পাতা:কোরআন শরীফ (প্রথম খণ্ড) - মোহাম্মদ আকরম খাঁ.pdf/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


વe তুকার আল শল্পীফ প্রথম পার। -: Trg fg rtrrt g خلق لکم و দুর্নার প্রত্যেক বস্তুকেই আল্লাহ্ তাআলা মানুষের উপকারের জন্য স্থষ্টি করিয়াছেন । অন্য আয়ুতে বলা হইয়াছে——“স্বৰ্গ মৰ্ত্ত্যের সমস্তকেই আল্লাত তোমাদের বশীভূত করিয়া দিয়া ছেন । চিন্তাশীল সমাজের জন্য ইহাতে নিশ্চয় বহু নিদর্শন বিদ্যমান আছে । ( ছুর জাছিয়— ১৪ ) ৷ ছুনার সমস্ত বস্থই মানুষের কার্য্যে নিয়োজিত—এই শ্রেণীর বহু আয়াত কোরআনে বর্ণিত হইয়াছে। যে সমাজের মধ্যে চিন্তাশীলতার অভাব, তাহারা উহা দ্বারা উপকার লইতে পারে না—কিন্তু চিন্তাশীল যাহারা, তাহার। ইহা হইতে দুই প্রকার শিক্ষা গ্রহণ করে। প্রথম ঃ-কাহারা পুথিবীর সমস্ত জিনিষ হইতে উপকার গ্রহণ করার জন্য লালাস্থিত হয়, স্বৰ্গ মৰ্ত্ত্যের সমস্ত বস্তুকে নিজেদের কাজে লাগাইতে চায় । ইহাতে জ্ঞান বিজ্ঞানের দরজ তাহাদের সম্মুখে খুলিয়া যায়। দ্বিতীয় —যে সৰ্ব্বশক্তিমান ও মঙ্গলময়ের করুণা-কটাক্ষের ফলে আমাদেরই জন্য এই অনন্ত বিশাল স্থষ্টি—র্তাহণকে বিস্মৃত হওয়া বা অস্বীকার করার মত কৃতঘ্নতা আর কিছুই নহে–এই চিন্তার উদ্রেকের সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যেক বস্তুতত্ত্ব তাহাদিগকে পরমার্ধ জ্ঞানের দিকে টানিয়া লইয়া যায়। এই কৰ্ম্মযোগ ও জ্ঞানযোগের সমবায়ের নামই এছলামের ধৰ্ম্মসাধনা, এবং বণিত চিন্তাশীলতাই তাহাকে এই সাধনার পথে অগ্রসর করিতে পারে । কোম্রানের এই শিক্ষাই প্রথম যুগে মুছলমানকে কৰ্ম্মের ও জ্ঞানের প্রত্যেক বিভাগে এক অভূতপূৰ্ব্ব সিদ্ধিলাভে সমর্থ করিয়াছিল। আজ জ্ঞানে বিজ্ঞানে, ভাবে ভক্তিতে শেীর্ষ্যে বীৰ্য্যে যে সব মুছলমানের না করিয়া আমরা গৌরব ও আনন্দ লাভ করিয়া থাকি, তাহাদের জীবনের সাধনা ও সিদ্ধির সন্ধান লইলে কোরআনের এই শিক্ষাকেই তাহার মূলীভূত কারণ বলিয়া স্পষ্টতঃ জানা যাইবে । – সপ্ত গগন سبع سموات هند ছামা' শব্দের তাৎপৰ্য্য পাঠকগণ ২৫ টাকায় অবগত হইয়াছেন। এই আয়তে প্ৰধম বিচাৰ্য্য এই যে, ছাগা শব্দ একবচন, অথচ পরে তাহার জন্য জমির ব; নাম মানা হইতেছে—বহুবচন হুন্না’, ইহার কারণ কি ? এই সমস্তার সমাধানের ষ্টি ব্যাকরণ বিশেষজ্ঞ তফছিরকারগণ নানা প্রকার কষ্ট কল্পনার আশ্রয় লইয়াকুন। অথচ সত্য কথা এই যে, তবুও তাহার কোন সন্তোষজনক সিদ্ধান্তে উপনীত হইতে পারেন নাই। தி | | সেই জন্ত রায়জাভী বলিতে বাধ্য হইয়াছেন ঃ– هو المراد بالسهام هذه الايجرام العلمرية أرجهات العلو- ص ٧ه . অর্থাৎ—“ ছায়া শব্দ দ্বারা উদ্ধস্থ গ্রহপথ orbit বা উন্ধের বিভিন্ন দিক Altituteকে বুঝাইতেহেম”.