পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/১১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२४ छूद्र, ७छे क्लबू ] ফেরতমাওলের উপাখ্যাল .دهد =۔ مین۔ -سے ”عـ في كية মাওয়ারেদ ) । কোরআনের অন্যত্র ( ৭—১৪১ ) 'জবহ' স্থলে "কতল' ‘नक ব্যবহৃত হইয়াছে । ৬২ ফেরজাওলের উপাখ্যান – অশেষ পরিতাপের সহিত বলিতে হইতেছে যে, আমাদের তফছিরের রাবীগণ তাওরাত; তালমুদ ও দেশ প্রচলিত কিংবদন্তির আশ্রয় গ্রহণ করিয়া বানি-এছরাইলের উদ্ধার ও ফেব্ৰুজাওনের ডুবিয়া মরা সম্বন্ধে এমন কতকগুলি গল্পগুজবকে কোআনের তফছিরে ঢুকাইল, দিয়াছেন—কোরআন ও হাদিছে যাহার কোন ভিত্তি খুজিয়া পাওয়া যায় না, এবং যুক্তি ইতিহাস ও মানুষের সাধারণ জান যাহাকে সত্য বলিয়া গ্রহণ করিতে কুষ্ঠিত আজকাল আমাদের আলেম সমাজের মধ্যে অনেকেই এই শ্রেণীর তফছিরকে কোম্মান বলিয়া ছনার সম্মুখে উপস্থাপিত করিতেছেন এবং দুমার লোক তাহাতে বিশ্বাস করিয়া কোরআনকে অমান্ত করিতে বাধ্য হইতেছে । এই কারণে আমরা এখানে বিষয়টার বিস্তারিত আলোচনা' করিয়া দেখাইতে চাই যে, ঐ শ্রেণীর আঙ্গগৈব গল্পগুজবগুলির সহিত কোদানের কোন সম্বন্ধ নাই। আলোচনার সুবিধার জন্য প্রথমে রাবীগণের বর্ণিত এই কেচ্ছাটা সংক্ষেপে, উদ্ধৃত করিয়া দিতেছি ঃ– “দাদা আদম আল্লার হুকুমে যখন বেহেশত হইতে জমিনে নিক্ষিপ্ত হন, তখন স্থা সংসার যাত্রার সুবিধার জন্য এই বিপদের সময়ও তিনি সেখান হইতে কতকগুলি গৃহস্থালী জিনিষপত্র বহিয়া আনিতে বিস্মৃত হন নাই। তাহারই মধ্যকার একটা জিনিষ হইতেছে-- হজরত মুছার আছা । বেহেশতে আছ' নামে এক বৃক্ষ আছে। হজরত আদম ভূ-পতিত হওয়ার সময় তাড়াতাড়ি তাহার একখানা ডাল ভাঙ্কিয়া আনেন । তাহাই হইতেছে হজরত মুছার বহু মো'জেজা উপলক্ষ বিশ্ববিখ্যাত আছা । উহার কয় মুখ, কয় চোখ তাহাও ইহারা গণিয়া গণথিয়া ঠিক করিয়া দিয়াছেন । 粤 曹 “বনি-এছরাইলকে লইয়া রাত্রির অন্ধকারে গা ঢাকিয়া হজরত মূছ লোহিত সাগরের (মতান্তরে নীল দরিয়ার ) উপকূলে আসিয়া নিরুপায় হইয়া পড়িলে, আল্লাহ তাহার নিকট আহি প্রেরণ করিলেন—তুমি সমুদ্রে ঐ লাঠির আঘাত কর । আল্লার 'অহি, পয়গম্বরের হন্ডাস্থিত বেহেশতী আছা’র আঘাত । কিন্তু সমুদ্র তবুও তাহার,ছকুম মানিল না। দ্বিতীয় বার দেওয়া করার পর আল্লাহ বলিয়া দিলেন—সমুদ্রকে তাহার কুম্বিয়ং ধরিয়া ডাক , তখন হজরত মূছ৷ আয় অব খালেদ ! বলিয়া সমুদ্রে লাঠির আঘাত করা মাত্র বানি-এছরইলের বার গোত্রের জন্য সমুদ্রে বারটা প্রশস্ত রান্ত হইয়া গেল। বাতাস ও রৌদ্র অবিলখে সাগরগর্ভকে শুকাইয়া দিল । আর লোহিত্যসাগরের এক তীর হইতে অঙ্গ তাঁর পর্য্যন্ত এই ধে বহু মাইল দীর্ঘ বারটা ভূপ্রশস্ত পথ হইয় গেল, সেই পথ প্রস্থত হইতে যে অগাধ জলরাশিকে, স্বস্থান হইতে অপস্থত করিতে হইয়াছিল—তাহা উচ্চ-পর্বতমালার মত সাগর স্কুল-তল হই;ে