পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২য় ছুরা, ১ম রুকু ] আখেরাত ' ' ' - రిపి আয়তের একটা বিশেষত্ব —মফউল'কে (Ura) ফেএলে'রু{Us) পূৰ্ব্বে উল্লেখ করা হইয়াছে। ইহার সার্থকতা হইতেছে বিষয়টার গুরুত্ব প্রতিপাদন,— Lai erase, Uts & . 釁 ( 23 ه 4 هـسـلا ,ةRة ) – المال بالصين يقى নমাজ কায়েম রাখার এই প্রকার আদেশের সঙ্গে সঙ্গে কোরআনের বহু স্থানে এই 疊 সদ্ব্যয়ের উল্লেখ আছে। বান্দার প্রধান কৰ্ত্তব্য আল্লার প্রতি ও র্তাহার কৃষ্টির প্রতি—পূৰ্ব্বে টীকায় ইহা বলিয়াছি। নমাজ আল্লার প্রতি তাহার কর্তব্য পালনের প্রধান সোপান আর এই সদ্ব্যয় হইতেছে বান্দার প্রতি তাহার কৰ্ত্তব্য পালনের প্রধান সোপান । ( এবনৈ- மு' কছির, ১—৭৮ ) । ফরজ জগকগত সম্বন্ধে যথাস্থানে আলোচনা করা হইবে । ৮ GU; আলজালন – ‘এনজালু–ন-জ-ল’ ধাতু হইতে উৎপন্ন। উহার অর্থ নামিয়া আসা বা নামাইয়। দেওয়া। ব্যবহারে অনেক সময় উহার অর্থ হয় দান করা বা পোছাইয়া দেওয়া।. সৰ্ব্বত্র উদ্ধ হইতে নিয়ে নামাইয়া দেওয়া উহার অর্থ হইতে পারে না। আল্লাহ কেতাব নাজেল করেন, ' ন্তামত নাজেল করেন—ইহার অর্থ পোছাইয়া দেন, দান করেন । (রাগেব, মুহীত, প্রভৃতি) । ৯ is আখেরাত – আভিধানিক অর্থ–পরবর্তী’। এই বিশ্যেপদের বিশেষণ দার’ শব্দ এখানে উহ, আছে । আরবী ভাষায় ও কোআন হাদিছে ইহার বহুল ব্যবহার হওয়ার পর বিশেষ পদ উল্লেখ করার আবশ্বক হয় নাই –বিশেষণ বলিলেই বিশেষ্যকুে বুক বাইবে । আরবী অলঙ্কার শাস্ত্রে ইহাকে 'ছেফতে-গালেব' বলা হয়। আখেরাতের বিপরীত শব্দ হইতেছে 'ছনা । ইহাও বিশেষণ,—ইহার বিশেষ ‘দার’ শব্দও ব্যবহারে উহা হইয়। গিয়াছে। (গৃহীত ) ৷ মির্জা বশীরুদিন আহমদ কোরআন শরীফের প্রথম পারার যে ইংরাজী অনুবাদ প্রকাশকরিয়াছেন, তাহাতে তিনি বলিতেছেন যে ঃ—“আখেরাত শব্দের অর্থ দুই প্রকার। প্রথম— পরকাল, দ্বিতীয়—পরবর্তী অহি। হজরতের ও র্তাহার পূর্ববর্তী নবীগণের প্রতি প্রেরিত আহি'র উপর ঈমান আনা যেমন মুছলমানের পক্ষে কৰ্ত্তব্য, সেইরূপ হজরতের পরে ষে অহি নাজেল হইবে, তাহার প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করাও তাহার পক্ষে কর্তব্য। আর যেহেতু পরবর্তী অহি'র বাহন হইতেছেন—মির্জাগোলাম আহমদ কাদিয়ানী েছাহেব,"অতএব ঠুহার উপর ঈমান আনাও মুছলমানের পক্ষে একান্ত কর্তব্য। মোটের উপর লেখক এই মুক্তি প্রদর্শন করিয়াছেন। একটা ধৰ্ম্ম সম্প্রদায়ের নেতার মুখে এই প্রকার যুক্তি শুনিয়া আমরা যাহার পর নাই দুঃখিত হইয়াছি। *) আখেরাত শব্দের দুইটা অর্থ পরকাল ও পরবর্তী অহি,—ইহা অন্যায় কথা *. আরবী সঞ্জত্য ও অভিধান হইতে ইহা কখনই প্রমাণিত হয় না। অভিধানের হিসারে উহার ()