পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/২১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২য় ছুর, ১৪শ রুকু ] এহুদী ও খ্রষ্টান্নদিগের মনোভাব ' ১৯৭ বলিয়াছিল, ইহার সংক্ষিপ্ত আলোচনা পূৰ্ব্বে করা হইয়াছে। এই আয়তে বলিয়া দেওয়া হইতেছে যে, ঐ প্রকার আজগৈবী মো’যেজার দাবী করা মানুষের অজ্ঞতারই ফল সন্দেহ ও অবিশ্বাস রোগে যাহাদিগের জ্ঞান ও বিবেক বিকৃত হইয়া গিয়াছে, বর্তমানের ন্যায় পূৰ্ব্ব যুগেও সেইরূপ হঠকারী লোক বিদ্যমান ছিল এবং তাহারাও ঐ প্রকার অন্যায় দাবী নিজ নিজ রচুলগণের নিকট উপস্থিত করিয়াছিল। নিজেদের মনের রোগকে ঢাকা দিবার জন্য এই হঠেক্তির আশ্রয় গ্রহণ করা ধৰ্ম্মতত্ত্ব সম্বন্ধে অজ্ঞ লোকদিগের চিরাচরিত প্রথা । কিন্তু জ্ঞানী ও সত্যান্ত সন্ধিৎস্থ যাহারা, একিন বা বাস্তব প্রত্যয়ে উপনীত হওয়াই যাহীদের ধৰ্ম্মালোচনার । প্রকৃত লক্ষ্য, তাহীদের জন্য আল্লার এই অনন্ত কোটি স্বষ্টির প্রতি অণুপরমাণুতে র্তাহার কুদরত ও অপার মহিমার অনন্ত নিদশন বিদ্যমান আছে। বাহারা বলিতৃেছে—“আমাদের মাথার উপর অণছমান ভাঙ্গিয়া পড়,ক”— তাহ হইলে আমরা বিশ্বাস করিব, পদ তলের একটা সবুজ তৃণকে যথাযথ ভাবে দশন করিলেই তাহারা আল্লার অনন্ত মহিমার নিদর্শন দেখিতে পারে । হজরতের নবুঅতকে অস্বীকার করার উদ্দেশ্যে র্তাহার সমসাময়িক একদল লোক ঐ প্রকার অাজগৈবী নিদর্শন উপস্থিত করার দাবী করিয়াছিল। এই ও ইহার পরবর্তী আয়তে তাহারও প্রতিবাদ হইয়া যাইতেছে। তাহাদিগকে স্পষ্ট করিয়া বলিয়া দেওয়া হইতেছে যে, মোহাম্মদ যে প্রকৃত পক্ষে আল্লার কালামের বাহক, ঐ কালামের শিক্ষা ও তাহার মধ্যকার সত্যই তাহার প্রমাণ । কোরআনের আয়তগুলির অন্তশীলন করিলে এবং তাহার বর্ণিত সত্যকে লাভ করার জন্য সাধনায় প্রবৃত্ত হইলে, ঐ সকল স্পষ্ট প্রমাণের সন্ধান পাওয়া যাইবে । ১০৯ আয়তে এই কথাই স্পষ্ট করিয়া বলিয়া দেওয়া হইয়াছে । ১১• এহুদী ও খৃষ্টানদিগের মনোভাব – যুক্তি প্রমাণের বা শাস্থের আলোচনা দ্বারা এহুদী ও খৃষ্টাণদিগকে সন্তুষ্ট করা অসম্ভব। 劇 কারণ তাহারা নিজেদের অন্ধবিশ্বাসগুলিকেই ধৰ্ম্মের প্রধান উপকরণ ও অবলম্বন বলিয়া নৰ্দ্ধারণ করিয়া লইয়াছে। সুতরাং মুছলমানেরা যাবৎ তাহীদের অন্ধ অন্তকরণে প্রবৃত্ত না হইবে, এহুদী বা খৃষ্টান সম্প্রদায় তাবৎ তাহাঙ্গের উপর সন্তুষ্ট হইবে না। ফলতঃ যে কাজে ও যে অবস্থায় যখনই দেখা যাইবে, এহুদী বা খৃষ্টান প্রভৃতি বিধৰ্ম্মী সম্প্রদায়ের লোকেরা মুছলমানদিগের প্রতি বিশেষ সন্তোষ প্রকাশ করিতেছে--তখনই নিশ্চিত ভাবে মনে করিতে হইবে যে, সেখানে মুছলমানেরা এছলামের শিক্ষা ও হেদায়তকে বিসর্জন দিয়া তাহীদের অন্ধ অন্তকরণে প্রবৃত্ত হইয়াছে। এছলামের এই জ্ঞান, শিক্ষা ও হেদায়তকে ত্যাগ করিয়া এহুদ ও নাছারার অন্তসরণে প্রবৃত্ত হইলে মুছলমানদিগের । সৰ্ব্বনাশ হইয়া যাইবে এবং সে সৰ্ব্বনাশের হা ত হইতে তাহাদিগকে কেহই রক্ষা করিতে পরিবে না । 劇