পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/১৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


see . কোরআন শরীফ [ প্রথম পারা قتی. AJSAS A SAS SSAS SSAS AAAAA AAAA MMM AAMA JSJAMAM AMAMJJMMAeA AA AMJ AAAAS بني تميي ヘヘヘ**ヘヘヘヘヘヘヘヘヘヘ ూ ° F్న - ల్మౌ శ్యా శాఖ " " s علی امین یحیی صرعیی এই শটাে স্ত্রীলিঙ্কবাচক বর্গিয় ৫৮,৬৯৬ পদাংশে স্ত্রীলিঙ্কবাচক এ সৰ্ব্বনাম ব্যবহার করা হইয়াছে। তাহার পাঁচটা মাত্র শব্দ পরে সেই নিহত ব্যক্তি সম্বন্ধে এত কষ্ট কল্পনার মধ্য দিয়া : সৰ্ব্বনাম না আনিয়া স্ত্রীলিঙ্গবাচক U১ সৰ্ব্বনাম আনাই সঙ্গত ছিল । গল্পটার সহিত কোরআনের যে কোন সম্বন্ধ নাই, বরং উহা যে কোরআনের বর্ণনার বিপরীত একটা ভিত্তিহীন বাজে রূপকথা ব্যতীত আর কিছুই নহে, এই সকল যুক্তি প্রমাণ স্বারা তাহ অকাট্যরূপে প্রতিপাদিত হইয়া যাইতেছে। আয়তের প্রকৃত তাৎপৰ্য্য ঃ— আলোচ্য আয়ত-দুইটীর প্রকৃত তাৎপৰ্য্য আবিষ্কারের জন্য আমরা দীর্ঘ কাল পর্য্যন্ত আলোচনায় প্রবৃত্ত ছিলাম। এ সম্বন্ধে পড়িবার ও বুঝিবার যাহা আছে, নিজেদের সামান্ত শক্তি অনুসারে তাই পড়িতে ও বুঝিতে চেষ্টার ক্রটা করি নাই। আধুনিক মুছলমান লেখকগণ এখানে যে তাৎপৰ্য্য দিয়াছেন, তাহীও বিশেষ মনোযোগ সহকারে পড়িয়া দেখয়াছি এবং শেষে এই স্থির সিদ্ধান্তে উপনীত হইয়াছি যে, এই আয়ত দুইটাতে দূর অতীতের কোন প্রাচীন ঘটনার প্রতি ইঙ্গিত করা হয় নাই। বরং উহাতে হজরত মোহাম্মদ মোস্তফার সমসাময়িক এহুদীদিগকে লক্ষ্য করিয়া তাহদের দুষ্কীৰ্ত্তির কথাই বর্ণনা করা হইয়াছে। তাহার হজরতকে হত্যা করার চেষ্টা ও ষড়যন্ত্র পুনঃ পুনঃ করিয়াছে, কিন্তু আল্লার অনুগ্রহে তাহাদিগের সে চেষ্টা ও ষড়যন্ত্র বরাবরই ব্যর্থ হইয়া গিয়াছে। এখানে এই সকল গুপ্ত ষড়যন্ত্র ও হত্যা চেষ্টার কথাই উল্লেখ করা হইতেছে । আলোচনার সুবিধার জন্য এহুদীদিগের এই সব দুরভিসন্ধির বিবরণ নিয়ে সংক্ষিপ্ত ভাবে উদ্ধৃত করিয়া দিতেছি। বদর যুদ্ধের পর মদিনার এহুদীরা হজরতকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র পাকাইয়া তাহাকে বলিয়া পাঠায়—আপনার সহিত আমাদের ধৰ্ম্ম লইয়াই ঘত বিসম্বাদ। আমরা ইহার মীমাংসা করিয়া লইতে চাই। অতএব আপনি ৩০ জন মুছলমানকে লইয়া আসুন, আমরা ৩০ জন এহুদী পণ্ডিতকে ইয়া যাইতেছি। ধৰ্ম্ম সম্বন্ধে আলোচনা করিয়া একটা মীমাংসা করিয়া লওয়া হউক ইহাতে হজরত লিখিত প্রতিজ্ঞা-পত্র চাহিয়া পাঠাইলে তাহারা আবার বলিয়া পাঠাইল—প্রতিজ-পত্রের দরকার নাই, আপনি দুই জন মুছলমানকে সঙ্গে লইয়া আসুন, আমরা তিন জন এহুদী আপনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করিয়া এই সব বিসম্বাদের মীমাংসা করিয়া লইতেছি। நா

  • তখন হজরতও এই প্রস্তাবে সম্মতি জ্ঞাপন করিলেন এবং দুই জন ছাহাবীকে সঙ্গে লইয়া নির্দিষ্ট স্থানের দিকে যাত্রা করিলেন । ধৰ্ম্ম সম্বন্ধে আলোচনা হইবে, সুতরাং কেহই । অস্ত্ৰ শস্ত্র সঙ্গে লইলেন না। পক্ষান্তরে এহুদীগণ বক্সের মধ্যে খঞ্জর, খড়গ প্রভৃতি খরধার অস্ত্ৰ শস্থ লুকাইয়া লইয়া বহির্গত হইল। সমস্ত এহুদাই যে এই সময় প্রস্তুত হইয়াছিল, তাং সহজেই অনুমান করা যাইতে পারে। এছলামের পূৰ্ব্বে আওছ ও খাজরাজ বংশের