পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৩৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরআন শরীফ میetobہ so AA AA ASAA AA ASAA AA AAAA AAAA AAAA AAASA SAAAAA AAAAeEAAA AAAA AAAAeS e ASASAS SS SAAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAAS AAASASAAA AAAAeeA AeE SSS JSSS SSS S گشایی که به جای میر حبی سی بی ها هه سعی همیم به بیرعی حتی به করিলে, আয়তের উপসংহার ভাগের সহিত এই অংশের সম্বন্ধ কিছুই থাকে না। “তোমরা পাথেয় সঞ্চয় করিয়া লও-বস্তুতঃ উৎকৃষ্ট পাথেয় হইতেছে পর্হেজগারী বা সংযম”—ইহার অর্থ এই যে, হজযাত্রার সময়, এই যাত্রার আসল সাধনার প্রতি বিশেষ করিয়া লক্ষ্য রাখিতে হইবে । সে সাধনা হইতেছে—সংযমের অভ্যাস এবং ইহাই হইতেছে পরকালের মহাযাত্রাপ শ্রেষ্ঠতম সম্বল । ১৮৭ প্রভুর প্রসাদলাভ — ব্যবসায় বাণিজ্য ও অন্যান্ত বৈষয়িক কার্য্যের দ্বারা মানুষ যে অর্থ উপার্জন করে কোরআনের বিভিন্নস্থানে তাহাকে আল্লার ফজল বা প্রসাদ বলিয়া উল্লেখ করা হইয়াছে। হজের লক্ষ্য ও সাধনার বিষয় অবগত হওয়ার পর, লোকে মনে করিতে লাগিল যে, ঐ সময় বাণিজ্য ব্যবসায়াদিতে লিপ্ত হইলে পাপের ভাগী হইতে হইবে । আয়তে এই ধারণার প্রতিবাদ করা হইতেছে । • ১৮৮ মাশজারুল হারাম — মক্কা ও আরাফাতের পথে মেনা ও মুজদালেফা নামক দুইটী স্থান আছে। আরাফাত হইতে ফিরিবার সময় প্রথমে মুজদালেফা ও পরে মেনায় অবস্থান করিতে হয় । এই মুজালেফার একটা পাহাড়ের নাম—মাশআরুল হারাম। এখানে নামিয়া আল্লার জেকুর ও মোনাজাত প্রভৃতি করিতে হয়। মাশ আরুল হারামের নিকটে-পদে, সমস্ত মুজদালেফাকে বুঝাইতেছে। ১৮৯ অসাম্যের প্রতিবাদ — কা'বার সেবক ও অধিকারী বলিয়া, হজরত এছমাইলের বংশধর বলিয়া, কোরেশগণ নিজেদের কৌলিন্সের অহঙ্কারে অন্ধ হইয়াছিল। কা'বা পুননিৰ্ম্মাণের পর তাহদের এই অহঙ্কার চরমে উঠিয়া গেল। তখন পরামর্শ করিয়া সকলে ঘোষণা করিল—কোরেশ হইতেছে, কুলীন ও পুরোহিত জাতি । সুতরাং অন্যান্য লোকের মত তাহার হজের জন্য আরাফাতে যাইবে না, মুজদালেফায় অবস্থান করিবে ( বোখারী, এবনেহেশাম ) । কোআন ইহার প্রতিবাদ করিয়া ঘোষণা করিতেছে—বংশ, বৃত্তি বা পৌরোহিত্যের জন্য, মানুষের কর্তৃব্যের বা অধিকারের ইতর বিশেষ হইতে পারে না । বিশেষতঃ হজ হইতেছে, সাম্যবাদ ও বিশ্বজনীন ভ্রাতৃত্বের প্রধান প্রকাশস্থল। সুতরাং অসাম্যের আপদ তাহার ত্রিসীমায়ও স্থানলাভ করিতে পরিবে না । অতএব জগতের শ্রেষ্ঠতম মানব মোহাম্মদ মোস্তফা হইতে জারম্ভ করিয়া, আরবের দুর্বলতর দাস পর্য্যস্ত সকলকেই হজের সময় আরাফাতে সমবেত খইতে এবং সেখান হইতেই একত্র যাত্রা করিতে হইবে । কুলীন ও পুরোহিতের জন্ত এক