতীয় কবিগণের বুদ্ধিতে "Law" কোন স্থান পাইয়াছিল কি না, আমি বলিতে পারি না। তবে ইহা বলিতে পারি যাহা “লর” উপরে, যাহা হইতে “Law," তাহা তাহারা ভালরূপে বুঝাইয়াছিলেন। তাহারা বুঝিয়াছিলেন, সকলই ঈশ্বরেচ্ছ। কৃষ্ণকে কৰ্ম্মক্ষেত্রে অবতারিত করিয়া, এই কবি সেই ঈশ্বরেচ্ছ। বুঝাইতে চেষ্টা করিলেন।