পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/২৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২য় ছুর, ১৭শ রুকু ] মৃতল কেবলীর সত্যতা ॐ *<>S SS S SSAAA AS TAAAS AAASASAS SSAS মত আজ্ঞাবহ বান্দ, তুমি খোদার নিকট এজন্য দেওয়া কর । * তাহাতে তিনি দেওয়া করিলেন, এবং তাহার ফলে কেবল পরিবর্তন হইয়া গেল, ইত্যাদি । ( মন্‌ছর ১–১৪২) । কিন্তু এই আৰু-আলিয়া তাবেয়ী মাত্র, হজরতকে দর্শনও করেন নাই। স্বতরাং হেজরতের দ্বিতীয় সনের ঘটনা, বিশেষতঃ জিবাইলের সহিত হজরতের কথোপকথনের ব্যাপার অবগত হওয়ার কোন সুযোগই র্তাহার ঘটে নাই । এই আবুল-আলিয় ও আবদুল্লুরহমান আর এক বর্ণনায় বলিতেছেন যে, হজরত রঙ্কুলে করিম বাইতুল-মোকান্দছকে কেবলারূপে গ্রহণ করিয়া এহুদীদিগকে সন্তুষ্ট করিতে চাহিয়াছিলেন ( ফংহুল বারী ১–৩৪০ ) । আবুল-আলিয়ার কথা আমরা পূৰ্ব্বে অবগত হইয়াছি । আবদুল্লুরহমানের নাম গ্রহণ করার সঙ্গে সঙ্গে হাফেজ এবনে হজর Lá১৯১ 3 * > "હઃ তিনি জঈফ” বলিয়া মন্তব্য প্রকাশ করিয়াছেন । এই আবদুল্লুরহমানের পিতা তাবেয়ী ছিলেন, অর্থাৎ হজরতের ছাহাবীদিগকে দর্শন করিয়াছিলেন । এই ঘটনার এক শতাব্দীরও পরে ক্টাহীর জন্ম হয়, এবং ১৮২ হিজরীতে তিনি পরলোক গমন করেন । বহু তিত্তিহীন হাদিছ ইহা হইতে বর্ণিত হইয়াছে, হাদিছের এমামগণ র্তাহাকে একবাক্যে জঈফ ও অবিশ্বস্ত বলিয়াছেন। তিনি যে নিজের ইচ্ছা মত কোরআনের তফছির করিতেন, একথাও এমামগণ বলিয়া দিয়াছেন ( একমাল, খোলাছ, মীজান ) । সেল, পামার, রডওয়েল প্রভৃতি কোরআনের ইংরাজী অন্তবাদকগণ এবং মুয়র হজরতের জীবনীতে ( ১৮৯ পৃষ্ঠা ) ও মেজর ওসবরণ র্তাহার Islam under Arabs পুস্তকে ( ৫৮ পৃষ্ঠা ) পাদ্রী ਵਿੱਚੋਥ Dictionary of Islam orgÇE ( R–89 - ) aÊ HYFai fsfsলীন বর্ণনাকে উপলক্ষ করিয়া, কেবল পরিবর্তনকে হজরতের একটা নুতন অভিসন্ধি বলিয়া বর্ণনা করিয়াছেন । তঁশহীদের বক্তব্যগুলির সার এই যে, মক্কায় অবস্থান কালে মোহাম্মদের কোন কেবল ছিল না, যাহার যে দিকে ইচ্ছা নামাজ পড়িত। মদিনায় আসার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় এহুদীদিগকে সন্তুষ্ট করিয়া নিজের মতে আনিবার জন্য তিনি বায়তুল-মোকান্দছকে কেবল করিয়া লইলেন। সে সময় পৰ্য্যন্ত এহুদীদিগের প্রতি মোহাম্মদ খুব বন্ধুভাবে ব্যবহার করিতেন । কিন্তু অবশেষে যখন তিনি এহুদীদিগের সম্বন্ধে নিরাশ হইয়া পড়িলেন, তখন আবার মক্কার পৌত্তলিকদিগকে সন্তুষ্ট করার জন্য, বায়তুল-মোকান্দছকে ত্যাগ করিয়া কণ’বণকে কেবলণরূপে গ্রহণ করিলেন । o সকলেই এসবগত আছেন—মদিনীয় যাওয়ার ১৩ বৎসর পূৰ্ব্বে হজরতের নবুয়ৎ মারম্ভ হইয়াছে এবং এই সময় তাহার উপর অবিরামভাবে কোবৃত্মান অবতীর্ণ হইতে থাকে। ফাতেহ ছুরা মক্কায় অবতীর্ণ, এমন কি মুঘর প্রভৃতি খৃষ্টান লেখকগণ ইহাও বলিয়াছেন যে, এই চুরাটা মোহাম্মদের নবীজীবন লাভের পূৰ্ব্বে প্রকাশিত হইয়াছিল। এই ফাতেহা বা প্রথম ছুরীর ৭ম আয়তে এহুদীদিগকে 'মগজুব' বা অভিশপ্ত জাতি বলা হইয়াছে। মদিনীয় আসার পর হজরত প্রত্যেক দিনের প্রত্যেক নামাজে ঐ ছুর পাঠ করিতেন, এবং মুয়ূর