পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৩০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরতমাল শরীফ { দ্বিতীয় পারা ه «C بیحه حي کي 6 مايي Ꮬ عصبی مصر A اگر A ழ் Φύ أموال الناس بالانم وأنتم শাসনকৰ্ত্তাদের নিকট উপস্থাপিত করিও না, অথচ তোমরা জানিতেছ ) * .تعلمه ر টীকা ঃ— ১৬৯ ছিয়াম-সাধন – প্রকৃত পুণ্যকৰ্ম্ম যে কি, উপরে তাহার ক একটার উল্লেখ করা হইয়াছে । আলোচ্য আয়ুতে এই পরম্পরার মধ্যে ছিয়ামের উল্লেখ করা হইতেছে । এখানেও উদ্দেশু সত্যকার পরহেজগার ও সংযমশীল হওয়া । ১৮৪ আয়তের প্রথমে বলা হইতেছে, সেই ছিয়াম পালন করিতে হুইবে-গণিত কএক দিবস মাএ । অর্থাৎ দীর্ঘকাল ধরিয়া বা সম্বৎসর জুড়িয়া ছিয়াম পালন করিবার কঠোর আদেশ তোমাদিগকে দেওয়া হইতেছে না। ১৮৫ আয়ুতের প্রথমে বলিয়া দেওয়া হইতেছে যে, উপরে বর্ণিত সেই গণিত কএক দিবস হইতেছে, রমজান মাস । গণিত কএক দিন বা রমজান মাসে রোজ ফরজ হওয়ার সাধারণ আদেশ প্রচারের পর, ১৮৪ আয়তে কএকটা বর্জিত বিধির উল্লেখ করা হইতেছে। বলা হইতেছে যে—রমজান মাসে সকলের উপর রোজা ফরজ, কিন্তু (ক) যদি কোন ব্যক্তি ঐ মাসে পীড়িত হইয়া পড়ে অথবা যদি কেহ প্রবাসে থাকে, তাহা হইলে সে রমজান মাসে রোজা নাও রাখিতে পারে । তবে বাড়ী ফিরিয়া আসিয়া অথবা সুস্থ হইয়া অন্য মাসে সেই ভাঙ্গ রোজাগুলি তাহাকে শোধ দিতে হইবে—অর্থাৎ যে কয়ট রোজা তাহার বাদ গিয়াছে, গণিয়া সেই কয়টা রোজা তখন তাহাকে রাখিতে হইবে। (খ) পীড়িত ও প্রবাসীদিগের সম্বন্ধে এই ব্যবস্থা দিবার পর বলা হইতেছে যে, যে সকল নরনারীকে কষ্টের সহিত রোজা রাখিতে হয়—যেমন বৃদ্ধ নরনারী, গর্ভবতী স্ত্রীলোক, চিররোগী প্রভৃতি, তাহারা রোজা না রাখিয়া তাহার পরিবর্তে ক্যালদিগকে অস্তৃদান করিবে—একটা রোজার পরিবর্তে একজন কাঙ্গালকে তাহার একদিনের খোরাক দিবে- ইহাই রোজার ফিদয়া। একজনের খোরাক দিতে সে ধর্মের হিসাবে বাধ্য, অন্যথায় সে অপরাধী হইবে । তবে যদি কোন সহৃদয় মুছলমান, একজনের পরিবর্তে ই বা ততোধিক কাঙ্গালকে অন্তদান করে, তাহাতে কোন দোষ নাই, বরং ইহার পুরষ্কার সে লাভ করিবে। আয়তের শেষভাগে এই সতর্কবাণী প্রচার করা হইতেছে যে, অবস্থাভেদে এই যে রোজা কাজ করার বা ফিদা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হইতেছে, ইহাকে রোজা ত্যাগের ছুতা বাহানা বানাইয়া লওয়া উচিত নহে। রোজার মহিমা সম্বন্ধে কোন জ্ঞান যদি