পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/১৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরআন শরীফ প্রথম পার। , : ما بعد বিশেষ ঘটনাকে স্বতন্ত্র স্বতন্ত্র ভাবে বর্ণনা করা হইয়াছে এবং প্রত্যেক নূতন ঘটনার বর্ণনা আরম্ভ করার সময় ১ } —এবং যখন পদ দ্বারা এই স্বাতন্ত্র্যটা স্পষ্ট করিয়া বুঝাইয়া দেওয়া হইয়াছে। এইরূপে ৬৭ আস্থত হইতে একটা নুতন ঘটনা আরম্ভ হইয়া এবং ৭১ আয়তে তাহা শেষ হওয়ার পর, ২ আয়তের প্রারম্ভে আবার ১ , —এবং যখন আনা হইতেছে। ইহাতে স্পষ্টতঃ জানা যাইতেছে যে, ৬৭ হইতে ৭১ আয়ত পৰ্য্যন্ত গো-কোবানীর ঘটনার সহিত ৭২ ও ৭৩ আয়ুতে বর্ণিত নরহত্যা জনিত ঘটনার কোনই সম্বন্ধ নাই—উহ পরম্পর সংশ্রবহীন দুইটা সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র ঘটনা। অথচ দুইটাকে এক ঘটনা না বলিলে তাহদের এই কল্পনার সার্থকতা কিছুই থাকে না। সুতরাং তঁহাদের কল্পিত এই গল্পট যে, কোরআনের বর্ণনা ধারার বিপরীত, তাহা স্পষ্টতঃ প্রতিপন্ন হইয়া যাইতেছে। (গ) গল্পে বলা হইতেছে যে, ভাতিজা চাচাকে খুন করার পর গরু জবাই করার ও নিহত ব্যক্তিকে তাহার মাংস ফেলিয়া মারার হুকুম হইয়াছিল । সুতরাং হত্যা নিশ্চয়ই অগ্রে ঘটিয়াছিল, গো-কোবানীর আদেশ তাহার পরে দেওয়া হইয়াছিল, এবং তাহার পর গরু সংগ্ৰহ করিয়া জবাই করাষ্টইয়াছিল। কিন্তু কোরআনে গরু জবাইএর ঘটনা অগ্ৰে (৬৭-৭১ আয়তে ), এবং নরহত্যার কথা তাহার পরে (৭২ ও ৭৩ আয়তে) বর্ণিত হইয়াছে। উভয় স্থলে একই ঘটনা বর্ণনা করা উদেশ্ব হইলে, ৭২ আয়তকে ৬৭ আয়তের পূৰ্ব্বে স্থাপন করা হইত। এই সমস্তার সমাধান করার আগ্রহাতিশয্যবশতঃ একদল লোক এখানে কোরআনের ‘তবৃতিব’কে উণ্টইয়া দিবার প্রস্তাব করিতেও কুষ্ঠিত হন নাই ! এমাম রাজী প্রমুখ তফছিরকারের, এ জন্য যে ব্যর্থ কষ্ট কল্পনার আশ্রয় লইয়াছেন (কবির ১–৫৬৫) তাহা দেখিলে মৰ্ম্মাহত হইতে হয়। সে যাহা হউক, আয়তগুলির ‘তবৃতিব এক বাক্যে বলিয়া দিতেছে, ৭২ আয়তের নরহত্য, আর ৬৭ আয়তের গো-কোবানী দুইটা সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র ঘটনা—অধিকন্তু নরহত্যার ব্যাপার গো-কোবানীর ঘটনার পরে সংঘটিত হইয়াছিল। সুতরাং কোরআন হইতে গল্পটার ভিত্তিহীনতাই প্রতিপন্ন হইয়া যাইতেছে। (ঘ) গল্পে বলা হইতেছে যে, হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হওয়ার পর গরু খুজিয়া বাহির করিতে চল্লিশ বৎসর কাল অতিবাহিত হইয়া যায়। অথচ আমরা দেখিতেছি যে, ৭৩ আয়তের প্রথমে ৬৮e ua পদে –১ia –U আনা হইয়াছে (কবির ১–৫৬৬ )। উহার অর্থ—বিনা ব্যবধানে, অব্যবহিত পরে। ইহাতে প্রতিপন্ন হইবে যে, ৭২ আয়ুতে বর্ণিত হত্যার অব্যবহিত পরেই গরু জবাই করা হইয়াছিল । সুতরাং ইহা দ্বারাও গল্পের অসত্যতা খুব স্পষ্টভাবে সপ্রমাণ হইতেছে। (ঙ) শিক্ষিত ও বাকপটু গরুর ও তাহার মালেকের কাহিনীতে বলা হইতেছে যে, গল্পটার স্থূল মালিক বাছুর বেলায় তাহাকে বনে ছাড়িরা দেন। তাহার পর একটা নাবালক পুত্র ও বিধবা স্ত্রীকে রাষিা তিনি পরলোক গমন করেন । পুত্র যুবক হওয়ার পর মাত4