পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৩৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোরআন শরীফ [ দ্বিতীয় পাৱ৷ دجاح تكلا অর্থাৎ—“তাহাদিগের উপর জেহাদকে যখন ফরজ করিয়া দেওয়া হইল, তখন তাহারা সরিয়া দাড়াইল --- * বনি-এছরাইল এইরূপে নবীগণকে অমান্ত করিয়া এবং জেহাদকে পরিত্যাগ করিয়া আল্লার নে'মতের অবমাননা করিয়াছিল। তাই আল্লার দণ্ড আসিম্বা তাহাদিগকে বিধ্বস্ত করিয়া ফেলিয়াছিল। রাজত্বের নে'মত হইতে বঞ্চিত হইয়া তখন তাহারা পরজাতির অধীনতার লা'নতে অভিশপ্ত হইয়াছিল। আয়তে বলা হইতেছে যে, যে কোন জাতি এইরূপে জেহাদ পরিত্যাগ করিয়া বসিতে অভ্যস্ত হইয়া পড়ে, তাহাদিগকেও এহুদীদিগের স্তায় বিধৰ্ম্মী বিজাতির গোলাম হইয়া থাকিতে হইবে, এবং এই গোলামীই হইতেছে মানবজীবনের প্রধান লা'নত । রুকু’র উপক্রম ও উপসংহারের সহিত এই অর্থই সমঞ্জস হইতে পারে। ১৯৯ পার্থিব জীবনের মায়া — কাফের পার্থিব জীবনের সুখ ও স্বস্তির মোহে মানবজীবনের প্রকৃত মর্য্যাদা ও লক্ষ্যকে বিশ্বত হইয়া বসে। তাই দৈহিক ভোগবিলাসে কোন প্রকার বিঘ্ন উপস্থিত হয় যে কাজে, অথবা ধন প্রাণের ক্ষতির আশঙ্কা থাকে যে পরীক্ষায়, পার্থিব-জীবনমোহে প্রবঞ্চিত কাফের, তাহার ত্রিসীমায়ও পদার্পণ করিতে পারে না। অথচ এই কাপুরুষেরা আবার মো’মেনদিগকে বিক্রপ করিয়া থাকে। কারণ, আল্লার পথে জেহাদে প্রবৃত্ত হইয় তাহার অদূরদর্শী সূর্থের মত মরণকে বরণ করিয়া লয়, আল্লার নামকে জয়যুক্ত করার জন্য নিজেদের ধনসম্পদগুলি লুটাইয়া দিয়া তাহারা দারিদ্র্যকে ডাকিয় লয়। এই বুদ্ধিমান দলের অস্তিত্ব চিরকালই বিদ্যমান আছে । ইহাদের অভিধানে এই শ্রেণীর ত্যাগ ও মহত্ত্ব বোকামীর প্রতিশব্দ ব্যতীত অীর কিছুই নয় । কিন্তু আল্লাহ বলিয়া দিতেছেন—কিয়ামতের দিন ঐ বিশ্বাসীরা সম্মানে ও মর্য্যাদায় ইহাদিগের অপেক্ষ বহু উচ্চ আসন লাভ করিবে । কিয়ামত হইতেছে ব্যওমুদিন বা কৰ্ম্মফল'পাওয়ার দিন। মোমেনগণের এই কৰ্ম্মের ফল এই পৃথিবী হইতে আরম্ভ হইবে এবং কিয়ামতে তাহা সম্পূর্ণ হইয়। যাইবে। কিয়ামতে তাহারী উচ্চ মধ্য" পাইতে সমর্থ হইবে—দুনয়ার ত্যাগ, সাধন ও মহৎচরিত্রের পুরষ্কাররূপে । এইরূপ ত্যাগ সাধনা ও মহবের অধিকারী যাহার, দুনাতেও তাঁহাকে কেহ অধীন করিয়া রাখিতে পরিবে না । জেহাদের কাজে অর্থৰ্যয়ে কুষ্ঠিত হইয়া সঞ্চয়ী বুদ্ধিমান, মো'মেনদিগকে অদূরদর্শী ও মূর্খ বলিয়া বিভ্রপ করে। কিন্তু এই অজ্ঞ কাফেরদিগের জানা নাই ‘বে আল্লাহ বাহকে ইচ্ছা অপৰ্য্যাপ্ত পরিমাণে দান করিয়া থাকেন । (অর্থাৎ ত্যাগের এই সাধনা যে জাতি অবলম্বন করে, তাহদের দৈন্য দারিদ্র্য অধিক দিন স্থায়ী হইতে পারে না, আয়ার ফজলে অচিরে তাহার অগাধ ধনসম্পদেরও মালেক হইবা বা ) এই মাম্বতের দ্বারা হজরতের সমসাময়িক মো'মেনজিগের আশু সাফল্যের সুসংবাদও দেওম্বা হইতেছে।