পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৩৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২য় ছুরা, ২৬শ রুকু ] লুতন্ম অনাথক দল -9)'S ২• • সমস্ত লোক – “সমস্ত লোক”-বলিতে কাহাদিগকে বুঝাইতেছে—ইহা লইয়া অকারণে অনেক মতভেদ করা হইয়াছে । কিন্তু এখানকার বর্ণনাধারার প্রতি একটু লক্ষ্য করিলে সহজে জানা যাইবে যে, এখানে এহুদীজাতির সমস্ত লোককে লক্ষ্য করা হইয়াছে—রুকু’র প্রথম আয়তে যাহাদের প্রসঙ্গ উত্থাপিত হইয়াছে। হজরত মূছার সময় বনি-এছরাইল নিজেদের সমস্ত বিরোধ বিচ্ছেদ বিস্মৃত হইয়া আল্লার নামে সংহত হইয়াছিল। এখানে সেই অবস্থার প্রতিই ইঙ্কিত করা হইতেছে । আমাদের মতে ইহাই সহজ সরল ও কোরআনের বর্ণনা ধারার সহিত সমঞ্জস তাৎপৰ্য্য ( দেখ—কবির ২—৩•৫ ) । অবশ্য পরোক্ষভাবে দুনার সমস্ত গ্রন্থধারী জাতি সম্বন্ধে ইহার ব্যাপক তাৎপর্য্যও গ্রহণ করা যাইতে পারে । ২০১ পুনরায় মতভেদ ঃ– হজরত মূছা ও র্তাহার পরবর্তী নবীগণ আল্লার কেতাব লইয়া আসিলেন, আল্লার কেতাব তাহণদের মতভেদের কারণগুলি মীমাংসা করিয়া দিল । কিন্তু ব্যক্তিগত হিংসা বিদ্বেষবশতঃ জাতীয় স্বার্থকে বিসর্জন দিয়া বনি-এছরাইল আবার গৃহবিচ্ছেদে লিপ্ত হইয়া পড়িল, আল্লার কেতাবকে লইয়াই তাহারা দলাদলি পাকাইয়া বসিল, ধৰ্ম্মকেই তাহার। ঘোর অনর্থের কারণে পরিণত করিয়া তুলিল । ২০২ নূতন সাধক দল – উপরোক্ত বিরোধ ও বিচ্ছেদের অবস্থায়, হজরত মোহাম্মদ মোস্তফার সঙ্গে জ্বাল্পার মঙ্গল অভিপ্রায়ে এক নূতন সাধকদলের আবির্ভাব হইল। বনি-এছরাইল জাতি বিশেষ করিয়া এবং দুন্নয়ার অন্যান্য ধৰ্ম্মসমাজ সাধারণভাবে, ধৰ্ম্মের যে সকল বিষয়ু লইয়ু পরম্পর বিবাদ বিসম্বাদ করিতেছিল, তাহার সত্য ও সঙ্গত সমাধান তিনি মোমেনদিগকে কোবৃঅানের মারফতে বুঝাইয়া দিলেন । ফলতঃ ধৰ্ম্মক্ষেত্রে নূতন সমস্ত স্বষ্টি করার জন্য মুছলমানের আবির্ভাব হয় নাই, বরং ধৰ্ম্ম সংক্রান্ত বিশ্ব সমস্তার চরম সমাধান করার জন্যই তাহার আগমন । ] পাঠক দেখিতেছেন, এখানে ‘তাহার পর মোহাম্মদকে নবীরূপে প্রেরণ করিলাম’এইরূপ না বলিয়া, বলা হইতেছে — ‘তাহার পর আল্লাহ মোমেনদিগের আবির্ভাব করিলেন । কারণ দেহের হিসাবে নবী ক্ষণস্থায়ী । কিন্তু তিনি অমর হইয়া থাকেন, নিজের শিক্ষণ ও সাধনার মধ্য দিয়া । তাহার প্রদত্ত সেই শিক্ষা এবং তাহার প্রদর্শিত সেই সাধনা সজীব হইয়া সফল হইয়া প্রকাশ পায়—তাহার অনুসারী উম্মতিগণের যোগ্যতা ও আন্তরিকতার মধ্য দিয়া। তাই এখানে নবীর উল্লেখ না করিয়া তাহার আদর্শের । l