পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\ . * * 譬 می گی 轉 سي '? 蠟 ـ : GRat-سtaTH جي سيناء - بناء طاة * "ছামা' শব্দের “ধাতুগত অর্ধ—উচ্চ হওয়া। আরবী সাহিত্যে প্রত্যেক উদ্ধস্থ বস্তুকেই 'ছাম' বলা হইয়া থাকে। এই জন্য মানুষের উদ্ধ দেশস্থ, শূন্ত, মেঘ, গ্রহ, নক্ষত্র প্রভৃতিকেও 'ছামা' বলা হইয়া থাকে। ঘরের চাল, তাম্বুর উদ্ধ ভাগ, ভূমি হইতে উদ্ধ উখিত বৃক্ষ, এমন কি ঘোড়ার পিঠকে পর্য্যন্ত ‘ছামা’ বলা হইয়া থাকে । ( বায়জাভী ১—৪২, ফেক্হুললোগাত-ছাআলবী, লেছাহুল আরব প্রভৃতি ) ৷ ধাতুগত তাৎপর্য্যের হিসাবে যাহা বানান হয়—তাহাই বেনা । তাম্বুর আচ্ছাদন, গুম্বজ বা ছাতার স্তায় যাহার মধ্য ভাগ উচ্চ এবং প্রান্ত ভাগগুলি ঢালু হইয়া নিম্নদিকে বুলিয়া আসিয়াছে—আরবী সাহিত্যে তাহাকে বেনা বলা হয়। পশম বা চামড়া দ্বারা নিৰ্ম্মিত তাম্বুগুলিই ছিল—আরবের বেনা । ( জওহরী, রাগেব, লেছন, মেছবাহ, মহীত ) ৷ এখানে "ছামা’ বা উদ্ধ দেশকে বেনা’ বলিয়া বর্ণনা করা হইয়াছে । ইহার তাৎপর্যা এই যে—পৃথিবীর উদ্ধদেশকে আল্লাহ এমন ভাবে অবস্থিত করিয়াছেন, যাহা বাহা দৃষ্টিতে তাম্বু বা গুম্বজের আচ্ছাদনের মত বোধ হয়। இ ২৭ এ নেদ ন – নেদ’ শব্দের অর্থ—প্রতিযোগী ও প্রতিদ্বন্দ্বী । "আল্লার জন্য প্রতিদ্বন্দী গঠন করিয়া লইও না”—ইহার অর্থ এই যে, বিশ্বচরাচরের কোন ব্যক্তি, বস্তু বা বিষয় সম্বন্ধে এরূপ ব্যবহার .করিও না—যাহতে প্রতিপন্ন হয় যে, তাহাদিগকে তোমরা আল্লার শরিক বা প্রতিদ্বন্দ্বী বলিয়। মনে করিয়া থাক। আয়তে বলু হইতেছে যে, স্বৰ্গ মৰ্ত্তা ও তাহার অভ্যন্তরস্থ প্রত্যেক ব্যক্তি, বস্তু ও বিষয়ের স্রষ্টা ও নিয়ামক একমাত্র আল্লাহ। মক্কার মোশরেকগণ যে আল্লাকে জানিত না, বা মানিত না—এমন নহে। কিন্তু এই মানার সঙ্গে সঙ্গে তাহারা ইহাও বিশ্বাস করিত যে, কতকগুলি পীর ফকির ও ঠাকুর দেবতা প্রভৃতিও মানুষকে তাহার ইষ্ট দান করিতে এরং অনিষ্ট হইতে তাহাঙ্কে রক্ষা করিতে সমর্থ। এই জন্য ইষ্টলাভ করার এবং অনিষ্ট হইতে .রক্ষণ পাওয়ার छछ জাহারা সেই সকল ঠাকুর-দেবতা ও বোজগ-বিগ্রহের শরণ গ্রহণ করিত | শিলোচ্য আয়ত দুইটার প্রথমে মানুষকে এবাদত করিবার এবং শেষে সেই এবাদতাকে শের্কের কলুষ হইতে মুক্ত রাখিবার আদেশ দেওয়া হইয়াছে। হজরত বলিয়াছেন—তুষ্টির কোন বস্তু বা ব্যক্তিকে স্বষ্টিকৰ্ত্তার প্রতিযোগীরূপে গ্রহণ করা s সৰ্ব্বপ্রধান মহাপাপ । একজন ছাহাবী একদিন কথা প্রসঙ্গে অসাবধানত বশতঃ বলিয়া ফেলেন—“আল্লাহ ও মোহাম্মদের মজি হইলে এইরূপ হইবে।” এই কথা হজরতের কর্ণগোচর হইলে অবিলম্বে সকলকে সমবেত করিয়া তিনি এক,খোত বা দান করিলেন, এবং সকলকে —বিয়ে বিশেষরূপে সতর্ক করিয়া দিয়া বলিলেন—“সাবধান! গুৰু বলিবে—আল্লার মজি فنون মোহাম্মদের নাম সে সঙ্গে কদাচিৎ জুড়িয়া দিবে না, ( বোখারী, মোছলেম)। Nూ , কোঙ্কআনি শরীফ [ প্রথম পারা