পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/২২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Rg06:} কোল্লঅপ্পল শরীফ [ প্রথম পারা আমি একাগ্রভাবে গহর পানে প্রত্যাগত হইলাম, আছমান জমিনের আদি স্বষ্টিকারী যিনি, মোশরেক দলের অন্তভূক্ত আমি মছি । আমার সমস্ত উপাসনা ও সমস্ত কোবান, আমার সমস্ত জীবন ও সমস্ত মরণ, সকল জগৎস্বামী আল্লার জন্য, তাহার শরিক কেহই নাই, ইহারই আদেশ আমাকে দেওয়া হইয়াছে, অণর আমি হইতেছি প্রথম আত্মসমর্পণকারী-মোছলেম । তিনি দেখেন—র্তাহার স্বজনেরা নিত্যই ঠাকুরঘরে প্রবেশ করে, নিৰ্ব্বাক নিষ্পন্দ পুতুল ও প্রস্তর মূৰ্ত্তির সন্মুখে বসিয়া তাহদের স্তবস্তুতি করিতে থাকে, কত বিনয় সহকারে তাহ • দিগের নিকট ইষ্ট প্রার্থনা করে, খাল ভরিয়ু নানা উপাদেয় খাদ্য তাহাদিগকে ভোগ দেয় । বালক-এবরাহিম অষ্ঠ সকলের অতুপস্থিতিকালে একদিন ঠাকুরঘরে প্রবেশ করিয়া দেখেন— ভোগের পলা যেমনকার তেমনভাবে পড়িয়া আছে । তিনি ঠাকুরগুলিকে সম্বোধন করিয়া বলিলেন—তোমরা এ সব খাইতেছ না কেন ? সাড়া না পাইয়া তিনি আরও উচ্চস্বরে তাহাদিগকে উত্তর দিতে বলিলেন । কিন্তু তবুও ঠাকুরদের মুখে কোন সাড়া শব্দ নাই । তখন তিনি একখানা কুঠার লইয়া যথাসাধ্য কএকটাকে ভাঙ্গিয়া ফেলিলেন আর কুঠারখানা বড় ঠাকুরের কাধে রাখিয়া চলিয়া আসিলেন । র্তাহার স্বজনেরা ফিরিয়া আসিয়া এই ব্যাপার দেখিয়া অীৰ্ত্তনাদ করিতে লাগিল—“আমাদের ঠাকুর দেবতাদের এমন সৰ্ব্বনাশ কে করিল ?” বালক এবরাহিম বিদ্রুপস্বরে উত্তর করিলেন—সেজন্য ব্যস্ত হওয়ার দরকার কি ? বড় ঠাকুর ত এখনও ছালামত আছেন, তাহাকে জিজ্ঞাসা করিয়া দেখুন না কেন ? সহস্র কণ্ঠে বজ্ৰনিনাদে উত্তর হইল—“উহারা কি কথা বলিতে পারে ?” হজরত এবরাহিম তখন গম্ভীর ভাবে বলিতে লাগিলেন—যাহার কথা বলিতে পারে না, শত্রুর আক্রমণ হইতে নিজদিগকে রক্ষা করার শক্তিও বাহাদিগের নাই, এমন অপদার্থ জড়পিণ্ডগুলিকে সৰ্ব্বশক্তিমান আল্লার আসমে বসাইয়া পূজা করা কি মাহুষের পক্ষে উচিত। আজ আমি তোমাদিগের সকলকে জানাইয়া ঘোষণা করিতেছি— - مما تعداد رنی همراتی دراثی الله 入 إننا براع مذكم —“তোমাদিগের সহিত, এবং আল্লাহকে ত্যাগ করিয়া যাহাদের পূজা তোমরা করিতেছ তাহাদিগের সহিত আমার কোনই সম্বন্ধ থাকিবে না” ( ৪—৬ ) । সত্যকে পাওয়ার জন্য অস্তরের অন্তস্তলে নিহিত এই যে সদাজাগ্ৰত জিজ্ঞাসা, সেই জিজ্ঞাসার উত্তর পাওয়ার জন্য আত্মবলিদানের এই যে কঠোরতর সাধন, সত্যকে প্রাপ্ত হওয়ার পর তাহাকে প্রকাশ ও প্রতিষ্ঠিত করার এই যে জীবন মরণ পণ, ইহাই হইতেছে হজরত এররাহিমের প্রথম সাধনা ও প্রথম সিদ্ধি এবং ইহাই হইতেছে মুক্তিকামী মানবের প্রথম অনুকরণীয় স্বৰ্গীয় কাদশ । S DDDD BBBBBB BB BBB BBBBS BBB DDD BBBBB BBBBB BDCB BBB DBD DBBD DBB BBD DB BBBD DDBB BBS BBS BBS